আণবিক কক্ষপথ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search

রসায়নে আণবিক কক্ষপথ বলতে একটি গাণিতিক ফাংশন বোঝায় যা দ্বারা একটি অণুতে ইলেক্ট্রনের তরঙ্গধর্মি আচরণ বর্ণিত হয়। এই ফাংশনটি একটি বিশেষ এলাকায় ইলেক্ট্রনের অবস্থানের সমভাব্যতা নির্ণয়ে ব্যবহৃত হয়। রবার্ট এস মালিকেন ১৯৩২ সালে কক্ষপথ শব্দটি এক ইলেক্ট্রন তরঙ্গ ফাংশনের জন্য বিজ্ঞানমহলে উল্ল্যেখ করেন। প্রাথমিক পর্যায়ে কক্ষপথ শব্দটি গাণিতিক ফাংশন এর বিস্তার বোঝাতে ব্যবহৃত হয়। প্রতিটি পরমাণুতে কক্ষপথ পারমাণবিক অরবিটাল ও সংকরায়িত অরবিটাল মিলে গঠিত হয়। পরিমাণগত ভাবে এদের হার্টিই-ফক মেথড দ্বারাও গণণা করা যায়।

পরিদর্শন[সম্পাদনা]

অণুতে আণবিক কক্ষপথ ঐ কক্ষপথে অবস্থানরত ইলেক্ট্রনের খুজে পাওয়ার সম্ভাব্য জায়গা গুলো উপস্থাপন করে। আণবিক কক্ষপথ হল পারমাণবিক অরবিটালের সংমিশ্রণ যা একটি পরমাণুতে ইলেক্ট্রনের‌ যথাসম্ভব অধিক নির্ভুল অবস্থান বের করে দিতে পারে। যদি দুটি ইলেক্ট্রন একই অরবিটালে অবস্থান করে তখন পউলির নীতি অনুসারে তাদের আক্ষিক ঘূর্ণন উল্টো হবে।

আণবিক কক্ষপথের গঠন[সম্পাদনা]

পারমাণবিক অরবিটালের অনুমিত মিথস্ক্রয়ার ফলে আণবিক কক্ষপে উদ্ভব হয়। এটা সম্ভব হয় যখন পারমাণবিক অরবিটালগুলোর প্রতিসমতা পরস্পরের সহিত সংগতিপূর্ণ হয়। পারমাণবিক অরবিটাল মিথস্ক্রয়াগুলোর কার্যকারিতা দুটি পারমাণবিক অরবিটালের অধিক্রমণ দ্বারা নির্ণিত হয় এবং অবশ্যই এদের শক্তিমাএা কাছাকাছি হতে হবে। পরিশেষে আণবিক কক্ষপথ সংখ্যা ও মোট পারমাণবিক কক্ষপথ সংখ্যা(যা অণু গঠন করে) এক হত হবে।