ইট'স অ্যালাইভ! (ডেক্সটার)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(ইট'স অ্যালাইভ! (ডেক্সটার) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
"সীয়িং রেড"
ডেক্সটার (টিভি সিরিজ) পর্ব
পর্ব নংমৌসুম ২
পর্ব ১
পরিচালকটনি গোল্ডউইন
রচয়িতাড্যানিয়েল কেরন
উৎপাদন কোড২০১[১]
প্রথম মুক্তি৩০ শে সেপ্টেম্বর,২০০৭
অতিথি অভিনেতা
  • জুডিথ স্কট (এজমে প্যাসকেল)
  • মার্ক পেলেগ্রেনো (পল বেনেট)
  • গ্লেন প্লামার (জিমি সেনসিও)
  • ডেভন গ্রেই (টিন এজড ডেক্সটার মর্গান)
  • ম্যাক্স গাই ( বানানা বোট ট্যুর গাইড)
  • প্রিস্টন বেইলি (কডি বেনেট)
  • ক্রিস্টিনা রবিনসন (এস্টর বেনেট)
  • ম্যাট উইলিং (লিটল চিনো)
  • অ্যানা ম্যাগানিনি (ইভা)
  • ক্লড শিরস (বিরক্তিকর মানুষ)
  • ক্রেগ প্যাটন ( কাস্টম অফিসার)
  • রন রজ (ব্লু-কলারের লোক)
  • জিলিয়ন ব্রুনো (মেরিসা)
পর্ব কালপঞ্জি
← পূর্ববর্তী
"বর্ন ফ্রি (ডেক্সটার)"
পরবর্তী →
"ওয়েটিং ট্যু এক্সহেল (ডেক্সটার)"

'"ইট'স অ্যালাইভ"' মার্কিন টেলিভিশন নাটক সিরিজ 'ডেক্সটার'এর দ্বিতীয় মৌসুমের প্রথম এবং সম্পূর্ণ সিরিজের ১৩ তম পর্ব। ২০০৭ সালের ৩০শে সেপ্টেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শোটাইমে এটি সর্বপ্রথম সম্প্রচারিত হয়। [১] পর্বটি লিখেছেন ড্যানিয়েল কেরন এবং পরিচালনা করেছেন টনি গোল্ডউইন। প্রথম মৌসুমের শেষ পর্ব প্রচারের পাঁচ সপ্তাহ পর এই পর্বটি প্রচার হয়। সার্জেন্ট জেমস ডক্স (এরিক কিং) ডেক্সটার মর্গান (মাইকেল সি. হল) এর পিছু নেয়া শুরু করে এবং ডেক্সটার নিজের প্রথম সুযোগে খুন করতে অপারগ হয়। অন্যদিকে ডেক্সটারের বোন, ডেবরা মর্গান (জেনিফার কারপেন্টার) তার প্রাক্তন বাগদত্তার হাতে খুন হওয়া থেকে বেঁচে ফিরে পুনরায় অফিসে যোগ দেয়। ডেক্সটারের গার্লফ্রেন্ড রিটা বেনেট (জুলি বেঞ্জ) প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও বিশ্বাস করে না যে ডেক্সটারই রিটার প্রাক্তন স্বামী, পল (মার্ক পেলেগ্রিনো)কে হাজতে পাঠিয়েছে। 

গল্প[সম্পাদনা]

ডেক্সটার নিজের ভাই ব্রায়ান, আইস ট্রাক খুনীকে হত্যার পাঁচ সপ্তাহ পরে সার্জেন্ট সন্দেহের বশবর্তী হয়ে ডক্স ডেক্সটারকে অনুসরণ করতে থাকে। এই কারণে ডেক্সটার নিজের খুন করার আকাঙ্ক্ষা সম্পন্ন করতে পারে না। একজন স্বাভাবিক মানুষের মত আচরন করতে ডেক্সটার তার সহকর্মীদের সাথে প্রতি রাতে বোলিং করতে যায়। সার্জেন্ট ডক্স অবশেষে হাল ছেড়ে দিলে ডেক্সটার সে রাতে খেলতে না গিয়ে একজন অন্ধ হাইতিয়ান ভুডু ধর্মপ্রচারক, জিমি (গ্লেন প্লামার) এর পিছু নেয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত লোকটিকে খুন করতে ব্যর্থ হয়ে ছেড়ে দেয়। একটি হত্যাকান্ড সংঘটিত হবার স্থানে নিহতর মা (অ্যানা মাগানিনি) ডেক্সটারকে অণুরোধ করে তার ছেলের খুনী গং লর্ড "লিটল চিনো" (ম্যাথ্যু উইলিং)কে করার। মহিলার ছোট মেয়ে, মেরিসা (জিলিয়ান ব্রুনো) কে দেখে ডেক্সটারের ছোটবেলায় নিজের মাকে চোখের সামনে হত্যা হবার কথা মনে পড়ে যায়। ডেক্সটার সার্জেন্ট ডক্সকে বোলিং করতে যাচ্ছে বলে ধোঁকা দিয়ে চিনোকে জিমির খুন করার কক্ষে নিয়ে আসে। ডেক্সটার যখন খুনের প্রস্তুতি নিচ্ছে তখন জিমির জ্ঞান ফিরে আসে এবং কোনভাবে ডাক্ট টেপ থেকে মুক্ত হয়ে পালিয়ে আসে। ডেবরা তার প্রাক্তন বাগদত্তা, ব্রায়ান যে কিনা ডেবরাকে খুনের চেষ্টা করেছিল, তার স্মৃতির কারণে ঘুমুতে পারছিল না। সে ডেক্সটারের বাসা থেকে অফিসে চলে আসে এবং সার্জেন্ট মারিয়া লাগুয়ের্তা (লরেন ভেলেজ) ডেবরার মানসিক স্থিতিশীলতার ব্যাপারে জানতে চায় কিন্তু ডেবরা একটি স্বাভাবিক জীবনযাপনে ফিরে আসতে মনোস্থির করে এবং রিটার সাথে একটি বারে আসে। বারে একজন ডেবরাকে আইস ট্রাক খুনীর বাগদত্তা হিসেবে চিনতে পায় এবং তার কাঁধ স্পর্শ করা মাত্র ডেবরা লোকটির উদ্দেশ্য খারাপ ভেবে নাকে ঘুষি বসিয়ে দেয়।

রিটা তার সন্তান এস্টর বেনেট (ক্রিস্টিনা রবিনসন), কডি বেনেট (প্রেস্টন বাইলি) কে পলের (মার্ক পেলেগ্রিনো) সাথে দেখা করাতে জেলখানায় নিয়ে আসে। পল দাবী করে ডেক্সটার তাকে ফাঁদে ফেলে পুলিশে দিয়েছে এবং রিটার বাসায় পলের একটি জুতা আছে। রিটা যদি সেই জুতা খুঁজে বের করে তবে পল যে নির্দোষ তা প্রমাণ হয়ে যাবে। রিটা বাসায় পলের জুতা এক মাস আগেই খুঁজে পেলেও অস্বীকার করে। পরে অবশ্য সে জুতা পাওয়া কথা স্বীকার করে কিন্তু ঘটনাটিতে ডেক্সটারের জড়িত থাকার কথা মানতে চায় না। সেই রাতে রিটা পলের জেলখানা থেকে একটি ফোনকল পায় এবং জানতে পারে হাজতবাসীদের মধ্যে কলহের জের ধরে তার মৃত্য ঘটেছে।

সমগ্র পর্ব জুড়ে ফ্ল্যাশব্যাকে কিশোর ডেক্সটার (ডেভন গ্রে) কে দেখা যায় নিজের হৃৎস্পন্দন অনুভব করতে। পর্বটির শেষে দেখা যায়, ডেবরা ডেক্সটারের বাসায় টেলিভিশন চালু করে ডেক্সটারকে একটি সংবাদ দেখাতে ডাকে। একটি স্কুবা ডাইভারের দল বিস্কেইন বে থেকে প্রায় ৩০টি ময়লার ব্যাগ ভর্তি বিকৃত লাশের অংশ উদ্ধার করেছে। এগুলো সব ছিল ডেক্সটারেরই হাতে খুন হওয়া মানুষের দেহের অংশবিশেষ তাই সংবাদটি দেখে ডেক্সটারের হৃৎস্পন্দন বেড়ে যায়।

নির্মাণ[সম্পাদনা]

ডেক্সটারএর প্রথম মৌসুম জেফ লিন্ডসের ঊপন্যাস "ডার্কলি ড্রিমিং ডেক্সটার" অনুসরণে নির্মিত হয়েছে। এটিই এই সিরিজের প্রথম কোন উপন্যাস যেটির অনুসরণে টেলিভিশন শো নির্মিত হয়েছে। যদিও ধারাবাহিকের প্রয়োজনে বেশ কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছিল। [২] দ্বিতীয় মৌসুম লিখার সময় ড্যানিয়েল কেরন জানান যে লেখকেরা দ্বিতীয় বই "আশাব্যাঞ্জক মনে করছেন না" তাই তারা লিন্ডসের ডেক্সটার সিরিজের দ্বিতীয় বই "ডিয়ারলি ডেভোটেড ডেক্সটার" থেকে সরে আসছেন। [৩] বরং, "তারা বড় ধরনের একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন "কেমন হয় যদি ডেক্সটারের হত্যা করা লাশগুলো আবিষ্কার হয়?" এবং সেই অনুসারেই সমস্ত মৌসুমের তালিকা করেছেন।" [৪] সহকারী প্রযোজক ক্লাইড ফিলিপ্সের মতে, তারা প্রথম মৌসুমের শেষ পর্বের পাঁচ সপ্তাহ পর কাহিনী শুরু করার সিদ্ধান্ত নেন। "যেন সবগুলো চরিত্রের মানসিক অবস্থা সত্যিকারের সময়ের সাথে মিলে এবং চরিত্র যা হয়েছে তার সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারে।" কেরোন আরো বলেন, "ডেক্সটারের ভালো দিক হল এতে চরিত্রগুলোর আবেগীয় অণুরণ তুলনামূলকভাবে কম।" [৪] দ্বিতীয় মৌসুমে ডেক্সটারের অবস্থা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে মাইকেল সি. হল জানান, "আমি মনে করি তার পৃথিবী সত্যিকার অর্থেই নড়ে গিয়েছিল। সে নিজের ভাইকে খুন করেছে।ডেক্সটারের ভাই সত্যিকারের ডেক্সটারকে চিনতো এবং জেনেশুনেই সে ডেক্সটারকে মেনে নিয়েছিল। এরকম একজনকে খুন করা সে কখনো কল্পনাও করেনি কিন্তু তার আর কোন উপায়ও ছিল না। আর এই ব্যাপারটা তাকে তখনও ভোগাচ্ছে।"[৪]

২০০৭ সালের ২১শে মে চিত্রধারন শুরু মাধ্যমে [৩] "ইট'স অ্যালাইভ!" এর অবস্থান স্থায়োভাবে মায়ামি থেকে লস এঞ্জেলেস এ পরিবর্তন করা হয়। প্রথম মৌসুমের পাঁচটি পর্ব মায়ামিতে চিত্রধারন করা হয় যা কেরনের মতে "প্রয়োজনের তুলনায় অনেক ঝামেলার ছিল"। [৫] শোটাইমের অনুষ্ঠান নির্বাহী রবার্ট গ্রীনবেল্ট জানান,"সম্পূর্ণ শ্যুটিং মায়ামিতে সম্পন্ন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছিল। [৬] কেননা "ডেক্সটার"এর নির্মাণ সময় এবং ফ্লোরিডার হারিকেন মৌসুম একই সময়ে পড়েছে, যার কারণে "ডেক্সটার" নির্মাণ ব্যয়বহুল হয়ে পড়ে।"[৭] একটি ছোট নির্মাণ দল এবং হল মায়ামিতে গিয়ে কিছু দৃশ্যের চিত্রধারণের কাজ করে। প্রযোজক সারা কলেটনের মতে, "শুধু ডেক্সটারের গাড়ি থেকে বের হওয়া আর হাঁটা ছাড়াও আরো বেশ কিছু দৃশ্য ছিল যেগুলো আমরা জানতাম আমরা আমাদের প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারি।" যেগুলো পরে লেখকেরা বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহার করেছেন। [৭] এই পর্বের বিস্কেইন বে এর দৃশ্যটির জন্য লস এঞ্জেলসে একটি সেট ব্যবহার করা হয়েছিল। [৬] বেশিরভাগ চিত্রধারণ করা হয়েছিল সান পেদ্রো, লস এঞ্জেলস, ক্যালিফোর্নিয়া এবং ক্যালিফোর্নিয়ার লং বীচ এলাকাতে। [৫]

বিতর্ক ও সমালোচনা[সম্পাদনা]

"ইট'স অ্যালাইভ!" মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রচারের প্রথম দিনেই প্রায় ১.০৩ মিলিয়ন দর্শক পায়।[৮][৯] এর মাঝে আরো ৪,১৪,০০০ জন দর্শক গভীর রাতে পর্বটির পুনঃপ্রচার দেখে। [৮] ডেক্সটার ধারাবাহিকের এই পর্বটি পূর্বের "পাইলট" পর্বটির চেয়ে শতকরা ৬৭ ভাগ বেশি দর্শকগ্রহণযোগ্যতা পায়, যা সচরাচর মৌসুমের প্রথম পর্বগুলোর তুলনায় ৪০% বেশি। [৮] পর্বটি প্রথম সম্প্রচারেই প্রায় ৪,৭১,০০০ অস্ট্রেলীয় দর্শক পর্বটি দেখে। [১০] যুক্তরাজ্য থেকে প্রায় ৩৪৮০০ জন দর্শক পর্বটি উপভোগ করে জানা যায়, যা পূর্বের তলনায় সংখ্যায় প্রায় ৫০ হাজার বেশি।[১১]

শব্দ গ্রাহক প্যাট্রিক হানসন এবং পুনঃ শব্দ সংগ্রাহক এলমো পোন্সডোমেনেখ ও জো আর্ল "আউটস্ট্যান্ডিং সাউন্ড মিক্সিং" এর জন্য "প্রাইমটাইম অ্যামি অ্যাওয়ার্ডে একঘণ্টার কমেডি অথবা নাটক ধারাবাহিকে শব্দ সম্পাদনা বিভাগে পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পদকটি টেলিভশন ধারাবাহিক "মীট কেভিন জনসন" এর "লস্ট" পর্ব জিতে। .[১২][১৩] স্টুয়ার্ট শিল, ইট'স অ্যালাইভ! এর সম্পাদক এডি অ্যাওয়ার্ড এ " নন-কমার্শিয়াল টেলিভিশনে প্রচারিত এক ঘণ্টার সেরা সম্পাদনা" বিভাগে মনোনয়ন পান। [১৪] তবে সিডনি ভলিন্সকি "দ্যা সোপরানোস" এর জন্য পুরষ্কারটি জিতেন। [১৫]

ভ্যারিটি ম্যাগাজিনের জন্য এক লেখনীতে ব্রায়ান লাঊরী দ্বিতীয় মৌসুমের সূচনাকে "বিজয়ী" এবং হলের পারফর্মেন্সকে "অর্জনের দিকে ধাবিত" বলে অভিহিত করেন। [১৬] জিএন এর এরিক গোল্ডম্যান ভেবেছিলেন এই পর্বটির সবচেয়ে বড় জটিলতা হল প্রথম মৌসুমের অসাধারনত্বকে ধরে রাখা। তবে ডেক্সটারকে ডক্সের অনুসরণ করা এবং এজমী প্যাসকেলের ব্যক্তিগত আলাপ লাগুয়ের্তার শুনে ফেলা ব্যাপারটি "অদ্ভুত" লাগলেও ডেক্সটারের ফ্ল্যাশব্যাক এবং ডেক্সটার ও ডেবরার গল্প- সব মিলিয়ে একটি ভালো রকমের শুরু হয়েছে এই পর্বটির মধ্য দিয়ে। [১] টিভি স্কোয়াডের কীথ ম্যাকডাফে যুবক ডেক্সটারের ফ্ল্যাশব্যাক এবং হ্যারি মর্গানের বেঁচে থাকার বিষয়টি অত্যন্ত পছন্দ করেন। পর্বটির শেষ দৃশ্যের ব্যাপারে তিনি লিখেন, "ডেক্সটারের সাথে আমাদেরও বুকের ভেতরে ধুকপুক শুরু হয়ে গিয়েছিল। [১৭] টিভি গাইডের লেখক পলা পেইজ পর্বটিকে "উত্তেজনা এবং হৃৎস্পন্দন বাড়ানোর জন্য" বানানো বলে মনে করেন। এছাড়াও ডেক্সটারের হাতে খুন হওয়া মৃতদেহ গুলো খুঁজে পাওয়াকে তিনি চমৎকার গল্পপ্রবাহ বলে উল্লেখ করেন। রিটা চরিত্রটিকে কোন খোলসে আবদ্ধ না রেখে সত্যিকার অর্থে একটি চরিত্র হিসেবে ফুটিয়ে তোলার জন্য তিনি বেঞ্জের প্রশংসা করেন। [১৮] এভি ক্লাবের সমালোচক স্কট টবিয়াস উল্লেখ করেন, "দ্বিতীয় মৌসুমের ছক করার ক্ষেত্রে লেখকগণ চমৎকার কাজ দেখিয়েছেন" [১৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Goldman, Eric (September 28, 2007).
  2. Ward, Kendra (সেপ্টেম্বর ২৯, ২০০৮)। "'Dexter' book series similar to TV"Washburn University। ২০০৯-১০-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১৬ 
  3. Goldman, Eric (মার্চ ৮, ২০০৭)। "Paley Fest: Dexter"IGN। ২০১৩-০১-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১৬ 
  4. Goldman, Eric (জুলাই ১৮, ২০০৭)। "Dexter Gets Ready for Another Killer Season"IGN। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-১৪ 
  5. Meltzer Zepeda, Dana (জুলাই ১৬, ২০০৭)। "Dexter's Move West"TV Guide। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১৬ 
  6. Claustro, Lisa (জুলাই ১৭, ২০০৭)। "'Dexter' No Longer Shooting in Miami"BuddyTV। ২০০৯-০২-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১৬ 
  7. Ahlborn, Kate (অক্টোবর ২৪, ২০০৮)। "Q&A: Dexter Executive Producer Sara Colleton"Vanity Fair। ২০০৮-১২-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১৬ 
  8. Mitovich, Matt (অক্টোবর ৩, ২০০৭)। "Dexter's Ratings Are Bloody Good"TV Guide। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-১৪ 
  9. Lafayette, Jon (অক্টোবর ২, ২০০৭)। "Dexter Debut Is Showtime's First to Draw 1 Million Viewers"TV Week। ২০০৮-০৫-০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২১ 
  10. "Seven - Daily Ratings Report" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Seven Network। ফেব্রুয়ারি ১০, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২৫ 
  11. Brooks, Greg (জুলাই ৯, ২০০৮)। "Dexter viral boosts ratings"Broadcast। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১১-২৫ 
  12. "Complete 2008 Nominations List"Academy of Television Arts & Sciences। জুলাই ১৭, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২১ 
  13. "2008 Creative Arts Emmy winners" (PDF)Academy of Television Arts & Sciences। সেপ্টেম্বর ১৩, ২০০৮। ২০০৮-১১-১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৯-১৩ 
  14. Giardina, Carolyn (মার্চ ৩, ২০০৮)। "Editors unveil their Eddie noms"The Hollywood Reporter। ২০১২-১২-০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২১ 
  15. "Patton Oswalt hosts the 2008 Eddie awards"Monsters and Critics। ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২১ 
  16. Lowry, Brian (সেপ্টেম্বর ২৬, ২০০৭)। "Dexter"Variety। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-১৫ 
  17. McDuffee, Keith (সেপ্টেম্বর ৩০, ২০০৭)। "Dexter: It's Alive! (season premiere)"TV Squad। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১৬ 
  18. Paige, Paula (অক্টোবর ১, ২০০৭)। ""It's Alive""TV Guide। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-১৬ 
  19. Tobias, Scott (সেপ্টেম্বর ৩০, ২০০৭)। "It's Alive"The A.V. Club। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]