আলাপ:উপনিষদ্‌

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Wikiproject_Hinduism This article is within the scope of WikiProject Hinduism, an attempt to promote better coordination, content distribution, and cross-referencing between pages dealing with Hinduism. If you would like to participate, please visit the project page.
??? This article has not been rated yet on the quality scale.

হসন্ত[সম্পাদনা]

হসন্ত কেনো দরকার, বুঝলাম না। উপনিষদ লিখলে মানুষ এটাকে উপনিষদো উচ্চারণ করবে না। তদুপরি বাংলাতে সর্বত্র কি হসন্ত দিয়ে লেখা হয়? --রাগিব (আলাপ | অবদান) ১৭:১৪, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)

এটিই proper name. এই ক্যাটালগে (সংস্কৃত শাস্ত্র) দেখুন, সর্বত্র উপনিষদ্‌ গ্রন্থনামের ক্ষেত্রে হসন্ত বা ৎ ব্যবহার করা হয়েছে। তবে লেখার মধ্যে অনেক সময় সুবিধার জন্য হসন্ত না দিয়েও লেখা যায়। যেমন: বারবার উপনিষদ্‌-এর কথাটা না লিখে কেউ উপনিষদের কথাটিও লিখতে পারেন। তবে হসন্ত দিয়ে লেখাই কাম্য। --অর্ণব দত্ত (আলাপ) ১৭:৫০, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)
মূল সংস্কৃত বানানটা উপনিষত্(-ষদ্) হলেও, একধিক অভিধানে[১][২] দেখলাম উপনিষদ বানানটা বাংলাতে বেশি প্রচলিত। গুগলে সার্চও "উপনিষদ" এর ব্যবহার বেশি দেখাচ্ছে। তাই মূলপাতাটার নাম উপনিষদ রেখে, উপনিষত্ আর উপনিষদ্ পাতা পুনর্নির্দেশ হওয়া উচিত। পাতার শুরুতে সবকটি বানান উল্লেখ করলেই যথেষ্ট। ≈  প্রমেথেউস  (আলাপ)  ০৬:৪৯, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)

বাংলা আকাদেমি "উপনিষদ্‌" ও "উপনিষৎ" বানানদুটিকে গ্রহণ করেছে। (আকাদেমি বিদ্যার্থী অভিধান, ২০০৯ মুদ্রণ, পৃ. ১৩৯)। "উপনিষদ" বানানটি উল্লেখ করা হয়নি। তাছাড়া, আমার মতে কোনো বইয়ের proper name অবিকৃত রাখাই উচিৎ। শিরোনাম "উপনিষদ্‌" হওয়াই যুক্তিসঙ্গত। গুগল সার্চে যে সন্ধানগুলি দিয়েছে, সেগুলি উপনিষদ্‌ মূল গ্রন্থ থেকে দেওয়া হয়নি। অধিকাংশই আলোচনা, ব্লগ পোস্ট ইত্যাদি। --অর্ণব দত্ত (আলাপ) ০৭:১৫, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)

সংসদ বাংলা অভিধানকে একেবারে অগ্রাহ্য করা চলে কি? আর তাছাড়া, [১], [২], [৩] এই তিনটি উদাহরণ দিতে পারি যেগুলো ব্লগ না, জাতীয় বা রাজ্যস্তরের প্রতিষ্ঠান| এবং এরা উপনিষদ বানানটাই ব্যবহার করেছে| Proper noun-এর যুক্তিতে, বানানটা উচ্চারণ অনুসারী হলেই হল। শুধুমাত্র তর্কের খাতিরে না, উইকিপিডিয়া:নিবন্ধ_শিরোনাম#Common_names বলে, যে নামটা বেশি প্রচলিত সেটাই ব্যবহার করতে শিরোনামে ≈  প্রমেথেউস  (আলাপ)  ১৩:০৮, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)
উপনিষদ্‌ সংক্রান্ত আলোচনা নয়, মূল গ্রন্থ থেকে "উপনিষদ" বানানটি প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করুন। অধিক প্রচলিত নাম অনেক ক্ষেত্রেই আমরা ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু বইয়ের নাম বা কোটেশনের মধ্যে যে বানান, তা তো লেখকের নির্ধারিত বানান অনুযায়ীই লেখা উচিৎ। পাঁচালি বানানে এখন ই-কার দেওয়া হয়, এই যুক্তিতে তো পথের পাঁচালী-কে পথের পাঁচালি করা যায় না। আমি একথা অস্বীকার করছি না, "উপনিষদ" বানানটি প্রচলিত, আলোচনার সময় তা আমরা ব্যবহার করতেই পারি। কিন্তু যখন গ্রন্থনামের শিরোনাম ব্যবহার করব, তখন কি মূল নাম থেকে সরে আসাটা উচিৎ হবে? --অর্ণব দত্ত (আলাপ) ১৪:৪৫, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)
একটি মূল বইয়ের উদাহরণ দিলাম। --অর্ণব দত্ত (আলাপ) ১৪:৪৯, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)
রবীন্দ্রনাথের উদাহরণ দিচ্ছিলেন। দেখুন এখানে রবীন্দ্রনাথ আবার লিখেছেন "উপনিষদ্‌"। --অর্ণব দত্ত (আলাপ) ১৪:৫২, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)
কথামৃতেও হসন্ত রাখা হয়েছে। --অর্ণব দত্ত (আলাপ) ১৪:৫৪, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)
অবশ্যই বাজার চলতি উপনিষদ্‌ বইগুলি consult করতে বলব। ক্যাটালগের ঠিকানা রাগিব ভাইয়ের বার্তার উত্তরে দেওয়া আছে। --অর্ণব দত্ত (আলাপ) ১৪:৫৭, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ (ইউটিসি)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ""উপনিষদ""evergreenbangla.com 
  2. শৈলেন্দ্র বিশ্বাস। ""উপনিষদ""। শিশু সাহিত্য সংসদ।