আব্দুলআজিজ বিন মোহাম্মদ আল-রাব্বান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

আব্দুলআজিজ বিন মোহাম্মদ আল-রাব্বান কাতারের দোহার একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, যার কার্যক্রম দোহাভিত্তিক।[১][২]

জীবনী[সম্পাদনা]

আল রাব্বান দোহায় জন্মগ্রহণ করেন ও বেড়ে উঠেন এবং বর্তমানে তিনি কাতারের অন্যতম ধনী ব্যক্তি। যদিও তিনি রাজ পরিবারের কারও সাথে সরাসরি সম্পর্কযুক্ত নন, তিনি রাজপরিবারের সদস্যের মেয়েকে বিয়ে করেছিলেন।[৩]

কাতারের ব্যবসায় তার ভূমিকাগুলোর মধ্যে রয়েছে বিজনেস ট্রেডিং কোম্পানির (বিটিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, আমিরি প্রোটোকলের আন্ডার সেক্রেটারি এবং সহকারী পরিচালক এবং দোহার আল সাদ স্পোর্টস ক্লাবের প্রাক্তন সহ-সভাপতি এবং সম্মানিত বোর্ড সদস্য অন্তর্ভুক্ত।[৪][৫] তিনি কাতারি ইনভেস্টরস গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতাও ছিলেন, যাকে কিউএসসি হোল্ডিং সংস্থা হিসাবেও উল্লেখ করা হয়।[৬]

বিটিসি[সম্পাদনা]

আব্দুলআজিজ বিন মোহাম্মদ আল-রাব্বান বিটিসি-র চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক। বিটিসি একটি বহু মিলিয়ন রিয়ালের হোল্ডিং এবং বিনিয়োগ সংস্থা, যা মূলত প্রকল্প বিকাশকারীদের সমন্বয়ে গঠিত এবং রিয়েল এস্টেট উন্নয়ন প্রকল্পগুলোতে এর প্রচেষ্টাকে কেন্দ্র করে প্রতিষ্ঠিত।[৪][৭] বিটিসি ১৯৯৭ সালে কাতারে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এই অঞ্চলে খুচরা কমপ্লেক্স সরবরাহ করার জন্য।[৮] ২০০০ সালে নির্মিত ল্যান্ডমার্ক শপিং মল এবং ২০০৬ সালে নির্মিত ভিল্লাজিও মল এই সংস্থারই দুটি খুচরা কমপ্লেক্স যা কাতারের উন্নয়নে প্রভাব ফেলেছে।[৯] এই দুটি কমপ্লেক্সের সাথে কাতারি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অংশীদারত্ব ছিল, শাখা খোলার জন্য নাগরিকত্ব ও ভ্রমণ বিভাগের সাথে কাতারি পরিচয় পত্র লাগত, পাশাপাশি কমপ্লেক্সগুলোর নথিপত্রের সাথে সরকারী বিভাগের শাখা খোলার অনুমতির প্রয়োজন ছিল।[১০] বিটিসি উপসাগরীয় অঞ্চলে কাতার রাজ্যের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে নিজেকে আরো বড় করেছে।[১১] এটা জেডব্লিউ ম্যারিয়ট কোম্পানির সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করেছে, দোহা এবং বাহরাইনের হোটেলের বিকাশ সাধন করতে, এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগ রয়েছে আজাদিয়া গ্রুপ, রেমজা-বিটিসি, রেশ ফ্যাশন, জাওয়াদ এবং সিনেকোর খুচরা প্রকল্পের সাথে।[১২]

আমির দিওয়ান[সম্পাদনা]

আমিরি প্রোটোকলের সহকারীর অধীনস্থ দিওয়ানের মাধ্যমে আল রাব্বান কাতারের রাজনীতিতেও জড়িত ছিলেন। এই প্রোটোকল দ্বিতীয় দক্ষিণ শীর্ষ সম্মেলনের জাতীয় সাংগঠনিক কমিটির অধীনস্থ। দক্ষিণ শীর্ষ সম্মেলন কাতার রাজ্যে সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ যা গ্রুপ অব ৭৭ এবং চীনের সাথে অফিসিয়াল সভা এবং সম্মেলনের সমন্বয় করার জন্য দায়বদ্ধ।[১৩]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

আল রাব্বানকে ২০১২ সালে ভিল্লাজিও মলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত করা হয়েছিল। এই অগ্নিকাণ্ডে ১৯ জন নিহত হয়েছিল যার মধ্যে ছিল ১৩ জন শিশু। যদিও অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছিল নাইকির দোকান থেকে, কিন্তু সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছিল জিম্পাঞ্জি ডে-কেয়ার সেন্টারে। ঘটনার তদন্তে জানা যায়, ডে-কেয়ার সেন্টারটি সামাজিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নার্সারি হিসাবে বাধ্যতামূলক লাইসেন্স অর্জন না করেই পরিচালিত হচ্ছিল। সুতরাং, ডে-কেয়ার প্রয়োজনীয় সুরক্ষা শর্তাদি পূরণ করে নি, আর তাই হতাহতের ঘটনাটিকে আটকানো সম্ভব হয় নি। ২০১২ সালের মে মাসে তদন্ত প্রতিবেদনে অগ্নিকাণ্ড এবং এর ক্ষয়ক্ষতির জন্য "আইন, ব্যবস্থা এবং সংশ্লিষ্ট পক্ষের বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যবস্থা গ্রহণের অভাব"-কে দায়ী করা হয়েছে।[১৪] জড়িত কাতারি মালিকদের অভিযুক্ত করে প্রসিকিউটশন যুক্তি দিয়েছিল যে আসামীরা প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা মেনে চলে নি এবং এটি পরিচালনা করার জন্য লাইসেন্সধারীও ছিল না।[১৫]

২০১৩ সালে, আল রাব্বান অবহেলার কারণে অনৈচ্ছিকভাবে হত্যাকান্ডের জন্য দোষী সাব্যস্ত হয়েছিল এবং তাকে ছয় বছরের কারাদন্ডে দণ্ডিত করা হয়েছিল।[১৬] ৪ ঘণ্টা স্থায়ী মামলার সর্বশেষ বিবৃতিতে আল রাব্বানের প্রতিরক্ষা অ্যাটর্নি জানিয়েছিলেন যে, সম্পত্তির সাথে স্পষ্ট অংশীদারী থাকা সত্ত্বেও তার ক্লায়েন্টের মলের কোনও মালিকানা নেই।[১৭] অধিকন্তু, প্রতিরক্ষা আইনজীবীরা প্রশ্ন তোলেন, মলের যে স্টোর থেকে আগুনের সূত্রপাত সেই মার্কিন স্পোর্টস সংস্থা নাইকির কাউকে অভিযুক্ত করা হয়নি।[১৮] আল রাব্বান পরে তার অভিযোগ থেকে রেহাই পেয়ে যান এবং আদালত তার দ্য কাতারি কোম্পানি ফর রিয়েল এস্টেট এন্ড কমার্সিয়াল প্রজেক্ট-এর জন্য তার সাজা স্থগিত ও পিছিয়ে দেন। ২০১৬ সালের এপ্রিলে আল রাব্বানের বিচারে তিনি আদালতে উপস্থিত হননি এবং তার আইনজীবী আদালতকে অবহিত করে যে, তার ক্লায়েন্ট ভ্রমণে থাকার কারণে অনুপস্থিত রয়েছেন।[১৯]

আল রাব্বানের ল্যান্ডমার্ক মলে আরো একটি বিতর্ক হয়েছিল, ২০০৮ সালে ক্রিসমাস ট্রি-কে এর ভিত্তি থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য। এটা স্পষ্ট নয় যে, তিনি ঠিক কি কারণে এটিকে ফেলে দিয়েছিলেন বা ছুটির মৌসুমে তিনি এটিকে প্রদর্শন না করতে বলেছিলেন। তা সত্ত্বেও, তিনি আল্লাহর কাজের প্রতি আত্মোৎসর্গ করার জন্য এবং দেশ থেকে 'মন্দ দুরীভূত' করার জন্য বহু ধর্মীয় মৌলবাদীদের প্রশংসা পেয়েছিলেন।[২০]

অধিকন্তু, আল রাব্বান কাতারের শাসক পরিবারের সদস্য শেখ থানি বিন আবদুল্লাহ আল-থানির ভাগ্নীকে বিয়ে করেছেন, আল-থানি এজাদান রিয়েল এস্টেটের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক, তাডাউল হোল্ডিং গ্রুপের বোর্ড প্রধান এবং কাতারি দাতব্য সংস্থা আরএএফ-এর প্রতিষ্ঠাতা।[২১][২২] আল থানির $১৬ বিলিয়ন মূল্যের রিয়েল এস্টেট ফার্ম মূলধনের ক্ষেত্রে এমইএনএ (মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা) অঞ্চলে বৃহত্তম। তার হোল্ডিং সংস্থা $৭.৫ বিলিয়নের বেশি মূলধন সংগ্রহ করেছে। আন্তর্জাতিক ইসলামিক ব্যাংক, কাতার ইসলামিক ব্যাংক এবং মাসরাফ আল রায়ান সহ কাতারের বিশিষ্ট ইসলামী ব্যাংকগুলোরও তিনি বড় অবদানকারী এবং নেতা।[২৩] আল থানির দাতব্য সংস্থা, একটি আধা-সরকারী কাতারি দাতব্য সংস্থা সন্ত্রাসী সংগঠন এবং সন্ত্রাসের অর্থায়নের সাথে জড়িত।[২৪] একটি উদাহরণ, সিরিয়ায় মুজাহেদীনের জন্য তহবিল সংগ্রহে আল নুসরা মনোনীত সন্ত্রাসী অর্থায়নকারী শফী আল আজমি দাতাদের আরএএফ দাতব্য প্রতিষ্ঠানে অর্থ প্রেরণের জন্য বলেছিলেন।[২৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "منزل خالد محمد الربان - Wikimapia"wikimapia.org 
  2. http://www.qatarsuccessstories.com/abdulaziz-mohammed-al-rabban[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "Disqus - Closing argument date scheduled for Qatar’s Villaggio Mall fire appeal" 
  4. (http://www.hydrant.co.uk), Site designed and built by Hydrant (৩১ জুলাই ২০১৬)। "Abdul Aziz Mohammed Al Rabban, Chairman, Business Trading Company; Partner, Place Vendôme, Qatar: Interview" 
  5. "Raf for Humanitarian Services"www.raf-thani.com। ২০১৬-১০-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-২০ 
  6. http://www.almeezan.qa/ClarificationsNoteDetails.aspx?id=8172&language=ar
  7. "Businesses Trading Company (BTC Qatar) Careers & Jobs - GulfTalent"www.gulftalent.com 
  8. "About BTC"www.btcdoha.com। ৩০ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০১৯ 
  9. "বিটিসি সম্পর্কে"www.btcdoha.com। ১১ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০১৯ 
  10. "وزارة الداخلية - بدء استخراج البطاقة القطـرية الـذكية بمجمعي ( فلاجيو و الاندمارك )"www.moi.gov.qa 
  11. "Our Business"www.btcdoha.com। ১১ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০১৯ 
  12. "Hospitality"www.btcdoha.com। ১১ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০১৯ 
  13. "اللجنة المنظمة"qatarconferences.org 
  14. CNN, From Jomana Karadsheh। "5 convicted in Qatari mall fire that killed 13 toddlers"CNN 
  15. "Villaggio Mall lawsuit (re fatal fire, Qatar) - Business & Human Rights Resource Centre"business-humanrights.org 
  16. Chief, Habib Toumi, Bureau (২০ জুন ২০১৩)। "Qatar sentences five over Villaggio fire" 
  17. "Qatar court hears closing arguments in Villaggio Mall fire appeal"। ৮ জুন ২০১৫। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০১৯ 
  18. "Victims' families shocked as Qatar envoy cleared over deadly mall blaze" 
  19. "Defendants miss first Qatar court hearing in Villaggio fire retrial"। ১১ এপ্রিল ২০১৬। ১১ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০১৯ 
  20. "شكر وعرفان للسيد عبدالعزيز الربان [الأرشيف] - منتديات شبكة الأسهم القطرية"www.qatarshares.com 
  21. "Archived copy"। ২০১৬-১০-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-২০ 
  22. "Ezdan - Holding"www.ezdanholding.qa। ২০১৬-০৮-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-২০ 
  23. "Qatar Power List-12" 
  24. Review, Oriental (২৩ মে ২০১৩)। "Qatar Is Funding International Terrorism" 
  25. "The 'Club Med for terrorists'"