আব্দুল ওয়াহেদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আব্দুল ওয়াহেদ
আব্দুল ওয়াহেদ.jpg
কুষ্টিয়া-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১৯৮৬ – ১৯৮৮
প্রধানমন্ত্রীহুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ
পূর্বসূরীজিল্লুর রহমান
উত্তরসূরীআহসান হাবিব লিঙ্কন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মঅজানা
ধলসা গ্রাম, ছাতিয়ান, মিরপুর, কুষ্টিয়া, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, British Raj Red Ensign.svg ব্রিটিশ ভারত,
(বর্তমান  বাংলাদেশ)
মৃত্যু২২ মার্চ ২০১৫
কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল
মৃত্যুর কারণহৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে
নাগরিকত্ব ব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
 পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
 বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী
পিতামাতাদানেজ আলী (পিতা)

আব্দুল ওয়াহেদ (জন্ম: অজানা- মৃত্যু:২২ মার্চ ২০১৫) বাংলাদেশের কুষ্টিয়া জেলার একজন মুক্তিযোদ্ধা, রাজনীতিবিদ এবং সাবেক সংসদ সদস্য। তিনি কুষ্টিয়া-২ (ভেড়ামারা-মিরপুর) আসন থেকে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর হয়ে ১৯৮৬ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন।[১]

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

আব্দুল ওয়াহেদ ব্রিটিশ ভারতের বেঙ্গল প্রেসিডেন্সির (বর্তমান বাংলাদেশ) কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার ছাতিয়ান ইউনিয়নের ধলসা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম দানেজ আলী। চার ভাই ও দুই বোনের মধ্য তিনি বড় ছিলেন। তিনি ১৯৬৮ সালে এসএসসি, ১৯৭১ সালে এইচএসসি, ১৯৭৫ সালে অর্থনীতিতে অনার্স এবং ১৯৭৬ সালে এমএ পাস করেন।

রাজনৈতিক ও কর্মজীবন[সম্পাদনা]

আব্দুল ওয়াহেদ বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য, যশোর-কুষ্টিয়া অঞ্চলের কেন্দ্রীয় দায়িত্বশীল, ১৯৯১ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত জামায়াতের কুষ্টিয়া জিলা আমীর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য ছিলেন। তিনি স্বৈরাচার বিরোধী গণতান্ত্রিক আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ১৯৮৬ সালে কুষ্টিয়া-২ (ভেড়ামারা-মিরপুর) আসনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। লেখক হিসেবে তিনি পরিচিত ছিলেন। তার লেখা কয়েকটি ইসলামিক বই প্রকাশিত হয়েছিলো। তিনি দৈনিক সংগ্রাম সহ বিভিন্ন দৈনিকে লেখালেখি করতেন।[২][৩][৪][৫]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

আব্দুল ওয়াহেদ ২২ মার্চ ২০১৫ সালে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৬৩ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, চার মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। কুষ্টিয়া কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে জানাযা শেষে কুষ্টিয়া পৌর গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।[৬][৭]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "৩য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "Jamaat contestant's move widens rift with BNP"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০০৮-১২-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-০৯ 
  3. "কুষ্টিয়ায় জামায়াতের নেতা সাবেক এমপি আব্দুল ওয়াহেদের ইন্তিকাল"The Daily Sangram। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-০৯ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "সাবেক এমপি আব্দুল ওয়াহেদের দাফন সম্পন্ন | daily nayadiganta"The Daily Nayadiganta। ২০১৯-১০-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-০৯ 
  5. "ইনুর জন্য অন্তরায় আওয়ামী লীগ বিএনপিতে নবীন-প্রবীণ লড়াই"Bhorer Kagoj। ২০১৮-০৫-১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-০৯ 
  6. "কুষ্টিয়া জেলা জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর ও সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য জনাব আব্দুল ওয়াহেদের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ"jamaat-e-islami.org। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-০৯ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. "আবদুল ওয়াহেদ"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]