ইউনিয়ন পরিষদ (পাকিস্তান)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

পাকিস্তানের ইউনিয়ন পরিষদ (উর্দু: یونین کونسل‎‎ ) স্থানীয় সরকারের তৃতীয়-স্তর এবং সামগ্রিকভাবে ষষ্ঠ স্তর গঠন করে। এর গঠন এবং দায়িত্ব প্রদেশ এবং অঞ্চলগুলির মধ্যে পৃথক।

ইসলামাবাদ রাজধানী[সম্পাদনা]

ইসলামাবাদ রাজধানী অঞ্চল শহর ও গ্রামীণ এলাকা নিয়ে গঠিত। গ্রামীণ ২৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নিয়ে গঠিত, যা ১৩৩টি গ্রাম নিয়ে গঠিত, আর শহরে ২৭টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে।[১]

ইসলামাবাদ রাজধানী অঞ্চলের ইউনিয়ন পরিষদ
ইউসি # প্রধান এলাকা এখতিয়ারের মধ্যে এলাকা
সাইদ পুর সাইদ পুর, গকিনা, তালহার
নুরপুর শাহান নুরপুর শাহান, রাত্তা হুতার
মাল পুর মাল পুর, রোমালি, নারিয়াস , ফাদু, শাহদ্রাহ, খুরদ, শাহদ্রাহ কালান, মান্দালা, জাং বেগিয়াল, শুব্বান সৈয়দান, মাঙ্গিয়াল, কায়েদ-এ-আজম বিশ্ববিদ্যালয়
কোট হাথিয়াল (শামাল) কোট হাথিয়াল, ভারা কাহু, নায়িয়াবাদি, মুহাল্লাহ আলনুর, মুহাল্লাহ বান, মুহাল্লাহ মালকান, ঢক সৈয়দান
কোট হাথিয়াল (জানুব) কোট হাথিয়াল, নাইনসুখ, বারাকাহু, বেহরা সৈয়দান, মুহাল্লাহ গাউসিয়া, শাহরাক-এ-মদিনা, ঢক জিলানি, মুহাল্লাহ মালিকাবাদ
ফুলগ্রান ফুলগ্রান, ফুল গারান, ঢক কুছ, আব্বাসিয়াবাদ, ঢক বাধন, মুহাল্লাহ কাঙ্গার, মাহাল্লাহ রাঞ্জপুরান, শাহপুর, ববরি, কারলট ছাত্তার, মোহরা রাজপুতা, মুহাল্লাহ সুম্বল, বানি গালা
পিন্দ বেগওয়াল পিন্দ বেগওয়াল, বাইনালা, মাইরা বিগুওয়াল, আত্থাল, ঢক শাজ্জাল, ঢক নন্দা শিহালি, জান্দালা, শিমলি
তুমাইর তুমাইর, পিহন্ত, ছাখতান, ডারকালাম, কাঞ্জনাহ
ছারাহ ছারাহ, ঢক মাইরা, ঢক লাস, কিয়ানি, ঢক হাভেলি
১০ কিরপা কিরপা, লাডিউত সৈয়দান, পিন্দ মালিকান, ঢক বান, ভিম্বার তারার, মাহাল্লাহ হাভেলি রাজগান, মেহফুজাবাদ, ছানিওল, মুহাল্লাহ চৌদ্রিয়ান, আরা, গোরা মাস্ত, ঢক জগিয়ান হারনু, চৌন্ত্রা সোগরান
১১ মুঘল মুঘল, হারডোগার, কাঙ্গোতা গুজ্জরান শিহালা, হন্দামিয়াল, নারা সৈয়দান, ছুছকাল ছাকিয়ান, চক কামদার
১২ রাওয়াত রাওয়াত, বাংরিয়াল কালান, বান্নি শারান, মোহরা নাগিয়াল, শাওয়ান
১৩ হুমাক হুমাক, কানিয়াল, গোরা সৈয়দান, নিয়াজিয়ান
১৪ শিহালা শিহালা খুরদ, মাইরা ডাখলি, বন্দর শিহালা, জারকি শিহালা, গাগরি শিহালা, জহুন্দলা, কাঙ্গোতা সৈয়দান, গুরা মিস্ত্রিয়ান
১৫ লোহি বাইর লোহি বার, সরক-এ-কোরাং, বাগ-এ-শাওয়ান, শাহরাক-এ-পাকিস্তান
১৬ ডারবালা ডারবালা, ঢালিয়ালা, পানওয়াল, ছুছা শেখিয়ান, বাইর, কাংহার, শের গামিয়াল, ঢক কাভগার, কাঠরিয়াল, ছুছা, ঢক কাশিমিরিয়া, হারন মাইরা, মালালি, বুন কৌথা, পাহগ পানওয়াল, ফরাশ, বাঙ্গিয়াল
১৭ কোরাল কোরাল, তারলাই খুরদ, গাঙ্গল, চাকলালা, শরীফাবাদ, গোহরা সরদার, তারলাই
১৮ খানা ডাক খানা ডাক, ঢক জব্বা, পিন্দোরিয়ান, শাহরাক-ই-বিলাল, শাহরাক-ই-বরমা, শাহরাক-ই-মদিনা, মুহাল্লা ওয়াহিদ আবাদ, শাহরাক-ই-মাসিহ)
১৯ তারলাই কালান তারলাই কালান, ইরফানাবাদ, চাপ্পার মীর খানাল, শাহানা
২০ আলি পুর আলি পুর, আলিপুর, ঝাং সৈয়দান, পার্টাল, খাদরাপাড়, ফরাশ
২১ সোহান সোহান দেহাতি, খনা কাক, শাকরিয়াল, শাকরিয়াল (শার্কী)
২২ চক শাহজাদ চক শাহজাদ, চক বিহরা শিঘ, জবা তেলি, সোহানা, পান্ডোরি, ছাত্তা বখতাওয়ার, বোহান, ঢকে শরফ, মুজুহান
২৩ কুরি কুরি, মালত, রাখ বাণী গালা, রিহারা, মোহরা জুজন
২৪ শাহরাক-ই-রাওয়াল শাহরাক-ই-রাওয়াল, শাহরাক-ই-মারগালা, সুম্বল কোরখ, পুনা ফকিরান, মোহরিয়ান
২৫ সেক্টর এফ-৬ এফ-৬/১, এফ-৬/২, এফ-৬/৩, এফ-৬/৪, ফারুকী বাজার, মাদানি মসজিদ, ধোবি গাট
২৬ সেক্টর জি-৬/১
২৭ সেক্টর জি-৬ সেক্টর জি-৬/২, সেক্টর জি-৬/৩ এবং সেক্টর জি-৬/৪
২৮ সেক্টর এফ-৭, এফ-৮, এফ-৯
২৯ সেক্টর এফ-১০, এফ-১১
৩০ সেক্টর জি-৭/৩, জি-৭/৪
৩১ সেক্টর জি-৭/১, জি-৭/২
৩২ সেক্টর জি-৮/৩, জি-৮/৪
৩৩ সেক্টর জি-৮/১, জি-৮/২
৩৪ সেক্টর জি-৯ সেক্টর জি-৯/১, জি-৯/৩, জি-৯/৪
৩৫ সেক্টর জি-৯/২
৩৬ সেক্টর জি-১০/৩, জি-১০/৪
৩৭ সেক্টর জি-১০/১, জি-১০/২
৩৮ সেক্টর জি-১১ সেক্টর জি-১১/১, জি-১১/২, জি-১১/৩, জি-১১/৪
৩৯ মাইরা সুম্বল জাফর মাইরা সুম্বল জাফর, গোলরা শরীফ, বাদিয়া রুসমত খান, মায়রা আক্কু, ধারিক মোহরি, শাহরাক-ই-এফাক
৪০ সেক্টর আই-৮ সেক্টর আই-৮/১,আই৮/২,আই৮/৩,আই৮/৪
৪১ সেক্টর আই-৯
৪২ সেক্টর আই-১০/১
৪৩ সেক্টর আই-১০ সেক্টর আই-১০/২, আই-১০/৩, আই-১০/৪
৪৪ বোকরা, হাজী কমপ্লেক্স, সোরিয়া হারবোজা, মৌজা সোরাইন, পীর ওয়াধাই, শাহরাক-ই-ইকবাল
৪৫ ঝাঙ্গী সৈয়দান
৪৬ দুপুর গ্রাম বাধানা কালান, ধোকে মাখান, ইটিসি
৪৭ তারনল
৪৮ শারাই খারবুযা
৪৯ শাহ আল্লাহ দিত্তা
৫০ গোলরা শরীফ

খাইবার প্রদেশ[সম্পাদনা]

কেপি ব্যবস্থায় স্থানীয় গণতন্ত্রের একটি শহর/জেলা তেহসিল/ইউনিয়ন পরিষদ এবং গ্রাম পরিষদ রয়েছে। এটি দেশের একমাত্র প্রদেশ যেখানে স্থানীয় গণতান্ত্রিক বিন্যাসের গ্রাম পরিষদ (ভিসি) রীতি রয়েছে।

পাঞ্জাব প্রদেশ[সম্পাদনা]

পাঞ্জাবের একটি ইউনিয়ন পরিষদ হল একটি জেলার মধ্যে একটি এলাকা যা এক বা একাধিক রাজস্ব সম্পত্তি, এক বা একাধিক সেন্সাস গ্রাম বা এক বা একাধিক সেন্সাস ব্লক নিয়ে গঠিত। একটি ইউনিয়ন পরিষদের এলাকা হল একটি আঞ্চলিক ঐক্য, যার সীমানা মেট্রোপলিটন এলাকা, পৌরসভা বা জেলার সীমা অতিক্রম করে না। ইউনিয়ন পরিষদগুলোকে গ্রামীণ ও শহুরে ভাগে ভাগ করা হয়েছে এবং তাদের প্রত্যেকের জনসংখ্যা সমানভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ আরও ছয়টি ওয়ার্ডে বিভক্ত এবং শেরওয়ান পরিষদ দ্বারা শাসিত হয় - এতে একজন সরাসরি নির্বাচিত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান এবং ছয়জন সাধারণ সদস্য ইউনিয়ন পরিষদের প্রতিটি ওয়ার্ডের প্রতিনিধিত্ব করে। এছাড়াও, সদস্যরা পরোক্ষভাবে শেরওয়ান পরিষদ দ্বারা সংরক্ষিত আসনে নির্বাচিত হয় - এর মধ্যে রয়েছে দুইজন মহিলা সদস্য, একজন গ্রামীণ ইউনিয়ন পরিষদে একজন কৃষক সদস্য অথবা একজন শহুরে ইউনিয়ন পরিষদে একজন শ্রমিক সদস্য, একজন যুব সদস্য এবং একজন অমুসলিম সদস্য। [২]

সিন্ধু প্রদেশ[সম্পাদনা]

বেলুচিস্তান প্রদেশ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Islamabad Capital Territory Administration ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৪ এপ্রিল ২০১১ তারিখে. Ictadministration.gov.pk. Retrieved on 12 July 2013.
  2. "THE PUNJAB LOCAL GOVERNMENT ACT 2013"Punjablaws.gov.pk। ২৪ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৯