ইগনাৎস জেমেলভাইস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইগনাৎস জেমেলভাইস
An engraved portrait of Semmelweis: a mustachioed, balding man in formal attire, pictured from the chest up.
ড. ইগনাৎস জেমেলভাইস; ১৮৬০ সালে ৪২ বছর বয়সে
তামার পাতে জেনো ডবির চিত্রিত প্রতিকৃতি
জন্মSemmelweis Ignác Fülöp
(১৮১৮-০৭-০১)১ জুলাই ১৮১৮
বুদা, হাঙ্গেরি রাজ্য (বর্তমান বুদাপেস্ট, হাঙ্গেরি)
মৃত্যু১৩ আগস্ট ১৮৬৫(1865-08-13) (বয়স ৪৭)
ওবারডোবলিং, অস্ট্রীয় সাম্রাজ্য (বর্তমান ভিয়েনা, অস্ট্রিয়া)
নাগরিকত্বহাঙ্গেরি রাজ্য
কর্মক্ষেত্রধাত্রীবিদ্যা, শল্যচিকিৎসা
প্রাক্তন ছাত্রভিয়েনা বিশ্ববিদ্যালয়
বুদাপেস্ট বিশ্ববিদ্যালয়
পরিচিতির কারণপ্রসূতিকার্যে হাত জীবাণুমুক্তকরণের পথিকৃত (১৮৪৭ সাল হতে)
দাম্পত্য সঙ্গীমারিয়া ভাইডেনহফার (১৮৩৭–১৯১০)
(১৮৫৭ সাল)[১]
সন্তানআন্টোনিয়া
মারিয়া
ইগনাক
মার্গিট
বেলা
পিতা-মাতাইয়োযেফ জেমেলভাইস
টেরেজে মুলার

ইগনাৎস ফিলিপ জেমেলভাইস (১লা জুলাই ১৮১৮ - ১৩ই আগস্ট ১৮৬৫) একজন হাঙ্গেরীয় চিকিৎসক ও হাত ধোয়া ব্যবস্থার প্রবর্তক। শল্যচিকিৎসায় জীবাণুমুক্তকরণ পদ্ধতি অনুসরণের পথিকৃৎ হিসেবে তাঁকে ধরা হয়।[২]

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

ইগনাৎসের জন্ম ১৮১৮ সালের ১ জুলাই তারিখ। জন্মসূত্রে তিনি হাঙ্গেরীয় বংশোদ্ভূত।[২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৮৪৬ সালে ভিয়েনা হাসপাতালে প্রসূতি বিভাগের প্রধান হিসাবে তিনি কর্মরত ছিলে ১৮৫০ সাল নাগাদ ইউরোপে সন্তান জন্মদানের অবস্থা খুব একটা ভালো ছিল না। সেখানকার শিশু পরিচর্যার ক্লিনিকগুলোতে মাঝে মধ্যেই জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মা ও শিশুর মৃত্যু ঘটত। এই মৃত্যু যখন কোনো কিছুতেই থামানো যাচ্ছিল না। সে সময় ফিলিপ গবেষণা করে দেখলেন যে, ডাক্তারদের হাতে থেকে যাওয়া জীবাণু থেকেই শিশুরা আক্রান্ত হচ্ছে। অর্থাৎ ডাক্তারদের হাতেই জীবাণু অন্যত্র সংক্রমিত হচ্ছে। তিনি নির্দেশ দিলেন, ডাক্তারেরা যাতে ক্লোরিন দিয়ে ভালোমতো হাত এবং সার্জিক্যাল যন্ত্রপাতি ধুয়ে তারপর সন্তান প্রসব করান। [২] এতে নাটকীয়ভাবে রোগীদের মৃত্যুহার কমে গেলো।

কিন্তু অন্যান্য ডাক্তারটা ইগনাৎসের বিরোধিতা শুরু করলেন। তাদের মনে হলো, যে ডাক্তারেরা জীবন বাঁচান, তারাই রোগ ছড়িয়ে রোগীদের মারছেন, এমনটা কিছুতেই হতে পারে না। ইগনাৎসের ধারণার বিপরীতে তীব্র প্রতিরোধ আসা শুরু করলো। ডাক্তার বলেই বসলেন, ''কোনো ডাক্তার হাত ধুবে না।'' তাঁর হাত ধোয়ার পরামর্শে কান না দিয়ে তাঁকে নিয়ে হাসাহাসি করা শুরু করল সবাই। তাঁর চাকরি চলে যায়।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

এই বৈপ্লবিক আবিষ্কারের মাত্র এক যুগের মাথায় ইগনাৎস পুরো হতাশায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়েন। প্রায়ই মাতাল হয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে ডাক্তারদের “কসাই, জানোয়ার, অশিক্ষিত গণ্ডমূর্খের দল” বলে গালাগালি শুরু করলেন। শেষ পর্যন্ত তাকে নিয়ে যাওয়া হয় এক মানসিক হাসপাতালে। আর সেই হাসপাতালেই তাঁর মৃত্যু হয়। দুঃখজনক হলেও সত্যি, তাঁর অসুস্থতা এবং মৃত্যু তার ডান হাতের একটি ক্ষত সংক্রমণের ফলে হয়েছিল, সম্ভবত অসুস্থ হওয়ার আগে তার করা অপারেশনের ফলস্বরূপ। তিনি সেই কারণেই মারা যান যার বিরুদ্ধে তিনি আজীবন সংগ্রাম করেছিলেন। [৩]

স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

কয়েক দশক পরে, তাঁর ধারণাগুলি "জীবাণু তত্ত্ব" অবদানের জন্য কৃতিত্ব পেয়েছিল।[৪] আধুনিক এন্টিসেপ্টিকের জনক জোসেফ লিস্টার বলেন "আমি তাঁর কৃতিত্বের প্রশংসা করি এবং এটি আমাকে আনন্দে ভরিয়ে দেয় যে, শেষ পর্যন্ত তাকে সম্মান জানানো হয়েছে।" [৩]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ataman, Vatanoğlu-Lutz এবং Yıldırım 2013, পৃ. 35–39।
  2. "আবিষ্কারের গল্প"বাংলাদেশ প্রতিদিন। সংগ্রহের তারিখ ২১ মার্চ ২০২০ 
  3. "Ignaz Semmelweis"britannica.com। সংগ্রহের তারিখ ২১ মার্চ ২০২০ 
  4. "Know this name: Ignaz Semmelweis, the doctor credited with championing handwashing"cnn.com। সংগ্রহের তারিখ ২১ মার্চ ২০২০ 

গ্রন্থ ও রচনাপঞ্জি[সম্পাদনা]

  • Antall, József; Szebellédy, Géza (১৯৭৩), Aus den Jahrhunderten der Heilkunde, Budapest: Corvina Verlag, পৃষ্ঠা 7–8 
  • Ataman, A. D.; Vatanoğlu-Lutz, E. E.; Yıldırım, G (২০১৩)। "Medicine in stamps-Ignaz Semmelweis and Puerperal Fever"Journal of the Turkish German Gynecological Association। US National Library of Medicine। 14 (1): 35–39। ডিওআই:10.5152/jtgga.2013.08পিএমআইডি 24592068পিএমসি 3881728অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  • Benedek, István (১৯৮৩), Ignaz Phillip Semmelweis 1818–1865, Druckerei Kner, Gyomaendrőd, Hungary: Corvina Kiadó (Translated from Hungarian to German by Brigitte Engel), আইএসবিএন 963-13-1459-6 
  • Braun, Carl (১৮৫৭), Lehrbuch der Geburtshülfe : mit Einschluss der operativen Therapeutik, der übrigen Fortpflanzungs-Functionen der Frauen und der Puerperalprocesse (জার্মান ভাষায়), Vienna, Austria: Braumüller, ওসিএলসি 991553285 
  • Breisky, August (১৮৬১), "Semmelweis", Vierteljahrschrift für die praktische Heilkunde, Literarischer Anzeiger, 18: 1–13 
  • Carter, K. Codell; Carter, Barbara R. (ফেব্রুয়ারি ১, ২০০৫), Childbed fever. A scientific biography of Ignaz Semmelweis, Transaction Publishers, আইএসবিএন 978-1-4128-0467-7 
  • Hauzman, Erik E. (আগস্ট ২৬–৩০, ২০০৬), Semmelweis and his German contemporaries, Budapest, Hungary, মার্চ ২৪, ২০০৯ তারিখে মূল (DOC) থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৪, ২০০৯ 
  • Fleischer, J. (১৮৫৬), "Statistischer Bericht der Gebärklinik an der kk. Universität zu Pest im Schuljahre 1855–56", Wiener medizinische Wochenschrift (German ভাষায়), 6: 534–536, সংগ্রহের তারিখ মে ১১, ২০০৮, Wir glaubten diese Chlorwaschungs-Theorie habe sich längst überlebt; die Erfahrungen und statistischen Ausweisse der meisten geburtshilflichen Anstalten protestieren gegen ubige Anschanung; es wäre an der Zeit sich von dieser Theorie nicht weiter irreführen zu lassen. 
  • Hanninen, O.; Farago, M.; Monos, E. (সেপ্টেম্বর–অক্টোবর ১৯৮৩), "Ignaz Philipp Semmelweis, the prophet of bacteriology", Infection Control, 4 (5): 367–370, ডিওআই:10.1017/S0195941700059762, পিএমআইডি 6354955, এপ্রিল ৪, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৬, ২০০৯, Only the clinical facts proved him right during his lifetime; the triumph of bacteriology which began after his death made him not only the "savior of mothers" but also a genial ancestor of bacteriology. 
  • Hebra, Ferdinand (১৮৪৭), "Höchst wichtige Erfahrungen über die Aetiologie der an Gebäranstalten epidemischen Puerperalfieber", Zeitschrift der K.k. Gesellschaft der Ärzte zu Wien, 4 (1): 242–244 
  • Hebra, Ferdinand (১৮৪৮), "Fortsetzung der Erfahrungen über die Aetiologie der in Gebäranstalten epidemischen Puerperalfieber", Zeitschrift der K.k. Gesellschaft der Ärzte zu Wien, 5: 64f 
  • Levy, Karl Edouard Marius (১৮৪৮), "De nyeste Forsög i Födselsstiftelsen i Wien til Oplysning om Barselfeberens Aetiologie", Hospitals-Meddelelser, 1: 199–211 
  • Muenze Oesterreich AG (২০১৭), "50 Euro – Ignaz Philipp Semmelweis (2008)", Austrian Mint website, Vienna, ডিসেম্বর ১৩, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৭, ২০০৯, The new gold coin with a face value of 50 Euro has a portrait of the celebrated doctor himself together with the staff of Aesculapius, which is the logo for the entire series. The reverse has a bird’s-eye view of the old General Hospital in Vienna, where Semmelweis was stationed in the childbirth clinic. An insert to the right shows a doctor and a student in the act of disinfecting their hands before examining a patient. 
  • Nissani, M. (১৯৯৫)। "The Plight of the Obscure Innovator in Science"। Social Studies of Science25: 165–183। ডিওআই:10.1177/030631295025001008 
  • Nuland, Sherwin B. (২০০৩), The Doctors' Plague: Germs, Childbed Fever and the Strange Story of Ignac Semmelweis, W. W. Norton, আইএসবিএন 0-393-05299-0 
  • Obenchain, Theodore G. (২০১৬)। Genius Belabored: Childbed Fever and the Tragic Life of Ignaz Semmelweis। University of Alabama Press। আইএসবিএন 978-0-81731-929-8 
  • Piper, John (২০০৭)। Motherkillers। Brighton: Book Guild। আইএসবিএন 978-1-84624-087-4। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  • Reid, Robert William (১৯৭৫), Microbes and Men, New York, NY, U.S.A.: Saturday Review Press, আইএসবিএন 978-0-8415-0348-9, ওসিএলসি 1227698 
  • Schmidt, Joseph Hermann (১৮৫০), "Die geburtshülfliche-klinischen Institute der königlichen Charité", Annalen des Charité-Krankenhauses zu Berlin, 1: 485–523 
  • Semmelweis Society International। "Dr Semmelweis' Biography"। সংগ্রহের তারিখ ২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  • Semmelweis, Ignaz (সেপ্টেম্বর ১৫, ১৯৮৩) [1983], Etiology, Concept and Prophylaxis of Childbed Feverবিনামূল্যে নিবন্ধন প্রয়োজন, Carter, K. Codell কর্তৃক অনূদিত, University of Wisconsin Press, আইএসবিএন 0-299-09364-6  (references to Carter's foreword and notes indicated)
  • "Semmelweis Orvostörténeti Múzeum"। Semmelweis.museum.hu। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-১৯ 
  • Tyler Smith, W. (১৮৫৬), "Puerperal Fever", The Lancet, 2 (1732): 503–505, ডিওআই:10.1016/s0140-6736(02)60262-4 
  • Wieger, Friedrich (১৮৪৯), "Des moyens prophylactiques mis en U.S.A.ge au grand hôpital de Vienne contre l'apparition de la fièvre puerpérale", Gazette Médicale de Strasbourg (French ভাষায়), 9: 99–105 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]