আবু গারিব

স্থানাঙ্ক: ৩৩°১৭′৩১″ উত্তর ৪৪°৩′৫৬″ পূর্ব / ৩৩.২৯১৯৪° উত্তর ৪৪.০৬৫৫৬° পূর্ব / 33.29194; 44.06556
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আবু গারিব
أبو غريب
Town
আবু গারিব
বাগদাদের নিকটে আবু গারিবের ম্যাপ দেখানো হয়েছে
বাগদাদের নিকটে আবু গারিবের ম্যাপ দেখানো হয়েছে
আবু গারিব ইরাক-এ অবস্থিত
আবু গারিব
আবু গারিব
ইরাকের মানচিত্রে আবু গারিবের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৩৩°১৭′৩১″ উত্তর ৪৪°৩′৫৬″ পূর্ব / ৩৩.২৯১৯৪° উত্তর ৪৪.০৬৫৫৬° পূর্ব / 33.29194; 44.06556
Countryইরাক
প্রদেশবাগদাদ প্রদেশ
জনসংখ্যা (২০০৩)
 • মোট১,৮৯,০০০

আবু গারিব ( /ˈɑːb ˈɡrɛb, ˈɡrb/ /ˈɑːb ˈɡrɛb, ˈɡrb/ ; আরবি: أبو غريب‎‎) হলো ইরাকের বাগদাদ প্রদেশ এর পশ্চিমে অবস্থিত একটি শহর। ২০০৩ সালের আদমশুমারী অনুসারে শহরটির জনসংখ্যা প্রায় ১৮৯,০০০। জর্ডানের পুরনো রাস্তাটি আবু গারিবের মধ্য দিয়ে গেছে। ইরাক সরকার ১৯৯৪ সালে আবু গারিব শহর এবং জেলা তৈরি করেছিল।

স্থানের নামটি ইরাকি শব্দ "ছোট কাকের জনক " থেকে অনুবাদ করা হয়েছে। কিন্তু এই অনুবাদটি লোকমুখে ব্যুৎপত্তি বলে সন্দেহ করা হয়।[১]

শহরটিতে আবু গারিব কারাগার ছিলো। যা ছিল সেই স্থানগুলির মধ্যে একটি যেগুলো সাবেক শাসক সাদ্দাম হোসেনের অধীনে রাজনৈতিক মতবিরোধীদের কারাবরণ করা হয়েছিল। এই মতবিরোধীদের অনেককে সেসময় নির্যাতন এবং মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছিল ।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] সাদ্দাম হোসেনের পতনের পর, আবু গারিব কারাগারটি ইরাকে আমেরিকান বাহিনী ব্যবহার করেছিল। ২০০৩ সালে, আবু গরিব কারাগার আক্রমণ-পরবর্তী সময়ে মার্কিন সেনাবাহিনীর সদস্যদের দ্বারা নির্যাতন ও নিপীড়নের জন্য আন্তর্জাতিক কুখ্যাতি অর্জন করে। [২] [৩] [৪] [৫] [৬]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Abu Ghraib is not about ravens after all (?)..."। Language Log। ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০০৫। 
  2. Greenwald, Glenn"Other government agencies"Salon.com। ফেব্রুয়ারি ১২, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩, ২০১২ 
  3. Hersh, Seymour M. (মে ১৭, ২০০৪)। "Chain of Command"The New Yorker। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১১NBC News later quoted U.S. military officials as saying that the unreleased photographs showed American soldiers "severely beating an Iraqi prisoner nearly to death, having sex with a female Iraqi prisoner, and 'acting inappropriately with a dead body.' The officials said there also was a videotape, apparently shot by U.S. personnel, showing Iraqi guards raping young boys." 
  4. Benjamin, Mark (মে ৩০, ২০০৮)। "Taguba denies he's seen abuse photos suppressed by Obama: The general told a U.K. paper about images he saw investigating Abu Ghraib – not photos Obama wants kept secret."Salon.com। জুন ১১, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৬, ২০০৯The paper quoted Taguba as saying, "These pictures show torture, abuse, rape and every indecency." [...] The actual quote in the Telegraph was accurate, Taguba said – but he was referring to the hundreds of images he reviewed as an investigator of the abuse at Abu Ghraib prison in Iraq 
  5. Hersh, Seymour Myron (জুন ২৫, ২০০৭)। "The general's report: how Antonio Taguba, who investigated the Abu Ghraib scandal, became one of its casualties."The New Yorker। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৭, ২০০৭Taguba said that he saw "a video of a male American soldier in uniform sodomizing a female detainee" 
  6. Walsh, Joan; Michael Scherer (মার্চ ১৪, ২০০৬)। "Other government agencies"The Abu Ghraib files। salon.com। ফেব্রুয়ারি ১২, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০০৮The Armed Forces Institute of Pathology later ruled al-Jamadi's death a homicide, caused by "blunt force injuries to the torso complicated by compromised respiration." 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]