আইএনএস বিক্রমাদিত্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
INS Vikramaditya (R33) close shot.jpg
২০১৪ সালে সমুদ্রপথে বিক্রমাদিত্য
ভারত
নাম: আই এন এস বিক্রমাদিত্য
নামকরণ: বিক্রমাদিত্য
পরিচালক: ভারতীয় নৌবাহিনী
নির্মাণাদেশ: জানুয়ারি ২০, ২০০৪
নির্মাতা: ব্ল্যাক সি সিপ ইয়ার্ড, সোভিয়েত ইউনিয়ন, এবং সেভমাস, রাশিয়া
মোট খরচ: $2.35 billion[১]
অভিষেক: ডিসেম্বর ৪, ২০০৪
সম্পন্ন: এপ্রিল ১৯, ২০১২
কমিশন লাভ: 16 November 2013[২]
কার্যসময়: জুন ১৪, ২০১৪
মাতৃ বন্দর: INS Kadamba, Karwar
শনাক্তকরণ: Pennant number: R33[৩]
নীতিবাক্য: Strike Far, Strike Sure[৪]
অবস্থা: ২০১৯-এর হিসেব অনুযায়ী, সেবায় নিয়োজিত
ইতিহাস
Soviet Union → Russia
নাম: Admiral Gorshkov
নামকরণ: Sergey Gorshkov
নির্মাতা: Chernomorskiy Yard, Nikolayev
নির্মাণের সময়: 17 February 1978[৫]
অভিষেক: 1 April 1982[৫]
কমিশন লাভ: 11 December 1987[৫]
ডিকমিশন: ১৯৯৬
নিয়তি: Sold to India on 20 January 2004
সাধারণ বৈশিষ্ট্য
প্রকার ও শ্রেণী: Modified Kiev-শ্রেণী aircraft carrier
ওজন: টেমপ্লেট:Displacement[৬][৭]
দৈর্ঘ্য: ২৮৩.৫ মিটার (৯৩০ ফু) (overall)
প্রস্থ: ৫৯.৮ মিটার (১৯৬ ফু)[৮]
Draught: ১০.২ মিটার (৩৩ ফু)
পাটাতন: 22[৯]
Installed power: 6 turbo alternators and 6 diesel alternators which generate 18 MWe[৯]
প্রচালনশক্তি: ১,৮০,০০০ অশ্বশক্তি (১,৩৪,২২৬ কিওয়াট)উৎপাদনকারী ৮ টার্বো-চাপযুক্ত বয়লার,৪ টি শ্যাফট, ৪ টি গিয়ারযুক্ত বাষ্প টারবাইন[৯][১০]
গতিবেগ: +৩০ নট (৫৬ কিমি/ঘ)[১০]
সীমা: ১৩,৫০০ নটিক্যাল মাইল (২৫,০০০ কিমি) at ১৮ নট (৩৩ কিমি/ঘ)[১১]
সহনশীলতা: 45 days[৯]
লোকবল: 110 officers and 1500 sailors[১০]
সেন্সর এবং
কার্যপদ্ধতি:
Long range Air Surveillance Radars, LESORUB-E, Resistor-E radar complex, CCS MK II communication complex and Link II tactical data system[৯]
রণসজ্জা:
বিমান বহন:
বিমানচালানর সুবিধাসমূহ:
  • 14 degree ski-jump
  • Three 30 m wide arrester gears and three restraining gears.[৯]

আই এন এস বিক্রমাদিত্য (সংস্কৃতে, বিক্রমাদিত্যের অর্থ সূর্য (দেবতা)-র মতো নির্ভীক) হল কিয়েভ শ্রেণির এয়ারক্র্যাফট ক্যারিয়ার। এটি ২০১৩ সালে ভারতীয় নৌনসেনাবাহিনীতে যোগ দেয়। একে ভারতের উজ্জয়িনী শহরের পৌরাণিক সম্রাট বিক্রমাদিত্য নামে অভিহিত করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ক্রয়[সম্পাদনা]

বাকু ১৯৮৭ সালে নৌবাহিনীতে ব্যবহার করা শুরু হয় এবং ১৯৯১ সালে এটির অ্যাডমিরাল গর্ছকভ নামকরণ করা হয়, তবে ১৯৯৬ সালে এঁকে নিষ্ক্রিয় করা হয় কারণ এটি একটি কোল্ড ওয়ার পশ্চাৎ বাজেটে পরিচালনা করতে খুব ব্যয়বহুল ছিল। এই ব্যাপারটি ভারতের মনোযোগ আকৃষ্ট করে, যেসময় ভারত তার ক্যারিয়ার ভিত্তিক বিমান চলাচল প্রসারিত করার উপায় খুঁজছিল।[১৭] কয়েক বছর ধরে আলোচনার পর ২০০২ সালের ২০ জানুয়ারি , ভারত ও রাশিয়া জাহাজটি ক্রয়বিক্রয়ের জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে। জাহাজটি ভারত পাবে, যখন ভারত জাহাজটি উন্নত করা এবং মেরামত করে পুনঃসক্রিয়করণের জন্য ৮০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেবে, সেইসাথে বিমান ও অস্ত্রশস্ত্রের জন্য অতিরিক্ত ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দেবে। নৌবাহিনী ই-২সি হকি দিয়ে ক্যারিয়ার সজ্জিত করার কথা চিন্তা করেছিল, কিন্তু পরে না করার সিদ্ধান্ত নিল। [১৮] ২০০৯ সালে, নর্থ্রপ গ্রুমম্যান ভারতীয় নৌবাহিনীতে উন্নত ই -২ ডি হকাই নেবার প্রস্তাব দেন। .[১৯]

১৯৮৮ সালে বাকু

চুক্তিটিতে ১২ টি একক আসনবিশিষ্ মিকোয়াইন মিগ -২৯ কে ফালক্রাম-ডি (প্রোডাক্ট ৯.৪১) এবং চারটি দুটি আসনবিশিষ্ট মিগ -২৯ কিউব বিমান (১৪ টি উড়োজাহাজের বিকল্পসহ) ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, ছয় কামভ কেএ -৩১ "হেলিক্স" টেকনোলজি এবং এন্টি-সাবমেরিন হেলিকপ্টার, টর্পেডো টিউব, মিসাইল সিস্টেম এবং আর্টিলারি ইউনিট ও ছিল। পাইলট এবং কারিগরি কর্মীদের প্রশিক্ষণের সুবিধাসমূহ এবং শিক্ষানবিশী পদ্ধতি, ভারতীয় নৌবাহিনীর সুবিধাগুলিতে সিমুলেটর সরবরাহ, খুচরা যন্ত্রাংশ এবং সংস্থাপন রক্ষণাবেক্ষণও চুক্তির অংশ ছিল।

জাহাজটির উন্নয়নে, জাহাজের ডেকের সম্মুখভাগ থেকে সমস্ত অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র লঞ্চার টিউবগুলিকে "শর্ট-টেক-অফ কিন্তু আধৃত পুনরুদ্ধার" (STOBAR) রূপরেখার পদক্ষেপে, নিক্ষেপ করা [২০] একটি সংকর ক্যারিয়ার / ক্রুজার থেকে গোর্শকোভকে একটি শুদ্ধ ক্যারিয়ার রূপে রূপান্তরিত করার সংশ্লিষ্ট কাজ ছিল।

বিক্রমাদিত্য (বাঁদিকে) রাশিয়ান বিমানপোত বহনার্থ জাহাজ অ্যাডমিরাল কুজনেটসভ এর পাশাপাশি Severomorsk পোর্টের মধ্যে ২০১২ সালে

নকশা[সম্পাদনা]

The conversion of the ship saw all the armament removed from the foredeck, including the P-500 Bazalt cruise missile launchers and the four sets of 3K95 Kinzhal surface-to-air missile launchers, to make way for a 14.3° bow ski-jump.

জাহাজটি বিক্রমাদিত্য নামে সম্পূর্ণরূপে পুনঃসম্পন্ন হওয়ার পর, ১৯৮২ সালে বাকু হিসেবে চালু হওয়ার সময়ের থেকে বেশী বড় পূর্ণ লোড ডিস্প্লেসমেন্টসম্পন্ন জাহাজ হয়েহিল। জাহাজের ২৫০০ টি কম্পার্টমেন্টের মধ্যে ১৭৫০ টি পুনর্ব্যবহৃত হয়েছিল, এবং নতুন রাডার এবং সেন্সরকে ব্যবহার করার জন্য ব্যাপকভাবে আবার কেব্লিং করা হয়েছিল। এলিভেটরগুলি আপগ্রেড করা হয়েছিল, এবং দুটি নিয়ন্ত্রণকারী স্ট্যাণ্ড লাগানো হয়েছিল, যাতে একটি স্কি জাম্প সহায়ক জলদি উড়ানের পূর্বে যুদ্ধবিমানটি পূর্ণ শক্তি অর্জন করতে সক্ষম হয়। তিনটি বাধাপ্রদানকারী গিয়ারস অ্যংগলড ডেকের পিছনের অংশে লাগানো হয়েছিল এবং ফিক্সড উইং "শর্ট টেক অফ বাট আরেস্টেড রিকভারি" (STOBAR) অপারেশনকে[৯][২১][২২] সমর্থন করার জন্য দিক নির্দেশক এবং ক্যারিয়ার-ল্যান্ডিং এডগুলি যুক্ত করা হয়েছিল।

পাদটীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. PTI (১১ মার্চ ২০১০)। "Gorshkov deal finalised at USD 2.3 billion"। Chennai, India: The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৩ 
  2. "Aircraft carrier INS Vikramaditya set to join Indian Navy on November 16"The Indian Express। ১৪ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৫ নভেম্বর ২০১৩ 
  3. "Aircraft Carrier: INS Vikramaditya"। Indian Navy। ৪ অক্টোবর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৪ 
  4. "INS Vikramaditya motto is 'Strike Far, Strike Sure'"India Today। ১৭ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৭ নভেম্বর ২০১৩ 
  5. "Project 11434"। ৪ এপ্রিল ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৩ 
  6. "NAVY – Project 1143"। Bharat-Rakshak.com। ১৭ নভেম্বর ২০০৮। ১০ জুলাই ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১২ 
  7. "Indian Carrier Begins Sea Trials | Defense News"। defensenews.com। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১২ 
  8. "Vikramaditya to be handed to the Indian Navy on November 16"। India & Russia Report। সংগ্রহের তারিখ ২৭ অক্টোবর ২০১৩ 
  9. "'Vikramaditya' to be Commissioned on 16 Nov 13"। Indian Navy। ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  10. "Prime Minister Spends A Day Onboard INS Vikramaditya"। PIB। MOD। ১৪ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জুন ২০১৪ 
  11. PTI (১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Engine problems in INS Vikramaditya fixed, sea trial to start in June – Economic Times"। Articles.economictimes.indiatimes.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৩an endurance of 13,500 nautical miles (25,000 km) at a cruising speed of 18 knots. It will have an air wing consisting of Russian-made MiG-29K jet fighter planes and Kamov Ka-31 early warning radar helicopters. 
  12. "INS Vikramaditya to get its own missile shield soon"Times of India। ১৭ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩ মে ২০১৫ 
  13. "INS Vikramaditya won't have air defence system for now"Indian Express। ৩ আগস্ট ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  14. Anandan, S. (৭ আগস্ট ২০১৩)। "INS Vikramaditya will serve Navy for 30 years"The Hindu। Chennai, India। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  15. "Misses, waits & progress in naval missiles"Business Standard। ২ আগস্ট ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  16. "INS Vikrant: India's New Carrier-Gorshkov-Vikramaditya: Aerial Complement"। ১০ ডিসেম্বর ২০১৫। 
  17. "Naval Air: Go For Gorshkov"। Strategypage.com। ৩ জুন ২০১০। ১৬ জুন ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০১১ 
  18. IndiaDefence.com ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ তারিখে – WHAT'S HOT? ANALYSIS OF RECENT HAPPENINGS – Aero India 2005 – Naval Interests – An IDC Report
  19. "Indian Navy Mulls Northrop Advanced Hawkeye"। Aviationweek.com। ২ সেপ্টেম্বর ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০১১ 
  20. Defence Talk ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৫ মার্চ ২০০৮ তারিখে – Pictures of the Gorshkov being worked on in dry docks
  21. John Pike। "R Vikramaditya [ex-Gorshkov]"। Globalsecurity.org। ২৮ ডিসেম্বর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০১১ 
  22. "INS Vikramaditya – Game changer"। PIB। ১৭ নভেম্বর ২০১৩। ৬ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুন ২০১৪