অপারেশন বরিশাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অপারেশন বরিশাল
মূল যুদ্ধ: অপারেশন সার্চলাইট এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ
তারিখ২৫ এপ্রিল ১৯৭১ – ১ মে ১৯৭১
অবস্থান২২°৪৮′ উত্তর ৯০°৩০′ পূর্ব / ২২.৮° উত্তর ৯০.৫° পূর্ব / 22.8; 90.5
ফলাফল পাকিস্তান নৌবাহিনীর বিজয়
বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু
বিবাদমান পক্ষ

 পাকিস্তান


Naval Jack of Pakistan.svg পাকিস্তান নৌবাহিনী
বাংলাদেশ মুক্তিবাহিনী
সেনাধিপতি ও নেতৃত্ব প্রদানকারী
ক্যাপ্টেন এজাজ চৌধুরী ক্যাপ্টেন এম. এ. জলিল মেজর রাশেদুল হাসান
জড়িত ইউনিট
১৭তম নেভাল গানবোট স্কোয়াড্রন
এসএসএনজি
২২তম ফ্রন্টিয়ার ফোর্স রেজিমেন্ট
৬ষ্ঠ পাঞ্জাব রেজিমেন্ট
প্যারাট্রুপার
মুক্তিবাহিনী বরিশাল ইউনিট
শক্তি
৪ গানবোট
১ ড্রেস্টয়ার
১ পেট্রোল বোর্ড
২৪ যুদ্ধবিমান
কয়েক শত থেকে কয়েক হাজার
হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতি
আহত ২৩ অজানা
বরিশাল বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
বরিশাল
বরিশাল
বাংলাদেশ-এ অবস্থান

অপারেশন বরিশাল ছিল পাকিস্তান নৌবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত নৌ-অভিযানের একটি কোড-নাম যা মুক্তিবাহিনী এবং পাকিস্তান প্রতিরক্ষা বাহিনীর ভিন্নমতাবলম্বীদের কাছ থেকে পূর্ব পাকিস্তানের বরিশাল শহরের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণের উদ্দেশ্যে পরিচালনা হয়েছিল। এটি ছিল অপারেশন সার্চলাইটের একটি অংশ।[১]

সার্চলাইট শুরু হওয়ার পর থেকে মুক্তিবাহিনী বড় আকারের নাশকতা মিশন শুরু করছিল, যা পূর্ব পাকিস্তানের যোগাযোগ ও সংকেত কর্মীদের বিঘ্নিত করছিল। নৌ-গোয়েন্দারা বরিশাল শহরে মুক্তিযোদ্ধাদের চিহ্ন খুঁজে পায়, এবং তারপরই অভিযান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয়। বরিশাল সার্চলাইটের অংশ ছিল এবং প্রথমে পাকিস্তান নৌবাহিনীর গানবোট এবং নৌবাহিনীর কর্মীদের মাঠে মোতায়েন করে পাকিস্তান সেনাবাহিনীকে লজিস্টিক সহায়তা প্রদান করেছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Salik, Siddiq, Witness to Surrender, p. 135