ইরানে হিন্দুধর্ম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইরানের বন্দর আব্বাসে অবস্থিত হিন্দু মন্দির।

ঊনবিংশ শতাব্দীতে ইরানের বন্দর আব্বাসে একটি হিন্দু মন্দিরের দেখা পাওয়া গিয়েছিল এবং ঐ শতাব্দীতেই জাহেদান শহরে ভারতীয় বণিকগণ একটি হিন্দু মন্দির স্থাপন করেন।[১][২] ইরানে হিন্দুরা দেশটির মোট জনসংখ্যার ০.১% এরও কম।[৩]

১৯৭৬ সালে অভয়চরণারবিন্দ ভক্তিবেদান্ত স্বামী প্রভুপাদ দেশটির রাজধানী তেহরান সফর করেন। ১৯৭৭ সাল থেকে দেশটিতে ইসকন একটি নিরামিষ রেস্তোরাঁ চালায়।[৪]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The Persian Gulf in History"। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৫ 
  2. R. Sidda Goud, Manisha Mookherjee। India and Iran in Contemporary RelationsAllied Publishers। পৃষ্ঠা 46। 
  3. "Table: Religious Composition by Country, in Numbers (2010)"Pew Research Center's Religion & Public Life Project। ১৮ ডিসেম্বর ২০১২। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  4. Ruth A. Tucker (২০০৪)। Another Gospel: Cults, Alternative Religions, and the New Age Movement। পৃষ্ঠা 282 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ইরানি গৌড়ীয় বৈষ্ণবদেরকে শরণার্থী পরিসংখ্যান দেওয়া হল