বিষয়বস্তুতে চলুন

আদনান আদিভার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
১৯২০ সালে আদনান আদিভার

আদনান বে নামেও পরিচিত আব্দুলহাক আদনান আদিভার (১৮৮২ - ১ জুলাই ১৯৯৫) একজন তুর্কি রাজনীতিবিদ, লেখক, ইতিহাসবিদ,[১] এবং পেশায় একজন চিকিৎসক ছিলেন।[২] তিনি মৌলিক গবেষণা করেন এবং বিজ্ঞানের ইতিহাস নিয়ে লেখেন।[৩] তিনি নবজাত নারীবাদী আন্দোলনের প্রাথমিক সমর্থকও ছিলেন।[৪]

জীবনী

[সম্পাদনা]

তিনি জেলিবোলুতে (গ্যালিপোলি) ১৮৮২ সালের ৬ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন এবং তার বংশ তালিকার মধ্যে ১৭ তম শতাব্দীর সুফি নেতা আজিজ মাহমুদ হোদাই ছিলেন, যিনি ইস্তাম্বুলের ইস্কাদার জেলায় বসবাস করতেন। আদিভারের পিতা মেকতুবিজাদ বাহাই এফেন্দি ছিলেন একজন আইনবিদ এবং তার ঠাকুরদাদা আবদুল আজিজ এফেন্দি ছিলেন প্রথম অটোমান বিজ্ঞান একাডেমির এনকামেন-ই-দানি সদস্য। আদিভারকে ডেরসাদেত ইদাদিসি (আজকের ভেফা হাইস্কুল) এ ভর্তির আগে প্রথম নুমুনে-ই তেরাক্কি মেকতেবিতে (আক্ষরিক অর্থে, "নমুনা স্কুল অফ প্রগ্রেস") পড়াশোনা করেছিলেন।

১৯০৫ সালে মেডিকেল ফ্যাকাল্টি থেকে স্নাতক, আদিভার অভ্যন্তরীণ মেডিসিনে বিশেষজ্ঞ হওয়ার জন্য বার্লিন চলে যান। ১৯০৮ সালে দ্বিতীয় সংবিধান ঘোষণার পর, তিনি ইস্তাম্বুলে ফিরে আসেন। যেহেতু তিনি তরুণ তুর্কিদের (জিউনস টার্কস) কাছাকাছি ছিলেন, তিনি ৩০ বছর বয়সে মেডিকেল অনুষদের পরিচালক হিসেবে নিযুক্ত হন। তিনি ত্রিপোলিতে ইতালিয়ানদের বিরুদ্ধে ইতালো-তুর্কি যুদ্ধের সময় রেড ক্রিসেন্টে কাজ করেছিলেন, বালকান যুদ্ধ ও প্রথম বিশ্বযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন। ১৯১৭ সালে তিনি ঊপন্যাসিক হালিদ এডিপকে বিয়ে করেন, যিনি সেই সময় লেবাওনে শিক্ষকতা করছিলেন এবং দুজনেই ১৯১৮ সালে মোস্তফা কামাল আতাতুর্কের দলে যোগ দিয়েছিলেন, যখন বিদেশী সেনারা ইস্তাম্বুল দখল করেছিল। আঙ্কারায়, আদনান আদিভারকে স্বাস্থ্য মন্ত্রী, অভ্যন্তরীণ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং ১৯২০ সাল থেকে ১৯২৩ সালের মধ্যে জাতীয় পরিষদের সহ -সভাপতি হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল।

তিনি মুস্তাফা কামাল আতাতুর্ক এর বৃত্তের মধ্যে একজন বুদ্ধিজীবী ছিলেন, যিনি তার স্ত্রী লেখিকা হালিদ এডিপ আদিভার সাথে তুর্কি স্বাধীনতা যুদ্ধে সক্রিয় ছিলেন।[৫] তিনি ইস্তাম্বুলে দখলদার ব্রিটিশদের গ্রেপ্তার এড়িয়ে যান, যারা আনাতোলিয়ায় কেমালিস্ট বাহিনীতে যোগ দিয়ে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের শেষে সমস্ত উসমানীয় বুদ্ধিজীবীদের নির্মূল করছিল এবং তাদের মাল্টায় নির্বাসন দিচ্ছিল।

মৃত্যু

[সম্পাদনা]

আদনান আদিভার ১৯৫৫ সালের ১ জুলাই ইস্তাম্বুলে মারা যান এবং তাকে মার্কেজেফেন্ডি কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. Irzik, Gurol. Turkish Studies in the History and Philosophy of Science, p. 3. Published by Springer, 2005. আইএসবিএন ১-৪০২০-৩৩৩২-X
  2. Doktor Aldülhak Adnan Adivar, Halide Edib Adivar (ed.), Istanbul 1956.
  3. "Medical History in Turkey: A Review of Past Studies and Recent Researches", Feza Günergun, Chair for History of Science, Faculty of Letters, Istanbul University, 34459 Beyazıt – Istanbul
  4. "A Biographical Dictionary of Women's Movements And Feminisms", Francisca de Haan, Krasimira Daskalova, Anna Loutfi, 2006, আইএসবিএন ৯৬৩-৭৩২৬-৩৯-১
  5. Shaw, Stanford, and Shaw, Ezel Kural. History of the Ottoman Empire and Modern Turkey, Vol. 2: Reform, Revolution, and Republic: The Rise of Modern Turkey, 1808 - 1975. Cambridge, U.K., and New York: Cambridge University Press, 1977.