ইসরায়েলের নাগরিকদের জন্য ভিসার প্রয়োজনীয়তা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইসরায়েলী পাসপোর্ট

ইসরায়েলের নাগরিকদের জন্য ভিসার প্রয়োজনীয়তা বলতে ইসরায়েলের পাসপোর্টধারীদের জন্য অন্য দেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে ভিসার যেসব নিয়মনীতি প্রয়োজন, তা বুঝিয়ে থাকে। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারীর হ্যানলী ভিসা রিস্ট্রিকশন ইনডেক্স অনুযায়ী ইসরায়েলী নাগরিকরা ভিসা ছাড়াই অথবা যাওয়ার পর পাসপোর্টে ভিসা লাগিয়ে ১৪৮টি দেশে যেতে পেরেছে, যা ইসরায়েলী পাসপোর্টকে বিশ্বে ২৪তম স্থানে নিয়ে এসেছে।[১]

২০১৭ সাল অনুযায়ী, ইসরায়েলী, চিলি, দক্ষিণ কোরিয়া এবং হংকংয়ের নাগরিকরা ইউরোপের সকল দেশে ভিসা ছাড়াই শুধু পাসপোর্ট দেখিয়েই ঢুকতে পারবে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ইসরায়েলের আইন অনুযায়ী ইরাক, ইরান, ইয়েমেন, লেবানন, সিরিয়া এবং সৌদি আরবকে শত্রু দেশ হিসেবে মনে করা হয়, এবং এসব দেশে ভ্রমণ করতে হলে ইসরায়েলের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রণালয় থেকে বিশেষ অনুমতিপত্র নিয়ে আসতে হয়। বিদেশী পাসপোর্ট নিয়ে হোক আর ইসরায়েলী পাসপোর্ট নিয়ে হোক, এসব দেশ থেকে ভ্রমণ করে ইসরায়েলে আসার পর ভ্রমণকারী অভিযুক্ত হতে পারেন। ১৯৫৪ সালে রাষ্ট্রগুলোর তালিকা করা হয়েছিলো যাতে ২০০৭ সালের ২৫ জুলাই ইরানকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[২] মিশর এবং জর্ডানকেও শত্রু দেশ এর তালিকায় রাখা হয়েছে; যদিও ইসরায়েলের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রণালয় দুই দেশে প্রবেশে অবাধ প্রবেশাধিকার দিয়ে থাকে, যেহেতু উভয় দেশের সাথে একটি শান্তি চুক্তি করা হয়েছে।[৩]

২০০৮ সালের একটি সংশোধনীতে ১৯৫২-এর জাতীয় আইন সংশোধন করে প্রকাশ করা হয়, যেখানে নয়টি দেশকে শত্রু দেশ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। দেশগুলো হল: আফগানিস্তান, ইরান, ইরাক, লেবানন, লিবিয়া, পাকিস্তান, সুদান, সিরিয়া, এবং ইয়েমেন, গাজা ভূখণ্ডও এর সাথে রয়েছে।

ইসরায়েলের নাগরিকদের কিছু বিতর্কিতভাবে প্রত্যাখ্যান করতেও দেখা যায় যার মধ্যে টেনিস খেলোয়াড় সাহার পীরও রয়েছেন, যাকে ২০০৯ দুবাই ওপেনে সংযুক্ত আরব আমিরাতে খেলার জন্য ভিসা বাতিল করে দেয়া হয়।

যেসব লোকেরা ইসরায়েলে সম্বন্ধ করেছেন, তারা দেশটিতে ইসরায়েলের পাসপোর্ট এক সপ্তাহের মধ্যে পাওয়ার জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত।[৪]

ভিসা প্রয়োজন সংক্রান্ত মানচিত্র[সম্পাদনা]

ইসরায়েলের নাগরিকদের জন্য ভিসার প্রয়োজনীয়তা
  ইসরায়েল
  ভিসা লাগবেনা
  যাওয়ার পর ভিসা
  ই-ভিসা
  যাওয়ার পর ভিসা এবং অনলাইনে
  ভিসা দরকার
  ঢুকা যাবেনা

ভিসা আবশ্যক[সম্পাদনা]

ভ্রমণের উদ্দেশ্যে আসা সাধারণ পাসপোর্টধারী পর্যটকদের জন্য ভিসা আবশ্যক:

দেশ ভিসা আবশ্যক টীকা (প্রস্থান ফি বাদে এবং চলমান ভিসা-মুক্ত চুক্তি অনুমোদন )
 আফগানিস্তান ভিসা আবশ্যক[৫]
 আলবেনিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [৬] ৯০ দিন
 আলজেরিয়া আবেদন খারিজ[৭] আরব লীগের অংশবিশেষ ইসরায়েলকে বর্জন করেছে
 অ্যান্ডোরা ভিসা আবশ্যক নয় [৮]
 অ্যাঙ্গোলা ভিসা আবশ্যক[৯]
 অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ইলেকট্রনিক এন্ট্রি ভিসা[১০]
 আর্জেন্টিনা ভিসা আবশ্যক নয় [১১] ৯০ দিন
 আর্মেনিয়া ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[১২] ১২০ দিন। যারটনোতস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আগমনের সময় বা অনলাইনে ভিসা পাওয়া যাবে।[১৩]
 অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবশ্যক[১৪] অনলাইনে আবশ্যক হতে পারে[১৫]
 অস্ট্রিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [১৬] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 আজারবাইজান ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[১৭] ৩০ দিন;[১৮] ই-ভিসা ও উপলব্ধ;[১৯] বিদেশী নাগরিক যাদের পাসপোর্টে নাগোমো-কারাবাখ এর সীল রয়েছে, আর্মেনিয়ার নাগরিক এবং অন্যান্য আর্মেনীয় বিদেশীদের আবেদন খারিজ করা হয়েছে
 বাহামা দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক নয় [২০] ৩ মাস
 বাহরাইন ভিসা আবশ্যক[২১]
 বাংলাদেশ আবেদন খারিজ[২২]
 বার্বাডোস ভিসা আবশ্যক নয় [২৩] ৬ মাস
 বেলারুশ ভিসা আবশ্যক নয় [২৪] ৯০ দিন
 বেলজিয়াম ভিসা আবশ্যক নয় [২৫] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 বেলিজ ভিসা আবশ্যক নয় [২৬] ৯০ দিন
 বেনিন ভিসা আবশ্যক[২৭]
 ভুটান ভিসা আবশ্যক[২৮]
 বলিভিয়া ভিসা আবশ্যক[২৯]
 বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ভিসা আবশ্যক নয় [৩০] ৬ মাস সময়কালে ৯০ দিন
 বতসোয়ানা ভিসা আবশ্যক নয় [৩১] এক বছরের মধ্যে ৯০ দিন
 ব্রাজিল ভিসা আবশ্যক নয় [৩২] ৯০ দিন
 ব্রুনাই আবেদন খারিজ[৩৩]
 বুলগেরিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [৩৪] ১৮০ দিন সময়কালে ৯০ দিন
 বুর্কিনা ফাসো ভিসা আবশ্যক[৩৫]
 বুরুন্ডি ভিসা আবশ্যক[৩৬]
 কম্বোডিয়া ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[৩৭] ৩০ দিন। অনলাইনেও ভিসা পাওয়া যায়।
 ক্যামেরুন ভিসা আবশ্যক[৩৮]
 কানাডা ভিসা আবশ্যক নয় [৩৯] ৬ মাস; বিমানপথে আসলে ইটিএ প্রয়োজন।[৪০]
 কেপ ভার্দ আগমনের সময় ভিসা[৪১]
 মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র ভিসা আবশ্যক নয় [৪২] ৯০ দিন
 চাদ ভিসা আবশ্যক[৪৩]
 চিলি ভিসা আবশ্যক নয় [৪৪] ৯০ দিন
 চীন ভিসা আবশ্যক[৪৫] ভিসা ছাড়াও ইসরাইলের নাগরিকরা হংকং এবং ম্যাকাও ভ্রমণ করতে পারে।
 কলম্বিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [৪৬] এক বছর সময় কালের মধ্যে ৯০ দিন থেকে ১৮০ দিন পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে।
 কোমোরোস আগমনের সময় ভিসা[৪৭]
 কঙ্গো ভিসা আবশ্যক[৪৮]
 গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র ভিসা আবশ্যক[৪৯]
 কোস্টা রিকা ভিসা আবশ্যক নয় [৫০] ৯০ দিন
 কোত দিভোয়ার ভিসা আবশ্যক[৫১]
 ক্রোয়েশিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [৫২] ১৮০ দিন সময়কালের মধ্যে ৯০ দিন
 কিউবা ভ্রমণ কার্ড প্রয়োজন[৫৩]
 সাইপ্রাস ভিসা আবশ্যক নয় [৫৪] ১৮০ দিন সময়কালের মধ্যে ৯০ দিন
 চেক প্রজাতন্ত্র ভিসা আবশ্যক নয় [৫৫] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 ডেনমার্ক ভিসা আবশ্যক নয় [৫৬] ১৮০ দিন সময়কালের মধ্যে ৯০ দিন অন্য সেনজেন এলাকায় অতিবাহিত সময় সত্ত্বেও (নর্দান দেশ সমূহ পরে)
 জিবুতি আগমনের সময় ভিসা[৫৭] প্রবেশ পথগুলোতে পাওয়া যায় না।[৫৮]
 ডোমিনিকা ভিসা আবশ্যক নয় [৫৯] ৬ মাস
 ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র ভিসা আবশ্যক নয় [৬০] ৯০ দিন
 ইকুয়েডর ভিসা আবশ্যক নয় [৬১] ৯০ দিন[৬২]
 মিশর ভিসা আবশ্যক[৬৩] সিনাই রিসোর্টে সর্বোচ্চ ১৪ পর্যন্ত ভ্রমণে ভিসা আবশ্যক নয় যদি শুধুমাত্র তাবা সীমান্ত ফাঁড়ী বা শার্ম-আশ-শেখ বিমানবন্দর দিয়ে এসে থাকে[৬৪]
 এল সালভাদোর ভিসা আবশ্যক নয় [৬৫] ৩ মাস
 বিষুবীয় গিনি ভিসা আবশ্যক[৬৬]
 ইরিত্রিয়া ভিসা আবশ্যক[৬৭]
 এস্তোনিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [৬৮] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 ইথিওপিয়া ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[৬৯]
 ফিজি ভিসা আবশ্যক নয় [৭০] ৪ মাস
 ফিনল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয় [৭১] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 ফ্রান্স এবং এর অঞ্চলসমূহ ভিসা আবশ্যক নয় [৭২] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন (ফ্রান্সের অঞ্চলসমূহ)
 গ্যাবন ই-ভিসা[৭৩] ইলেকট্রনিক ভিসা ধারীদের অবশ্যই লাইব্রেভাইল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে আসতে হবে
 গাম্বিয়া ভিসা আবশ্যক[৭৪]
 জর্জিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [৭৫] ১ বছর[৭৬]
 জার্মানি ভিসা আবশ্যক নয় [৭৭] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 ঘানা ভিসা আবশ্যক[৭৮]
 গ্রিস ভিসা আবশ্যক নয় [৭৯] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 গ্রেনাডা ভিসা আবশ্যক নয় [৮০] ৩ মাস
 গুয়াতেমালা ভিসা আবশ্যক নয় [৮১] ৯০ দিন
 গিনি ভিসা আবশ্যক[৮২]
 গিনি-বিসাউ ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[৮৩] ৯০ দিন
 গায়ানা ভিসা আবশ্যক[৮৪]
 হাইতি ভিসা আবশ্যক নয় [৮৫] ৩ মাস
 হন্ডুরাস ভিসা আবশ্যক নয় [৮৬] ৩ মাস
 হাঙ্গেরি ভিসা আবশ্যক নয় [৮৭] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 আইসল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয় [৮৮] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 ভারত ই-ভিসা[৮৯] ৬০ দিন; ই-ভিসা ধারীদের অবশ্যই ২৪টি নির্দিষ্ট বিমানবন্দর বা ৩টি সমুদ্রবন্দর দিয়ে প্রবেশ করতে হবে।[৯০]
 ইন্দোনেশিয়া ভিসা আবশ্যক[৯১] শুধুমাত্র ডেনপাসার-বালি (DPS), জাকার্তা (হালিম পেরডানা কুসুমা (HLP), সয়েকারনো-হাত্তা (CGK), এবং সুরাবাইয়া (SUB) দিয়ে প্রবেশযোগ্য
 ইরান আবেদন খারিজ[৯২]
 ইরাক আবেদন খারিজ[৯৩] ইরাকী কুর্দিস্তান পরে, আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 আয়ারল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয় [৯৪] ৩ মাস
 ইতালি ভিসা আবশ্যক নয় [৯৫] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 জ্যামাইকা ভিসা আবশ্যক নয় [৯৬] ৩০ দিন
 জাপান ভিসা আবশ্যক নয় [৯৭] ৯০ দিন
 জর্দান আগমনের সময় ভিসা[৯৮] শর্ত প্রযোজ্য।[৯৯] যেকোন প্রবেশ পথে পাওয়া যাবে না।[১০০]
 কাজাখস্তান ভিসা আবশ্যক নয় [১০১] ৩০ দিন
 কেনিয়া ই-ভিসা[১০২] ৩ মাস
 কিরিবাস ভিসা আবশ্যক[১০৩]
 উত্তর কোরিয়া ভিসা আবশ্যক[১০৪]
 দক্ষিণ কোরিয়া ভিসা আবশ্যক নয় [১০৫] ৯০ দিন
 কুয়েত আবেদন খারিজ[১০৬] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 কিরগিজিস্তান ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[১০৭] ৩০ দিন। মানাস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাওয়া যাবে।
 লাওস আগমনের সময় ভিসা[১০৮] ৩০ দিন
 লাতভিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১০৯] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 লেবানন আবেদন খারিজ[১১০] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 লেসোথো ভিসা আবশ্যক নয়[১১১] ৩০ দিন
 লাইবেরিয়া ভিসা আবশ্যক[১১২]
 লিবিয়া আবেদন খারিজ[১১৩] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 লিশটেনস্টাইন ভিসা আবশ্যক নয়[১১৪] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 লিথুয়ানিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১১৫] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 লুক্সেমবুর্গ ভিসা আবশ্যক নয়[১১৬] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 মেসিডোনিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১১৭] ৯০ দিন
 মাদাগাস্কার আগমনের সময় ভিসা[১১৮] ৯০ দিন
 মালাউই ভিসা আবশ্যক নয়[১১৯] ৯০ দিন
 মালয়েশিয়া ভিসা আবশ্যক[১২০] মালয়েশিয়ায় আগমনের পর ভিসা ছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে একটি নিশ্চয়তা অনুমতিও পাওয়া যাবে।
 মালদ্বীপ আগমনের সময় ভিসা[১২১] ৩০ দিন[৬২]
 মালি ভিসা আবশ্যক[১২২]
 মাল্টা ভিসা আবশ্যক নয়[১২৩] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 মার্শাল দ্বীপপুঞ্জ আগমনের সময় ভিসা[১২৪]
 মৌরিতানিয়া আগমনের সময় ভিসা[১২৫] নৌয়াকছট্ট–অমটাউন্সি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাওয়া যাবে।
 মরিশাস ভিসা আবশ্যক নয়[১২৬] ৯০ দিন
 মেক্সিকো ভিসা আবশ্যক নয়[১২৭] ১৮০ দিন
 মাইক্রোনেশিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১২৮] ৩০ দিন
 মলদোভা ভিসা আবশ্যক নয়[১২৯] ৯০ দিন
 মোনাকো ভিসা আবশ্যক নয়[১৩০]
 মঙ্গোলিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৩১] ৩০ দিন
 মন্টিনিগ্রো ভিসা আবশ্যক নয়[১৩২] ৯০ দিন
 মরক্কো ভিসা আবশ্যক[১৩৩] যারা মরক্কোতে জন্মগ্রহণ করেছে, তারা আগমনের সময় ভিসা পাবে।
 মোজাম্বিক আগমনের সময় ভিসা[১৩৪] ৩০ দিন, শর্ত প্রযোজ্য[১৩৫]
 মিয়ানমার ই-ভিসা[১৩৬] ২৮ দিন। ই-ভিসা ধারীদের অবশ্যই ইয়াঙ্গুন, নাই পাই তাউ বা মান্দালয় বিমানবন্দর দিয়ে আগমন করতে হবে।
 নামিবিয়া ভিসা আবশ্যক[১৩৭]
 নাউরু ভিসা আবশ্যক নয়[৬৪]
   নেপাল আগমনের সময় ভিসা[১৩৮] ৯০ দিন
 নেদারল্যান্ডস ভিসা আবশ্যক নয় [১৩৯] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন (ইউরোপীয় নেদারল্যান্ডস)
 নিউজিল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয়[১৪০] ৯০ দিন
 নিকারাগুয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৪১] ৯০ দিন
 নাইজার ভিসা আবশ্যক[১৪২]
 নাইজেরিয়া ভিসা আবশ্যক[১৪৩]
 নরওয়ে ভিসা আবশ্যক নয় [১৪৪] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 ওমান আবেদন খারিজ[১৪৫] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 পাকিস্তান আবেদন খারিজ[১৪৬]
 পালাউ ভিসা আবশ্যক নয়[১৪৭] ৯০ দিন
 পানামা ভিসা আবশ্যক নয়[১৪৮] 180 দিন
 পাপুয়া নিউ গিনি আগমনের সময় ভিসা[১৪৯] 60 দিন
 প্যারাগুয়ে ভিসা আবশ্যক নয়[১৫০] ৯০ দিন
 পেরু ভিসা আবশ্যক নয়[১৫১] ১৮৩ দিন পর্যন্ত
 ফিলিপাইন ভিসা আবশ্যক নয়[১৫২] ৫৯ দিন
 পোল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয়[১৫৩] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 পর্তুগাল ভিসা আবশ্যক নয়[১৫৪] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 কাতার ই-ভিসা[১৫৫][১৫৬]
 রোমানিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৫৭] ৯০ দিন ১৮০ দিন সময়কালের মধ্যে
 রাশিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৫৮] ১৮০ দিন সময়কালের মধ্যে ৯০ দিন
 রুয়ান্ডা আগমনের সময় ভিসা[১৫৯] ৩০ দিন
 সেন্ট কিট্‌স ও নেভিস ভিসা আবশ্যক নয়[১৬০] ৩ মাস
 সেন্ট লুসিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৬১] ৬ সপ্তাহ
 সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক নয়[১৬২] ১ মাস
 সামোয়া [১৬৩] ৬০ দিন
 সান মারিনো ভিসা আবশ্যক নয়[১৬৪]
 সাঁউ তুমি ও প্রিন্সিপি ই-ভিসা[১৬৫][১৬৬]
 সৌদি আরব আবেদন খারিজ[১৬৭] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 সেনেগাল আগমনের সময় ভিসা[১৬৮] ৩ মাস
 সার্বিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৬৯] ১৮০ দিন সময়কালের মধ্যে ৯০ দিন
 সেশেল আগমনের সময় ভ্রমণকারী স্বীকৃতি[১৭০] ৩ মাস, চার্জমুক্ত ভাবে প্রদান[৬২]
 সিয়েরা লিওন ভিসা আবশ্যক[১৭১]
 সিঙ্গাপুর ভিসা আবশ্যক নয়[১৭২] ১ মাস
 স্লোভাকিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৭৩] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 স্লোভেনিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[১৭৪] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 সলোমন দ্বীপপুঞ্জ আগমনের সময় ভ্রমণকারী স্বীকৃতি[১৭৫] ৩ মাস
 সোমালিয়া ভিসা আবশ্যক[১৭৬]
 দক্ষিণ আফ্রিকা ভিসা আবশ্যক নয়[১৭৭] ৯০ দিন
 দক্ষিণ সুদান ভিসা আবশ্যক[১৭৮]
 স্পেন ভিসা আবশ্যক নয়[১৭৯] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 শ্রীলঙ্কা ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[১৮০] ৩০ দিন
 সুদান আবেদন খারিজ[১৮১] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 সুরিনাম ভিসা আবশ্যক নয়[১৮২] ৯০ দিন
 ইসোয়াতিনি ভিসা আবশ্যক নয়[১৮৩] ৩০ দিন[৬২]
 সুইডেন ভিসা আবশ্যক নয়[১৮৪] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 সুইজারল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয়[১৮৫] সেনযেন এলাকায় হলে ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে ৯০ দিন
 সিরিয়া আবেদন খারিজ[১৮৬] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 তাজিকিস্তান আগমনের সময় ভিসা[১৮৭] ৪৫ দিন। অনলাইনেও ভিসা পাওয়া যাবে। ই-ভিসা ধারীরা প্রতিটি সীমান্ত ফাঁড়ী দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে।[১৮৮]
 তানজানিয়া আগমনের সময় ভিসা[১৮৯]
 থাইল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয়[১৯০] ৩০ দিন (যদি বিমানপথে না আসা হয়, তবে এক বছরের সর্বোচ্চ দুইবার)[১৯১]
 পূর্ব তিমুর আগমনের সময় ভিসা[১৯২] ৩০ দিন। যেকোন সীমান্ত ফাঁড়ী দিয়ে আসা যাবেনা।[১৯৩]
 টোগো আগমনের সময় ভিসা[১৯৪] ৭ দিন
 টোঙ্গা আগমনের সময় ভিসা[১৯৫] ৩১ দিন
 ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ভিসা আবশ্যক নয় [১৯৬] ৯০ দিন
 তিউনিসিয়া ভিসা আবশ্যক[১৯৭]
 তুরস্ক ভিসা আবশ্যক নয় [১৯৮] ৩ মাস
 তুর্কমেনিস্তান ভিসা আবশ্যক[১৯৯]
 টুভালু আগমনের সময় ভিসা[২০০] ১ মাস[৬২]
 উগান্ডা ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[২০১] ৩ মাস। অনলাইনে আবেদন করা যাবে।[২০২]
 ইউক্রেন ভিসা আবশ্যক নয়[২০৩] ১৮০ দিন সময়কালের মধ্যে ৯০ দিন
 সংযুক্ত আরব আমিরাত আবেদন খারিজ[২০৪] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে। বিমানবন্দরের আন্তর্জাতিক অঞ্চল দিয়ে আসা যাওয়ার অধিকার রয়েছে।[২০৫][২০৬][২০৭]
 যুক্তরাজ্য ভিসা আবশ্যক নয়[২০৮] ৬ মাস
 মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিসা আবশ্যক[২০৯]
 উরুগুয়ে ভিসা আবশ্যক নয়[২১০] ৩ মাস
 উজবেকিস্তান ভিসা আবশ্যক[২১১]
 ভানুয়াটু ভিসা আবশ্যক নয়[২১২] ৩০ দিন[৬২]
 ভ্যাটিকান সিটি ভিসা আবশ্যক নয়[২১৩]
 ভেনেজুয়েলা ভিসা আবশ্যক[২১৪]
 ভিয়েতনাম ভিসা আবশ্যক[২১৫]
 ইয়েমেন আবেদন খারিজ[২১৬] আরব অংশ ইসরায়েলকে বাতিল করেছে
 জাম্বিয়া ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[২১৭] ৯০ দিন; জিম্বাবুয়েতে প্রবেশের জন্য সর্বজনীন ভিসাও পেতে পারে।
 জিম্বাবুয়ে ই-ভিসা / আগমনের সময় ভিসা[২১৮] ৩ মাস; জাম্বিয়ায় প্রবেশের জন্য সর্বজনীন ভিসাও পেতে পারে।

অস্বীকৃত বা আংশিক স্বীকৃত দেশসমূহ[সম্পাদনা]

দেশসমূহ প্রবেশের শর্তাবলী
 আবখাজিয়া ভিসা আবশ্যক[২১৯]
 কসোভো ভিসা আবশ্যক নয়[২২০]
 উত্তর সাইপ্রাস ভিসা আবশ্যক নয়[২২১]
 নাগোর্নো-কারাবাখ প্রজাতন্ত্র ভিসা আবশ্যক[২২২]
 দক্ষিণ ওসেটিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[২২৩]
 প্রজাতন্ত্রী চীন ভিসা আবশ্যক নয়[২২৪]
 ত্রান্সনিস্ত্রিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[২২৫]

উপরাষ্ট্রসমুহ[সম্পাদনা]

দেশসমূহ প্রবেশের শর্তাবলী টীকা
চীন
 হংকং ভিসা আবশ্যক নয় ৯০ দিন[২২৬]
 মাকাও ভিসা আবশ্যক নয় ৯০ দিন[২২৭]
ডেনমার্ক
 ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক নয়[২২৮] ৯০ দিন
 গ্রিনল্যান্ড ভিসা আবশ্যক নয়[২২৯] ৯০ দিন
ফ্রান্স
 ফরাসি গায়ানা ভিসা আবশ্যক নয়[২৩০] ৯০ দিন
 ফরাসি পলিনেশিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[২৩১] ৯০ দিন
ফ্রান্স French West Indies ভিসা আবশ্যক নয়[২৩২] ৯০ দিন; includes overseas departments of Guadeloupe and Martinique and overseas collectivities of Saint Martin and Saint Barthélemy
 মায়োত ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৩] ৯০ দিন
 নিউ ক্যালিডোনিয়া ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৪] ৯০ দিন
 রেউনিওঁ ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৫] ৯০ দিন
 সাঁ পিয়ের ও মিক‌লোঁ ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৬] ৯০ দিন
 ওয়ালিস এবং ফুটুনা ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৬] ৯০ দিন
নেদারল্যান্ডস
 আরুবা ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৭] ৩০ দিন
নেদারল্যান্ডস Caribbean Netherlands ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৮] ৩ মাস; includes Bonaire, Sint Eustatius and Saba
 কুরাকাও দ্বীপ ভিসা আবশ্যক নয়[২৩৯] ৩ মাস
 সিন্ট মারর্টেন ভিসা আবশ্যক নয়[২৪০] ৩ মাস
নিউজিল্যান্ড
 কুক দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক নয় ৩১ দিন[২৪১]
 নিউই ভিসা আবশ্যক নয় ৩০ দিন[২৪২]
 টোকেলাউ ভিসা আবশ্যক[২৪৩]
যুক্তরাজ্য
 এ্যাঙ্গুইলা ভিসা আবশ্যক নয়[২৪৪]
 বারমুডা ভিসা আবশ্যক নয়[২৪৫]
 ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক[২৪৬]
 কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক নয়[২৪৭]
 ফক্‌ল্যান্ড দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক নয়[২৪৮]
 জিব্রাল্টার ভিসা আবশ্যক নয়[২৪৯]
 গার্নসি ভিসা আবশ্যক নয়[২৫০]
 আইল অফ ম্যান ভিসা আবশ্যক নয়[২৫১]
 জার্সি ভিসা আবশ্যক নয়[২৫২]
 মন্টসেরাট ভিসা আবশ্যক নয়[২৫৩]
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
 আমেরিকান সামোয়া ভিসা আবশ্যক[২৫৪]
 গুয়াম ভিসা আবশ্যক[২৫৫]
 উত্তর মারিয়ানা দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক[২৫৬]
 মার্কিন ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ ভিসা আবশ্যক[২৫৭]
 পুয়ের্তো রিকো ভিসা আবশ্যক[২৫৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:সূত্র তালিকা

টেমপ্লেট:দেশ অনুযায়ী ভিসা নীতিমালা টেমপ্লেট:ভিসা আবশ্যক