অ্যাডসেন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অ্যাডসেন্স
Google Adsense logo.png
উন্নয়নকারী গুগল
প্রাথমিক সংস্করণ ১৮ই জুন, ২০০৩[১]
অপারেটিং সিস্টেম আন্তঃপ্ল্যাটফর্ম (ওয়েব-ভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশন)
ধরণ অনলাইন বিজ্ঞাপন
ওয়েবসাইট www.google.com/adsense

অ্যাডসেন্স (ইংরেজি: AdSense) গুগল পরিচালিত একটি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন। এটি মূলত একটি লাভ-অংশিদারী প্রকল্প যার দ্বারা ব্যবহারকারী তার ওয়েবসাইটে ব্যবহৃত বিজ্ঞাপনের বিষয়বস্তু থেকে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হন। একটি ওয়েবসাইটের মালিক কিছু শর্তসাপেক্ষে তার সাইটে গুগল নির্ধারিত বিজ্ঞাপণ প্রদর্শনের মাধ্যমে অ্যাডসেন্স থেকে অর্থ উপার্জন [২] করতে পারেন। আজকের অনলাইন বিশ্বে এই বিষয়টি ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে।

২০১০ সালের Q1 তে, গুগল $২.০৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছিল ($৮.১৬ বিলিয়ন বার্ষিক), অথবা অ্যাডসেন্সের মধ্য দিয়ে মোট রাজস্ব ৩০% আয় করেছিল।[৩] অ্যাডসেন্স গুগলের বিজ্ঞাপন প্রচার প্রোগ্রাম। এ প্রোগ্রামের মাধ্যমে গুগল তৃতীয় পক্ষের বিভিন্ন বিজ্ঞাপন ওয়েবমাস্টার এবং ব্লগের মালিকদের নিকট বন্টন করে। ওয়েবসাইটে গুগল অ্যাডসেন্স বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের মাধ্যমে ওয়েবমাস্টাররা অর্থ উপার্জন করতে পারে। বিজ্ঞাপণদাতাদের নিকট থেকে প্রাপ্ত অর্থের ৬৮ শতাংশ (কনটেন্ট এর ক্ষেত্রে) এবং ৫১ শতাংশ (সার্চ এর ক্ষেত্রে) ওয়েবমাস্টারদের মাধ্যমে বিতরণ করে গুগল। গুগল অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে যে কেউ অর্থ আয় করতে পারে। প্রচুর বাংলাদেশী ব্লগার এবং ওয়েবসাইটের মালিক গুগল অ্যাডসেন্স এর বিজ্ঞাপণ প্রদর্শণের মাধ্যমে বর্তমানে অর্থ আয় করছেন। গুগল অ্যাডসেন্স এর মাধ্যমে আয় করতে হলে আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটে নুন্নতম কিছু ভিজিটর প্রয়োজন হবে। তাছাড়া আপনার ওয়েবসাইট এর মান হতে হবে অ্যাডসেন্স এর নিয়ম মেনে। অতঃপর আপনাকে গুগল অ্যাডসেন্স এ সাইন আপ করতে হবে। এরপর গুগল আপনার ওয়েবসাইট পর্যবেক্ষন করার পরে আপনার দেয়া সব ইনফর্মেশন ও রিক্রুইটমেন্ট ঠিক থাকলে ওয়েবসাইট এ বিজ্ঞাপন প্রকাশ করার অনুমতি দিবে এবং আপনাকে একটি কোড দেয়া হবে যা আপনার ওয়েবসাইট এ ব্যবহার করতে হবে বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য। আর মাস শেষে আপনার আয় যদি ১০০ ডলার বা তার বেশী অতিক্রম করে তবে আপনাকে অর্থ পাঠানো হবে। আর অ্যাডসেন্স শুধু ওয়েবসাইট নয়, ইউটিউব, মোবাইল অ্যাপ ইত্যাদিতেও ব্যবহার করা যায় এবং সেখান থেকেও আয় করা যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]