আলী মুহাম্মদ খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আলী মুহাম্মদ খান
Ali Muhammad Khan.png
আলী মুহাম্মদ খান
সংসদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮
প্রধানমন্ত্রীইমরান খান
মন্ত্রীবাবর আওয়ান
Head of Prime Minister's Public Affairs and Grievences Wing
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮
পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ-এর সদস্য
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৩ আগস্ট ২০১৮
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1977-11-30) ৩০ নভেম্বর ১৯৭৭ (বয়স ৪৩)
জাতীয়তাপাকিস্তানি
রাজনৈতিক দলপাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ

আলী মুহাম্মদ খান ( উর্দু: علی محمد خان‎‎  ; জন্ম ৩০ নভেম্বর ১৯৭৭) একজন পাকিস্তানি রাজনীতিবিদ যিনি বর্তমান সংসদীক বিষয় প্রতিমন্ত্রী, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে এ পদে দাফতরিক দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি বর্তমানে (আগস্ট ২০১৮ থেকে) পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও পেশায় আইনজীবী। এর আগে তিনি জুন ২০১৪ থেকে মে ২০১৮ পর্যন্ত জাতীয় সংসদ সদস্য ছিলেন।

প্রাথমিক ও শিক্ষা জীবন[সম্পাদনা]

খান জন্মগ্রহণ করেন ৩০ নভেম্বর ১৯৭৭ সালে। [১] তিনি পেশায় আইনজীবী। [২]

রাজনৈতিক পেশা[সম্পাদনা]

তিনি ২০১৩ সালে পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে নির্বাচনী এলাকা এনএ-১০ (মর্দন -১০) থেকে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) এর প্রার্থী হিসাবে পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে নির্বাচিত হয়েছিলেন । [৩][৪][৫][৬] তিনি ৪৬,৫৩১ ভোট পেয়ে জামায়াতে ওলামায়ে ইসলামের প্রার্থীকে পরাজিত করেছেন। [৭]

২০১৪ সালে, খান পুলিশ স্টেশনে হামলা করলে ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়, যার জন্য তার বিরুদ্ধে পুলিশ মামলা করেছিল । [৮]

তিনি ২০১৩ সালের পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে আসনটি এনএ -২২ (মর্দান -২২) থেকে পিটিআইয়ের প্রার্থী হিসাবে জাতীয় সংসদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছিলেন । [৯] তিনি ৫৮,৫৭৭ ভোট পেয়ে মওলানা মোহাম্মদ কাসিমকে পরাজিত করেছিলেন। [১০]

১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮-তে, তিনি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ফেডারেল মন্ত্রিসভায় অন্তর্ভুক্ত হন [১১] এবং সংসদীয় বিষয় প্রতিমন্ত্রী হিসাবে নিযুক্ত হন। [১২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Detail Information"www.pildat.org। PILDAT। Archived from the original on ২৫ এপ্রিল ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০১৭ 
  2. https://www.facebook.com/pg/Ali.Muhammad.KhanPTI/about/?ref=page_internal  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  3. "Musharraf uniform issue: Patriots will have to wait 9 months: Hafiz Hussain"Daily Times (Pakistan)। ২০ এপ্রিল ২০০৪। ২২ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১১ 
  4. "10 MNAs get notices for filing unclear statements"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ৬ জানুয়ারি ২০১৭। ৩ মার্চ ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৭ 
  5. "100 new MNAs-elect to make debut in NA today"। ১ জুন ২০১৩। ৬ মার্চ ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৭ 
  6. "Tehrik-i-Insaf sweeps Khyber Pakhtunkhwa"The Nation। ২০ মার্চ ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৭ 
  7. "2013 election result" (PDF)। ECP। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০১৮ 
  8. "MNA booked after clash at Mardan police station"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ আগস্ট ২০১৪। ৯ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ এপ্রিল ২০১৭ 
  9. "PTI's Ali Muhammad wins NA-22 election"Associated Press Of Pakistan। ২৬ জুলাই ২০১৮। ১ আগস্ট ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৮ 
  10. "NA-22 Result - Election Results 2018 - Mardan 3 - NA-22 Candidates - NA-22 Constituency Details - thenews.com.pk"www.thenews.com.pk (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৮ 
  11. "Ali Muhammad Khan sworn-in as State Minister.He is famous for starting lies after reciting "Darood Sharif"."The Nation। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  12. "Ali Muhammad Khan sworn-in as State Minister"The News (ইংরেজি ভাষায়)। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮