আনহুই বিশ্ববিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আনহুই বিশ্ববিদ্যালয়
安徽大学
নীতিবাক্য至诚至坚,博学笃行 সততা,অটলতা,পাণ্ডিত্যপূর্ণতা,বিচক্ষণতা
স্থাপিত১৯২৮
সভাপতিকুয়াং গুয়াংলি (匡光力)
শিক্ষার্থী২৬,৬৯৯
স্নাতক২১,৩৩৮
স্নাতকোত্তর৫,৩৫২
অবস্থান,
শিক্ষাঙ্গন磬苑校区, 龙河校区 (২,১৪৩,১১৬ বর্গ মিটার)
সংক্ষিপ্ত নাম安大, āndà( আন্দা)
ওয়েবসাইটwww.ahu.edu.cn
দক্ষিণ ফটক থেকে আনহুই বিশ্ববিদ্যালয় এর মূল ক্যাম্পাস
কিঙ্গুয়ান ক্যাম্পাস

আনহুই বিশ্ববিদ্যালয় (আধুনিক চীনা:安徽 大学); চীনা ভাষায় আন্দা (安 大, āndà) নামে পরিচিত, চীনের আনহুই প্রদেশের রাজধানী হপেই শহরে অবস্থিত। ১৯২৮ সালে 'জাতীয় আনহুই বিশ্ববিদ্যালয়' (নামকরণ:১৯৪৬) নামে আঙ্কিংয়ে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয়, ১৯৫৮ সালে হপাইয়ে স্থানান্তরিত হয়, যা এখন প্রকল্প ২১১-এর অধীনে সরকার দ্বারা সমর্থিত। এটি একটি চীনা শিক্ষা মন্ত্রণালয় দ্বারা নিয়ন্ত্রিত ডবল ফার্স্ট ক্লাসে শৃঙ্খলাবদ্ধ বিশ্ববিদ্যালয়,ডবল ফার্স্ট ক্লাসে নির্দিষ্ট শৃঙ্খলার মধ্যে অবস্থিত।[১] বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদের ১,৫২২ জন সদস্যসহ প্রায় ২৭ হাজার শিক্ষার্থী এবং ২৫০০ কর্মী রয়েছে। ১৪টি কলেজ ও অনুষদ নিয়ে গঠিত আনহুই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিস্তৃত শিক্ষাব্যবস্থার অন্তর্ভুক্ত বিষয়গুলো হলো দর্শন, অর্থনীতি, আইন, সাহিত্য, ইতিহাস, বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও ব্যবস্থাপনা। বিশ্ববিদ্যালয়টির নীতিবাক্য হলো 'সততা, অটলতা, পাণ্ডিত্যপূর্ণতা, বিচক্ষণতা'। আনহুই বিশ্ববিদ্যালয় গত ৮০ বছরে ১৭০,০০০-এরও বেশি শিক্ষার্থীদের মৌলিক জ্ঞান, পেশাদার দক্ষতা, সামাজিক দায়িত্ব এবং উদ্ভাবনী ধারণাগুলো সম্পর্কে উচ্চশিক্ষা প্রদান করেছে। উপরন্তু, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮০তম বার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালটি এশিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্টদের ৭ম ফোরাম আয়োজন করেছিল।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আনহুই বিশ্ববিদ্যালয় ১৯২৮ সালে আঙ্কিংয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৫২ সালে হপেইয়ে স্থানান্তর হয়। এরপর একে আনহুই কৃষি কলেজ এবং আনহুই শিক্ষক কলেজে বিভক্ত করা হয়। ১৯৫৮ সালে, আনহুই প্রাদেশিক সরকার হপেইয়ে আনহুই বিশ্ববিদ্যালয় পুনর্নির্মাণ করেছিল। আনহুই ইউনিভার্সিটি এখন প্রকল্প ২১১-এর অধীনে সরকার সমর্থিত একটি উন্নততর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

আনহুই বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি ক্যাম্পাস রয়েছে। প্রধান ক্যাম্পাস প্রায় ৫৫ হেক্টর, দুই শাখা ক্যাম্পাস ৩০ হেক্টর এবং নতুন ক্যাম্পাস প্রায় ২০০ হেক্টর এলাকা জুড়ে রয়েছে।

লাইব্রেরি[সম্পাদনা]

বিশ্ববিদ্যালয় লাইব্রেরিতে ১.৭৫ মিলিয়ন (১৭,৫০,০০০) বই এবং ৭০০০-এরও বেশি চীনা ও বিদেশি সাময়িকীর সংগ্রহ রয়েছে, যা একটি ক্যাম্পাস কম্পিউটার নেটওয়ার্ক দিয়ে সজ্জিত। প্রধান ক্যাম্পাস এবং নতুন ক্যাম্পাস মিলিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে দুটি লাইব্রেরি আছে।

ডিপার্টমেন্ট গঠন[সম্পাদনা]

বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৮টি স্কুল, ৪৪টি বিভাগ, ৬৫টি স্নাতকোত্তর, ১১৯টি মাস্টার্স ডিগ্রী প্রোগ্রাম, ১৬টি পিএইচডি প্রোগ্রাম, ১টি পোস্ট-ডাক্তারের বৈজ্ঞানিক গবেষণা প্রবাহ কাজ কেন্দ্র, ৪টি পেশাদার মাস্টার্স ডিগ্রী প্রোগ্রাম এবং ২টি রাষ্ট্রীয় স্তরের বিভাগ, ১২টি প্রাদেশিক স্তরের বিভাগ রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ২,৩৯৯ কর্মী রয়েছে, যাদের মধ্যে ২১০ জন অধ্যাপক এবং ৪৯০ জন সহযোগী অধ্যাপক রয়েছেন। ৬,৪৬৬ জন প্রাপ্তবয়স্ক ছাত্র ছাড়াও ছাত্রসংখ্যা মোট ২৮১৪।[২]

ডক্টোরাল গবেষণামূলক বিষয়সমূহ[সম্পাদনা]

  • কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন ও প্রযুক্তি

প্রধান বিষয়সমূহ[সম্পাদনা]

  • চীনা ভাষা ও গ্রাফোনোমি
  • কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন প্রযুক্তি 

অপ্রধান বিষয়সমূহ[সম্পাদনা]

  • মৌলিক গণিত ও সম্ভাবনা পরিসংখ্যান
  • বস্তুগত পদার্থবিদ্যা
  • অজৈব রসায়ন
  • সার্কিট এবং সিস্টেম
  • বিদেশী দর্শন
  • রাজনৈতিক অর্থনীতি
  • অর্থনীতি আইন
  • চীনা প্রাচীন সাহিত্য
  • বাংলা ভাষাতত্ত্ব
  • তাত্ত্বিক পদার্থবিদ্যা
  • কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন
  • চৌম্বক এবং মাইক্রোওয়েভ প্রযুক্তি
  • তথ্য ব্যবস্থাপনা এবং তথ্য সিস্টেম
  • আর্ট ও ডিজাইন
  • সঙ্গীত

মানুষবিষয়ক এবং সামাজিক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বিষয়সমূহ[সম্পাদনা]

  • হুইঝু স্টাডিজ

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বিষয়সমূহ[সম্পাদনা]

  • ইন্টেলিজেন্ট কম্পিউটিং এবং সংকেত প্রক্রিয়াজাতকরণ

আন্তর্জাতিক বিনিময় ও সহযোগিতা[সম্পাদনা]

বিশ্ববিদ্যালয়টি আন্তর্জাতিক বিনিময় ও সহযোগিতায় অংশ নেয়। ৭৪টি বিদেশী বিশ্ববিদ্যালয়ে এটিতে চুক্তি রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টি ১৯৮০ সাল থেকে বিদেশি শিক্ষার্থীদের গ্রহণ করেছে। চীনা সরকার কর্তৃক বৃত্তি প্রাপ্ত আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের তালিকাভুক্ত করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়টি চীন শিক্ষা মন্ত্রণালয় কতৃক অনুমোদিত। ২০০০ সালে চীনের ভাষা ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে অবদান রাখার জন্য রাজ্য কাউন্সিলের অধীনে চীন পররাষ্ট্র বিষয়ক কার্যালয় দ্বারা মনোনীত হয়েছিল। বর্তমানে, এশিয়া, আমেরিকা ও ইউরোপের ৭০০-এরও বেশি আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]