ইরা ইস্ট্রেফি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইরা ইস্ট্রেফি
Era Istrefi 2018.jpg
জন্ম (1994-07-04) ৪ জুলাই ১৯৯৪ (বয়স ২৬)
প্রিস্টিনা, এফআর যুগোস্লাভিয়া
জাতীয়তাআলবেনীয়
নাগরিকত্ব
  • কসোভো
  • আলবেনিয়া
পেশা
  • গায়িকা
  • সঙ্গীতরচিয়তা
কর্মজীবন২০১২–বর্তমান
পিতা-মাতা
  • নাজির ইস্ট্রেফি (পিতা)
  • সুজানা তাহিরসাইলাজ (মাতা)
আত্মীয়
সঙ্গীত কর্মজীবন
ধরন
  • ডান্সহল
  • ডাবস্টেপ
  • ইডিএম
  • পপ
  • আরঅ্যান্ডবি
  • ট্র্যাপ
বাদ্যযন্ত্রসমূহকন্ঠ
লেবেল
  • নেসের
  • সনি মিউজিক
  • আল্ট্রা মিউজিক
  • আরসিএ রেকর্ডস

ইরা ইস্ট্রেফি (/ˈɛrɑː ɪˈstrɛfi/; আলবেনীয় উচ্চারণ: [ˈɛɾa isˈtɾɛfi]; জন্ম ৪ জুলাই ১৯৯৪) কসোভোর একজন গায়িকা এবং সঙ্গীতীচয়িতা।[১] তার জন্ম প্রিস্টিনায় এবং সেখানেই বেড়ে ওঠেন। তিনি তার একক গান "বনবন"-এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক পরিচিতি অর্জন করেন। গানটিকে রিহানা এবং সিয়ার সঙ্গীত বিষয়ক কাজের সাথে তুলনা করা হয়। গানটির সফলতার সময় তিনি সনি মিউজক এবং এর এক মাস পর আল্ট্রা মিউজিকের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেন।[২][৩]

ইস্ট্রাফির অন্যান্যগুলোর পাশাপাশি "সুমে পিস", "রেডরাম", " নুক ই ডি" এবং "লিভ ইট আপ" আলবেনীয়র পাশাপাশি ইংরেজিতেও গাওয়া। তিনি ২০১৮ সালে মস্কোয় ফুটবল বিশ্বকাপের সমাপনী অনুষ্ঠানে নিকি জ্যাম এবং উইল স্মিথের সাথে "লিভ ইট আপ" গানটি পরিবেশনা করেন।[৪]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

মিউজিক ভিডিও বিতর্ক[সম্পাদনা]

তার তৃতীয় একক "ই দিহান" মুক্তি পাওয়ার পর ইস্ট্রেফি সার্বিয়ান অর্থোডক্স গীর্জা কর্তৃক সমালোচিত হন। ভিডিওটিতে তাকে অর্ধনগ্ন অবস্থায় প্রিস্টিনার ক্রাইস্ট দ্য সেভিয়র গীর্জার আশেপাশে নাচতে দেখা যায়। সার্বিয়ান অর্থোডক্স গীর্জা তার এধরনের কর্মকান্ডকে "শয়তানের কাজ" ও "ধর্ম অবমাননাকর" বলে উল্লেখ করে৷ [৫] অ্যাস্ট্রিট ইসমাইলি এই বিতর্কের প্রতিক্রিয়া হিসেবে জানান যে ভিডিওটিতে সার্বিয়ানদের খাটো করার কোন উদ্দেশ্য ছিলনা এবং গীর্জার প্রবেশমুখে দৃশ্যধারণের জন্য তার কাছে অনুমতি ছিল।[৬]

বর্ণবাদ বিতর্ক[সম্পাদনা]

তার সবচেয়ে সফল গান বনবন নেসের কর্তৃক মুক্তি পায়। গানটির কথায় বর্ণবিদ্বেষী নিগা শব্দটি ছিল। এর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির সাথেসাথে ইংরেজিভাষী শ্রোতারা গানে শব্দটির ব্যবহার লক্ষ্য করেন। ইস্ট্রেফি একজন শ্বেতাঙ্গ দক্ষীণ ইউরোপীয় হওয়ায় এটি ক্ষোভের জন্ম দেয়।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] আল্ট্রা মিউজিকের ইউটিউব চ্যানেলে গানটি পুনরায় আপলোডের পর শব্দটি বাদ হয়।

ইস্ট্রেফি পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গানে এই শব্দটি ব্যবহারের জন্য ক্ষমা চান:[৭][৮][৯]

My apologies for the ignorance in using the N word. In Kosova there r no black people so we call each other that way in terms of “bro”. Thats why we should always think B.I.G
#noracism #weareone 🌏

Love

Era 💌

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Era Istrefi—Biografia"teksteshqip.com (Albanian ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  2. "Era Istrefi signed a contract with Ultra and Sony Music"mfa-ks.net (English ভাষায়)। Ministria e Punëve të Jashtme। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  3. "Facebook and Sony Music sign deal, Era Istrefi among others to benefit from it"digitalspoiler.com (English ভাষায়)। ৮ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  4. "Nicky Jam, Will Smith will sing this year's official FIFA 2018 World Cup song"nbcnews.com (English ভাষায়)। NBC News। ২৩ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  5. "Serbian Church Slams 'Blasphemous' Cathedral Pop Video"Balkan Insight। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৫ 
  6. "qartesim ne lidhje me shfrytezimin e objektit te pa perfunduar te kishes ortodokse"Lajmi। ২০১৪-০৭-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৫ 
  7. "@eraistrefi on Instagram"Instagram 
  8. "@strefie on Twitter"Twitter 
  9. "@strefie on Twitter"Twitter