ইন্দোনেশিয়ার জনমিতি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(ইন্দোনেশিয়ার জনপরিসংখ্যান থেকে পুনর্নির্দেশিত)
Jump to navigation Jump to search
শিক্ষা সফরে জাদুঘর পরিদর্শনররত একদল ইন্দোনেশিয় শিক্ষার্থী।

২০১০ সালের জাতীয় আদমশুমারি প্রতিবেদন অনুযায়ী ইন্দোনেশিয়ার জনসংখ্যা ২৩৭.৬৪ মিলিয়ন,[১] এবং এটি ২০১৫ সালে ২৫৫.৪ মিলিয়ন জনসংখ্যায় পৌছাতে পারে।[২] জাভা দ্বীপে মোট জনসংখ্যার ৫৮% লোকের বাস,[১] এটি বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দ্বীপ[৩]

১৯৬৭ সাল থেকে গৃহীত কার্যকর পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রমের প্রেক্ষিতে[৪] ২০১০ সালে শেষ হওয়া দশকের শেষের দিকে এসে ইন্দোনেশিয়ার জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ১.৪৯ শতাংশ। এই হারে জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেলে ইন্দোনেশিয়ার জনসংখ্যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান জনসংখ্যাকে অতিক্রম করতে পারবে ২০৪৩ সালে, যদি এই সময়ের মধ্যে যুক্তরাস্ট্রের জনসংখ্যা বৃদ্ধি না-পায় এবং এর ফলেশ্রুতিতে চীন ও ভারতের পরে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম জনসংখ্যার বহুল দেশ হয়ে উঠবে।[৫] কারো কারো মতে, ইন্দোনেশিয়ার বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম জনবহুল দেশ হয়ে উঠা রুখতে পরিবার পরিকল্পনা সম্পর্কিত নীতিমালাটি ১৯৬৭ সালের কর্মসূচীর উপর ভিত্তি করে পুনরায় চালু হওয়া উচিত; তবে এই লক্ষ্যে অগ্রসর হওয়া ভীষনভাবে বাধাগ্রস্থ হবে ধর্মীয় মতাদর্শগত মতামতের কারনে, যেখানে পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি অনুসরণ করাকে স্রস্টার প্রতি কৃতজ্ঞ না-হওয়ার সমতুল্য হিসাবে গণ্য করা হয়।[৬]

বর্তমানে ইন্দোনেশিয়ার জনকাঠামোতে তরুণ বয়সী জনসংখ্যার আধিক্য পরিলক্ষিত হচ্ছে। এখানকার বর্তমান মধ্যবয়সের বিন্দু হচ্ছে ২৮.২ বছর; অর্থ্যাৎ, দেশটির অর্ধেক জনসংখ্যার বয়স এরচেয়ে কম এবং অবশিষ্ট অর্ধেক জনগোষ্ঠীর বয়স এর অধিক।[৭]

নৃগোষ্ঠীগত দিক থেকে এই দেশটিতে নৃতাত্ত্বিক, ভাষাগত, ধর্মীয় প্রভৃতি বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে অসংখ্য জনগোষ্ঠী রয়েছে ছড়িয়ে ছিটিয়ে।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

বছর অনুসারে লোকসংখ্যা[সম্পাদনা]

বছর অনুসারে ইন্দোনেশিয়ার লোকসংখ্যা
বছর জন.  ব.প্র. ±%  
১৯৫৫ ৭,৭৪,৭৩,২৬৮—    
১৯৭১ ১১,৯২,০৮,২২৯+২.৭৩%
১৯৮০ ১৪,৭৪,৯০,২৯৮+২.৩৯%
১৯৯০ ১৭,৯৩,৭৮,৯৪৬+১.৯৮%
২০০০ ২০,৬২,৬৪,৫৯৫+১.৪১%
২০১০ ২৩,৭৬,৪১,৩২৬+১.৪৩%
উৎস: ইন্দোনেশিয়ার পরিসংখ্যান,[৮] Wertheim (1959) [৯]

প্রদেশ অনুসারে লোকসংখ্যা[সম্পাদনা]

বয়স কাঠামো[সম্পাদনা]

ইন্দোনেশিয়ার বয়স কাঠামো (২০১০)[৭]

  শিশু: ০-১৪ বছর বয়সী (২৭.৩%)
  কর্মক্ষম: ১৫-৬৪ বছর বয়সী (৬৬.৫%)
  অবসর প্রাপ্ত: ৬৫ বছর এবং উর্ধ (৬.২%)

ইন্দোনেশিয়ার জনমিতিক গঠনে অপেক্ষাকৃত তরুণ জনসংখ্যার আধিক্য পরিলক্ষিত হয়। ২০১১ সালের অনুমানিক হিসাব অনুযায়ী, ইন্দোনেশিয়ার মধ্য বয়সী মান ২৮.২ বছর।[৭]

নৃগোষ্ঠী[সম্পাদনা]

জাতিগত গোষ্ঠীগুলি শতকরা
জাভানি
  
৪২.৬৫%
সুন্দ্রানি
  
১৫.৪১%
মালয়ি
  
৩.৪৫%
মাদুরি
  
৩.৩৭%
বাটাাক
  
৩.০২%
Minangkabau
  
২.৭২%
Betawi
  
২.৫১%
বুগিিজ
  
২.৪৯%
Bantenese
  
২.০৫%
বানজার
  
১.৭৪%
আচেহনিজ
  
১.৬৬%
বালি
  
১.৫১%
তিয়োনগৌয়া
  
১.২০%
Makassarese
  
০.৯৯%

ইন্দোনেশিয়ার ৩০০-টিরও বেশি নৃগোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে। এর মধ্যে ৯৫%-ই ইন্দোনেশিয়ার স্থানীয় বংশোদ্ভূত অধিবাসী। জাভানি জনগোষ্ঠী রয়েছে ১০০ মিলিয়ন (৪২%) - এরাই বৃহত্তম জনগোষ্ঠী এই দেশটিতে; তারপরে রয়েছি সুন্দানি জনগোষ্ঠী, যাদের সংখ্যা ৪০ মিলিয়ন (১৫%)।

ধর্ম[সম্পাদনা]

ইন্দোনেশিয়া হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল মুসলমান-সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ; ২০১০ সালের আদমশুমারি অনুসারে ইন্দোনেশিয়ার জনসংখ্যার প্রায় ৮৭.১৮% মুসলমান।[১০] জনসংখ্যার ৯.৮৭% খ্রিষ্টান ধর্মের অনুসারী (যার ৭০%-এর বেশি প্রোটেস্ট্যান্ট), ১.৬৯% হিন্দু, ০.৭২% বৌদ্ধ এবং অন্যান্য ধর্মের অনুসারী ০.৫৬%। বেশিরভাগ ইন্দোনেশিয়ান হিন্দুই বালিনিয়[১১] এবং আধুনিক ইন্দোনেশিয়ার অধিকাংশ বৌদ্ধরা তিয়ানগৌয়া নৃগোষ্ঠীর।[১২]

ভাষা[সম্পাদনা]

ইন্দোনেশিয়ার রাস্ট্রীয় ভাষা হলো ইন্দোনেশীয় ভাষা। এছাড়াও এখানে আরো অসংখ্য ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীক ভাষা ব্যবহৃত হয়। হিসাব অনুসারে এখানে বর্তমানে ৭৩৭টি ভাষা ব্যবহৃত হয়; যার মধ্যে প্রধাাা হচ্ছে জাভানীয় ভাষা[১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Population of Indonesia by Province 1971, 1980, 1990, 1995, 2000 and 2010" (ইংরেজি ভাষায়)। Central Bureau of Statistics। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১৫ 
  2. "Population Projection by Province, 2010-2035" (ইংরেজি ভাষায়)। Central Bureau of Statistics। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১৫ 
  3. Calder, Joshua (৩ মে ২০০৬)। "Most Populous Islands" (ইংরেজি ভাষায়)। World Island Information। সংগ্রহের তারিখ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০০৬ 
  4. Witton, Patrick (২০০৩)। Indonesia (ইংরেজি ভাষায়)। Melbourne: Lonely Planet। পৃষ্ঠা 47। আইএসবিএন 1-74059-154-2 
  5. Shamim Adam; Berni Moestafa; Novrida Manurung (২৮ জানুয়ারি ২০১৪)। "Indonesia Population Approaching U.S. Revives Birth Control"Bloomberg.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১৫ 
  6. "Indonesia Facing Populace Larger Than US Revives Birth Control" (ইংরেজি ভাষায়)। ২৮ জানুয়ারি ২০১৪। 
  7. "Population of Indonesia"Indonesia Investment (ইংরেজি ভাষায়)। 
  8. "Population of Indonesia by Province 1971, 1980, 1990, 1995, 2000 and 2010" (ইংরেজি ভাষায়)। Central Bureau of Statistics। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০১৫ 
  9. Wertheim, W. F. (১৯৫৯)। Indonesian Society in Transition (ইংরেজি ভাষায়) (Second (revised) সংস্করণ)। 's-Gravenhage: Uitgeverij W. van Hoeve। পৃষ্ঠা 370। 
  10. Penduduk Menurut Wilayah dan Agama yang Dianut
  11. Oey, Eric (১৯৯৭)। "Bali" (ইংরেজি ভাষায়) (3rd সংস্করণ)। Singapore: Periplus Editions। আইএসবিএন 962-593-028-0 
  12. "Indonesia - Buddhism" (ইংরেজি ভাষায়)। U.S. Library of Congress। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০০৬ 
  13. ethnologue.com

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]