আয যুবায়ের ইবনে আব্দুল মুত্তালিব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুহাম্মদ এর চাচাতো ভাই এবং সহচর এর জন্যে দেখুন যুবায়ের ইবনে আল আওওয়াম

আয-যুবাইর ইবনে আব্দ আল মুত্তালিব ( আরবি: الزبير بن عبد المطلب‎‎ ) শাইবা ইবনে হাশিম এবং ফাতেমা বিন আমর এর পুত্র, এ কারণে মুহাম্মদের চাচা ছিলেন। তিনি আবু তালিব এবং মুহাম্মদের পিতা আবদুল্লাহর পূর্ণ ভাই ছিলেন। [১]

জীবনী[সম্পাদনা]

তিনি মাখজুম গোত্রের আতিক বিনতে আবি ওয়াহবকে বিয়ে করেন এবং তাঁদের চার মেয়ে ছিল।

  1. দুবাআ, যিনি আল-মিকদাদ ইবনে উমরকে বিয়ে করেছিলেন এবং তাদের দুই সন্তান ছিল।
  2. উম্মে আল-হাকাম (অথবা উম্মে হাকিম), যিনি রাবী ইবনে আল-হারিতকে বিয়ে করেছিলেন এবং তাদের নয়টি সন্তান ছিল।
  3. সাফিয়া।
  4. উম্মে আল-জুবায়ের। [২] [৩]

তার বড় সৎ-ভাই, আল-হারিথের মৃত্যুর পর, আজ-জুবায়ের পরবর্তী দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন। তার ভাই আবু তালিবের সাথে তিনি তীর্থযাত্রীদের জন্য খাবার ও পানীয় সরবরাহের পারিবারিক বাধ্যবাধকতার দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] তিনি তরুণ মুহম্মদ এর যৌথ অভিভাবকত্বও পালন করেছেন। বলা হয় যে ৫৮৪ সালে তিনি মুহাম্মদকে ইয়েমেনের সফরে নিয়েছিলেন। [৪]

একটি প্রচলিত মত যা ইবনে কাথির "দুর্বল" বলে অভিহিত করেন, তিনি মারা যান ৫৮৫ সালে। [৫] এটা নিয়ে অনেক কথা প্রচলিত ছিলো। যা ইঙ্গিত দেয় যে তিনি এখনও অনেক বছর পরে জীবিত ছিলেন।

আজ-জুবায়ের হিলফ আল-ফুদুল নামে পরিচিত ভ্রাতৃসংঘের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। হিংস্রতা ও অবিচারের দমনের জন্য ৫১২ সালে মক্কার এটি শুরু হয় ( শত্রু যুদ্ধের শেষের পরে)। [৬] [৭] তিনি চুক্তি সম্পর্কে বলেছিলেন বলে অনুমিত হয়:

। " [৮]

আয যুবায়ের সেই সব কুরাইশ দের একজন ছিলো যারা ৬০৫ সালে কাবা পুনর্নির্মাণের অংশগ্রহণ। প্রথমে তারা কাজ শুরু করতে ভয় পায়, কারণ একটি বড় সাপ সেখানে বাস করতো। একদিন একটি ঈগল সর্পকে বহন করে নিয়ে যায়, নির্মাতারা কাজ শুরু করে। আয-জুবায়ের এটা দ্বারা খুব প্রভাবিত হয়ে একটি কবিতা রচনা করেন। বর্ণনা করেছেন "কিভাবে ঈগল নিচে এসেছিল, বহন করে নিয়ে গেছিলো; " [৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Abdulmalik ibn Hisham. Notes to Ibn Ishaq's Life of Muhammad. Translated by Guillaume, A. (1955). The Life of Muhammad, p. 707, note 97. Oxford: Oxford University Press.
  2. Muhammad ibn Saad. Kitab al-Tabaqat al-Kabir, vol. 8. Translated by Bewley, A. (1995). The Women of Madina, pp. 34-35. London: Ta-Ha Publishers.
  3. See also Muhammad ibn Ishaq. Sirat Rasul Allah. Translated by Guillaume, A. (1955). The Life of Muhammad, p. 522. Oxford: Oxford University Press.
  4. Ismail ibn Umar ibn Kathir. Al-Sira al-Nabawiyya. Translated by Le Gassick, T. (1998). The Life of the Prophet Muhammad, vol. 1, p. 166. Reading, U.K.: Garnet Publishing.
  5. Ibn Kathir/Le Gassick, vol. 1 p. 166.
  6. Muhammad ibn Saad. Kitab al-Tabaqat al-Kabir, vol. 1. Translated by Haq, S. M. (1967). Ibn Sa'ad's Kitab al-Tabaqat al-Kabir, Volume I, Parts I & II, p. 144. Delhi: Kitab Bhavan.
  7. Ibn Kathir/Le Gassick, vol. 1 p. 186.
  8. Ibn Kathir/Le Gassick, vol. 1 p. 187.
  9. Ibn Ishaq/Guillaume pp. 84-87.