অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র

আগুন নেভানো বা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ব্যবহৃত যন্ত্রকে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র বলা হয়। অতি প্রচলিত অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রগুলোতে সাধারণত সিলিন্ডারে উচ্চচাপে রক্ষিত তরল কার্বন ডাই-অক্সাইড নজ্‌ল লিয়ে স্প্রে আকারে বের করে আগুন নেভানো হয়।

প্রকারভেদ[সম্পাদনা]

অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রগুলোকে সাধারণত ০৪ ভাগে ভাগ করা হয়েছে, যথা-

১. ওয়াটার টাইপ

২. ফোম টাইপ

৩. সিওটু (CO2) টাইপ

৪. ডিসিপি টাইপ

ব্যবহার[সম্পাদনা]

অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র পরিচালনার সাধারণ ধাপসমূহ হলঃ

  1. সেফটি পিনটি টানুন।
  2. নিরাপদ দুরত্বে থেকে (অন্তত ছয় ফুট দুরে) নজলটি আগুনের মূলে তাক করুন।
  3. হাত দিয়ে নজলটি চাপুন।
  4. অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রটি আগুনের দিকে তাক করে একপাশ থেকে আরেক পাশে নাড়ান।
ব্যবহারে সর্তকতা[সম্পাদনা]
  1. বাতাসের অনুকুলে ব্যবহার করা।
  2. যথাসম্ভব আগুনের নিকটবর্তী অবস্থান থেকে ব্যবহার করা।
  3. সরাসরি মানুষের শরীরে ব্যবহার না করা।
  4. ড্রাই কেমিক্যাল পাউডার ব্যবহারের সময় সাবধানতা অবলম্বন করা যাতে শ্বাস প্রশ্বাসের সহিত শরীরে প্রবেশ করতে না পারে।
  5. সিওটু ফায়ার এক্সটিংগুইসার ব্যবহারের সময় ব্যবহারের সময় সর্তকাতার সাথে এর ডিসচার্জ হর্ন ধরা। অসর্তকতার কারণে কুল বার্ণ হতে পারে।

বিভিন্ন ধরনের আগুনের জন্য বিভিন্ন রকমের অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র রয়েছে। ভুল রকমের অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র ব্যবহারের ফলে আগুন আরও বাড়তে পারে তাই সঠিক ধরনের অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র ব্যবহার করা উচিত। দয়া করে মনে রাখবেনঃ বেরিয়ে যান, বাইরে থাকুন, ফায়ার সার্ভিসকে খরব দিন।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]