আলিরাজপুর জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আলিরাজপুর জেলা
জেলা
মধ্য প্রদেশে আলিরাজপুর জেলা
মধ্য প্রদেশে আলিরাজপুর জেলা
দেশভারত
রাজ্যমধ্য প্রদেশ
বিভাগইন্দোর
সদরদপ্তরআলিরাজপুর
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্ররতলাম
 • বিধানসভা কেন্দ্র১, আলিরাজপুর, ২. যোবাট
আয়তন
 • মোট৩,১৮২ বর্গকিমি (১,২২৯ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (2011)
 • মোট৭,২৮,৬৭৭
 • জনঘনত্ব২৩০/বর্গকিমি (৫৯০/বর্গমাইল)
জনসংখ্যা
 • স্বাক্ষরতা37.22 per cent
 • লিঙ্গ অনুপাত1009
সময় অঞ্চলIST (ইউটিসি+05:30)
ওয়েবসাইটhttp://alirajpur.nic.in/

আলিরাজপুর জেলা ভারতের মধ্যপ্রদেশের ৫২ জেলার একটি জেলা। ২০০৮ সালের ১৭ মে ঝাবুয়া জেলার আলিরাজপুর, ভবড়া ও জোবাত তহশিল নিয়ে গঠিত হয়। ২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী এটি ভারতের একটি স্বল্প স্বাক্ষরতা সম্পন্ন জেলা। আলিরাজপুর জেলার সদরদপ্তর। এ জেলার আয়তন ২১৬৫ বর্গকিলোমিটার এবং জনসংখ্যা ৭২৮৬৭৭ জন।

নামের উৎপত্তি[সম্পাদনা]

জেলাটির প্রশাসনিক সদরদপ্তর আলিরাজপুর থেকে জেলার নামকরণ করা হয়েছে, যা পূর্ব করদ রাজ্য আলী রাজপুরের রাজধানী ছিল। আলী (১৪৩৭ সালে আনন্দ দেও কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত করদ রাজ্যের রাজধানী ও দুর্গ শহর) ও রাজপুরকে (পরে রাজধানী) সংযুক্ত করে এই শহরের নাম রাখা হয়েছে।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতার পূর্বে আলীরাজপুর রাজ্যটি সেন্ট্রাল ইন্ডিয়া এজেন্সির ভোপাওয়ার এজেন্সি সাব-বিভাগের অধীনে ছিল। এই রাজত্বটি ১৪৩৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং ভারতীয় স্বাধীনতার পরে ভারতীয় ইউনিয়নের সাথে একীভূত হয়। বর্তমান জেলার অঞ্চলটি দখল করা পর ১৯৪৮ সালে মধ্য ভারত রাজ্যের অংশে পরিণত হয় এবং পরবর্তীতে ১৯৫৬ সালের ১ নভেম্বর পুনরায় সংগঠিত করে মধ্য প্রদেশ রাজ্যের অংশ হয়।

ভূগোল[সম্পাদনা]

আলিরাজপুর জেলা ভারতের মধ্যপ্রদেশের পশ্চিমাংশে অবস্থিত। এটি ২২°১৮' উত্তর অক্ষাংশ ও ৭৪°২১' পূর্ব দ্রাঘিমাংশে অবস্থিত।

প্রশাসন[সম্পাদনা]

আলিরাজপুর জেলা তিনটি তহসিল বিভক্ত: আলিরাজপুর, জোবাত ও ভবড়া তফসিল।

বর্তমানে এই জেলায় মধ্যপ্রদেশ বিধানসভার দুটি কেন্দ্র রয়েছে: আলিরাজপুর এবং জোবাত বিধানসভা কেন্দ্র।[২] এবং এ দুটি বিধানসভা কেন্দ্র রতলাম লোকসভা কেন্দ্রের অংশ।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের ভারতীয় জনগণনা অনুযায়ী আলিরাজপুর জেলার মোট জনসংখ্যা ছিল ৭২৮,৬৭৭ জন[৩], যা স্বাধীন রাষ্ট্র ভুটানের জনসংখ্যার সমান বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কা রাজ্যের জনসংখ্যার সমান।[৪][৫] এটি ভারতের ৪৯৮তম জনবহুল জেলা (ভারতের ৬৪০টি জেলার মধ্যে)। জেলায় জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ২২৯ জন (প্রতি বর্গমাইলে ৫৯০ জন) মানুষ বসবাস করে। ২০০১-২০১১ এর দশকে জনসংখ্যা বৃদ্ধি হার ছিল ১৯.৪ শতাংশ। জেলার লিঙ্গ অনুপাত প্রতি ১০০০ জন পুরুষের বিপরীতে ১০০৯ জন নারী রয়েছে, অর্থাৎ পুরুষের চেয়ে নারী বেশি। আলিরাজপুর জেলার স্বাক্ষরতার হার ৩৭.২২ শতাংশ, যা ভারতের সর্বনিম্ন।

২০১১ ভারতীয় জনগণনার তথ্য অনুযায়ী জেলার ৮৯.৯৬ শতাংশ মানুষ ভিলি ভাষায় কথা বলে। এছাড়াও ৭.৯০ শতাংশ হিন্দি ভাষায় এবং ১.৮৭ শতাংশ গুজরাটি ভাষাকে তাদের প্রথম ভাষা হিসেবে ব্যবহার করে।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Ali Rajpur"। Imperial Gazetteer of India, vol. 5, p. 223। 
  2. "District/Assembly List"। Chief Electoral Officer, Madhya Pradesh website। ১ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১০ 
  3. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  4. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১১Bhutan 708,427 
  5. "2010 Resident Population Data"। US Census Bureau। ১৯ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১১Alaska 710,231 
  6. 2011 Census of India, Population By Mother Tongue