ইথিওপিয়া-তুরস্ক সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইথিওপিয়া-তুরস্ক সম্পর্ক
মানচিত্র Ethiopia এবং Turkey অবস্থান নির্দেশ করছে

ইথিওপিয়া

তুরস্ক

ইথিওপিয়া-তুরস্ক সম্পর্ক, ইথিওপিয়া এবং তুরস্ক এর মাঝে বিদ্যমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে নির্দেশ করে। এছাড়াও এই দুই দেশের মধ্যকার ঐতিহাসিক সম্পর্কের বিষয়টিকেও নির্দেশ করে। অটোম্যান সাম্রাজ্যের সময় থেকে তুরস্ক এবং ইথিওপিয়ার মধ্যে কূটনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্ক বিদ্যমান ছিল। ১৯১০ সালে ইথিওপিয়ার হারার শহরে একটি অনারারি কনসাল স্থাপনের মাধ্যমে এই দুই দেশ আনুষ্ঠানিকভাবে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করে। ১৯১০ থেকে ১৯১২ সাল পর্যন্ত ইথিওপিয়ার হারারে অটোম্যান সাম্রাজ্যের একটি অনারারি কনসাল ছিল। ১৯১২ সালে হারার এর এই অনারারি কনসাল বন্ধ করে দেয়া হয়। তবে ১৯১২ সালেই আবার সেটিকে আদ্দিস আবাবাতে পুনঃস্থাপন করা হয়। পরবর্তীতে ১৯২৫ সালে তুরস্ক হারার শহরে আবার একটি কনস্যুলেট চালু করে, যার প্রধান ছিলেন একজন চার্জ ডি অ্যাফেয়ার্স[১] পরবর্তীতে ইথিওপিয়ায় অবস্থিত অনারারি কনসালকে, দূতাবাস হিসেবে উন্নীত করা হয়। ইথিওপিয়ায় যে সকল দেশ দূতাবাস খুলেছিল, তুরস্ক ছিল তাদের মধ্যে ষষ্ঠ।

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারাতে ইথিওপিয়ার একটি স্থায়ী দূতাবাস রয়েছে। ১৯৫০ এর দশকের একদম শেষদিকে এসে, ১৯৫৯ সালে ইথিওপিয়া, তুরস্কে তাদের দূতাবাস স্থাপন করে। কিন্তু ১৯৭৬ সালে, ইথিওপিয়া, তুরস্কে অবস্থিত তাদের এই দূতাবাস বন্ধ করে দেয়। দূতাবাস বন্ধ করার কারণ হিসেবে ইথিওপিয়া অর্থনৈতিক সীমাবদ্ধতাকে উল্লেখ করে। তবে পরবর্তীতে ২০০৬ সালে ইথিওপিয়া, পুনরায় তুরস্কে তাদের দূতাবাস চালু করে।

বর্তমানে তুরস্ক এবং ইথিওপিয়ার মধ্যকার সম্পর্ককে চমৎকার, আন্তরিক এবং বন্ধুত্বপূর্ণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়। যদিও এই দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্কের প্রধান জায়গাটি হল রাজনীতি এবং অর্থনীতি।[২]

তুরস্ক বা ইথিওপিয়ায় এখন পর্যন্ত কোন উচ্চ পর্যায়ের সফর হয় নি। ইথিওপিয়া সরকার এর বেশ কয়েকজন মন্ত্রী বিভিন্ন সময়ে রাষ্ট্রীয় সফরে তুরস্কে গিয়েছেন। অপরদিকে তুরস্কের মন্ত্রী পর্যায়ের কেউ কখনও ইথিওপিয়া সফরে যাননি। তবে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বেশ কয়েকজন প্রতিমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় সফরে ইথিওপিয়াতে গিয়েছেন। এছাড়াও তুরস্কের নিরাপত্তা বিভাগের মহাপরিচালক ড. তুরান গেঙ্ক একবার ইথিওপিয়া সফরে গিয়েছেন।[১]

২০০৮ সালের ডিসেম্বর মাসে, তুরস্ক সরকার, ইথিওপিয়ায় একটি বাণিজ্য বিষয়ক প্রতিনিধি দল পাঠায়। দলটি ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী, ইথিওপিয়ার বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী এবং ওরোমিয়া অঞ্চলের প্রেসিদেন্ত আবাদুলা গামেদার সাথে বৈঠক করেন। বৈঠকে উভয়পক্ষই নিজেদের মধ্যকার সম্পর্ক উন্নয়ন এবং সমন্বয় বৃদ্ধির ব্যাপারে গুরত্বারোপ করেন। এর পাশাপাশি এই দলটি ইথিওপিয়াতে অবস্থিত তুরস্কের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের মালিকদের সাথেও বৈঠক করেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bilateral relations" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৫ মার্চ ২০১২ তারিখে, ইথিওপিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় (সংগৃহীত ২৮ জুলাই ২০০৯)
  2. Ethiopian Ambassador to Turkey: Ethiopia does not need political reform ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১১ তারিখে, Walta Information Center
  3. "A Week in the Horn: 12 December 2008" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৬ মার্চ ২০১২ তারিখে (সংগৃহীত ২৮ জানুয়ারি ২০০৯)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]