২০১১ কোপা আমেরিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০১১ কোপা আমেরিকা
Copa América Argentina 2011
টুর্নামেন্টের বিবরণ
স্বাগতিক দেশ আর্জেন্টিনা
তারিখসমূহ ১ জুলাই - ২৪ জুলাই
দলসমূহ ১২ (২টি কনফেডারেশন থেকে)
ভেন্যু(সমূহ)  (৮টি আয়োজক শহরে)
শীর্ষস্থানীয় অবস্থান
চ্যাম্পিয়নসমূহ  উরুগুয়ে (১৫তম শিরোপা)
রানার-আপ  প্যারাগুয়ে
তৃতীয় স্থান  পেরু
চতুর্থ স্থান  ভেনেজুয়েলা
প্রতিযোগিতার পরিসংখ্যান
ম্যাচ খেলেছে ২৬
গোল সংখ্যা ৫৪ (ম্যাচ প্রতি ২.০৮টি)
উপস্থিতি ৮,৮২,৬২১ (ম্যাচ প্রতি ৩৩,৯৪৭ জন)
শীর্ষ গোলদাতা পেরু পাওলো গুয়েরো
(৫ গোল)
সেরা খেলোয়াড় উরুগুয়ে লুইজ সুয়ারেজ

২০১১ ক্যাম্পিওনাতো সাদামেরিকানো কোপা আমেরিকা বা, ২০১১ কোপা আমেরিকা বা, কোপা আমেরিকা আর্জেন্টিনা ২০১১ (স্পেনীয়: 2011 Copa América) দক্ষিণ আমেরিকার জাতীয় দলগুলো নিয়ে অনুষ্ঠিত কোপা আমেরিকা ফুটবল প্রতিযোগিতার ৪৩তম আসর। দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলের প্রধান সংগঠন কনমেবল এ প্রতিযোগিতার দায়িত্বে ছিল এবং ১-২৪ জুলাই, ২০১১ সালে আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতার ড্র অনুষ্ঠিত হয় ১১ নভেম্বর, ২০১০ তারিখে, লা প্লাতায়

উরুগুয়ে দল প্যারাগুয়েকে ৩-০ ব্যবধানে পরাজিত করে ১৫তম শিরোপা লাভ করে। এরফলে দলটি কনমেবলের পক্ষ থেকে ২০১৩ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত ফিফা কনফেডারেশন্স কাপে অংশগ্রহণের সুযোগ লাভ করে।

অংশগ্রহণকারী দেশসমূহ[সম্পাদনা]

জাপান এবং মেক্সিকোকে কনমেবলের এ প্রতিযোগিতায় আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল।[১] উয়েফা কর্তৃপক্ষ জানায় যে, কনফেডারশনের মধ্যেই প্রতিযোগিতা হওয়া বাঞ্ছনীয়। যদি তা হয়, তাহলে তা পৃথক প্রতিযোগিতা হিসেবে স্বীকৃতি পাবে। ২৩ নভেম্বর, ২০০৯ তারিখে জানা যায় যে, দল দু'টি উক্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে না।[২]

৩১ মার্চ, ২০১০ তারিখে কনকাকাফ কর্তৃপক্ষ জানায় যে, মেক্সিকোকে তাদের ২০১২ সালের অলিম্পিক ফুটবল দলের সুবিধার্থে ও পাঁচজন বয়স-বহির্ভূত খেলোয়াড় নিয়ে গড়া দলকে পাঠাবে।[৩] মেক্সিকো দূর্বল দল প্রেরণ করে। পাশাপাশি আটজন ফুটবলারকে এক সপ্তাহ পূর্বে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় দল থেকে বহিষ্কার করেছিল।

নিম্নোক্ত ১২ দলের প্রতিযোগিতার পূর্বেকার ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং বন্ধনীতে দেখানো হয়েছে:

মাঠসমূহ[সম্পাদনা]

খেলা আয়োজনের জন্যে আটটি শহরকে নির্বাচিত করা হয়। উদ্বোধনী ও সমাপণী খেলা যথাক্রমে এস্তাদিও সিওদাদ দি লা প্লাতাএস্তাদিও মনুমেন্তাল আন্তোনিও ভেসপুসিও লিবার্তি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়।[৪]

বুয়েনোস আইরেস মেনদোজা
এস্তাদিও মনুমেন্তাল এন্তোনিও ভেসপুসিও লিবার্তি এস্তাদিও মালভিনাস আর্জেন্টিনাস
দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ৫৭,৯২১ দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ৪০,২৬৮
002.Buenos Aires desde el cielo (Estadio de River).JPG Estadio Malvinas Argentinas.JPG
কর্দোবা সালতা
এস্তাদিও মারিও আলবের্তো কেম্পেস এস্তাদিও পাদ্রে আর্নেস্তো মাতিয়ারেনা
দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ৫৫,১৪৪ দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ২০,৪০৮
Estadio Córdoba (Arg vs Ghana) 1.jpg
হুহুই সান হুয়ান
এস্তাদিও ২৩ দি আগোস্তো এস্তাদিও দেল বাইসেন্তোনারিও
দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ২৩,০০০ দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ২৫,০০০
Estadio San Jua del Bicentenario, Pocito.JPG
লা প্লাতা সান্তা ফে
এস্তাদিও সিওদাদ দি লা প্লাতা এস্তাদিও ব্রিগাদিয়ার জেনেরাল এস্তানিসলাও লোপেজ
দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ৩৬,০০০ দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ৪৭,০০০
Estadio único de la plata - diciembre de 2010.JPG Estadio Brigadier General Estanislao López.png

ড্র অনুষ্ঠান[সম্পাদনা]

১১ নভেম্বর, ২০১০ তারিখে লা প্লাতার টিট্রো আর্জেন্টিনো ডি লা প্লাতায় স্থানীয় সময় ১৭:০০ (ইউটিসি-০৩:০০) প্রতিযোগিতার ড্র অনুষ্ঠিত হয়। ড্র অনুষ্ঠানটি ক্যানাল সাইতে টেলিভিশনের মাধ্যমে আর্জেন্টিনায় সম্প্রচারিত হয়।[৫][৬][৭] এরপূর্বে ১৮ অক্টোবর, ২০১০ তারিখে কনমেবলের নির্বাহী কমিটিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল যে, ড্রয়ের জন্যে দলের নাম পাত্রে রাখা হবে।[৮]

পাত্র ১ পাত্র ২ পাত্র ৩

পাত্র ৪

 আর্জেন্টিনা
 ব্রাজিল
 উরুগুয়ে
 চিলি
 কলম্বিয়া
 প্যারাগুয়ে
 বলিভিয়া
 পেরু
 ভেনেজুয়েলা
 ইকুয়েডর
 জাপান[D ১]
 মেক্সিকো
টিকা
  1. Japan later withdrew on May 16, 2011, with Costa Rica named as their replacement.

দলসমূহ[সম্পাদনা]

অংশগ্রহণকারী দলসমূহের সংশ্লিষ্ট সংস্থা ২৩-সদস্যবিশিষ্ট খেলোয়াড় প্রতিযোগিতা উদ্বোধনের পূর্বে প্রেরণ করে। ২৪ জুন, ২০১১ তারিখে কনমেবল কর্তৃপক্ষ পূর্বেকার প্রতিযোগিতার ২২ খেলোয়াড়ের পরিবর্তে আর একজন খেলোয়াড় অন্তর্ভূক্তির সিদ্ধান্ত নেয়। তন্মধ্যে তিনজন খেলোয়াড়কে অবশ্যই গোলরক্ষক হতে হবে।[৯]

খেলা পরিচালনাকারীগণ[সম্পাদনা]

৬ জুলাই, ২০১১ তারিখে কনমেবলের রেফারী কমিশন প্রতিযোগিতার জন্যে ২৪ জন রেফারী এবং ২ জন অতিরিক্ত রেফারীর তালিকা প্রকাশ করে। প্রত্যেক অংশগ্রহণকারী দলের সংস্থা থেকে দুইজন করে রেফারী মনোনয়ন দেয়া হয়:[১০][১১]

আর্জেন্টিনা সার্হিও পিজ্জোত্তা

সহকারী: রিকার্দো কাসাস

বলিভিয়া রাউল অরোস্কো

সহকারী: ইফ্রেইন কাস্ত্রো

ব্রাজিল সালভিও ফাগুন্দেস

সহকারী: মার্সিও সান্তিয়াগো

চিলি এনরিক ওসেস

সহকারী: ফ্রান্সিস্কো মন্দ্রিয়া

কলম্বিয়া উইলমার রোলদান

সহকারী: হাম্বার্তো ক্লাভিজো

ইকুয়েডর কার্লোস ভেরা

সহকারী: লুইস আলভারাদো

প্যারাগুয়ে কার্লোস আমারিল্লা[O ১][১২]

সহকারী: নিকোলাস ইয়েগ্রোস

পেরু ভিক্তর উগো রিভেরা

সহকারী: লুইস আবাদাই

উরুগুয়ে রবার্তো সিলভেরা

সহকারী: মিগুয়েল নাইভাস

ভেনেজুয়েলা হুয়ান সোতো

সহকারী: লুইস সানচেজ

কোস্টা রিকা ওয়াল্তার কুইসাদা

সহকারী: লিওনেল লিয়াল

মেক্সিকো ফ্রান্সিস্কো চাকন

সহকারী: মার্ভিন তোরেন্তেরা

অতিরিক্ত সহকারী রেফারীগণ: আর্জেন্টিনা দিয়েগো বোনফা, হার্নান মাইদানা

টিকা
  1. Amarilla replaced Antonio Arias, who originally replaced Carlos Torres

প্রথম পর্ব[সম্পাদনা]

প্রথম রাউন্ড বা গ্রুপ পর্বে ১২টি দলকে ৩ গ্রুপের মধ্যে রাখা হয়।[১৩] প্রত্যেক গ্রুপে রাউন্ড-রবিন পদ্ধতিতে ৬টি খেলা হয়; যাতে প্রত্যেক দল একে-অপরের বিরুদ্ধে খেলবে। জয়ে ৩ পয়েন্ট, ড্রয়ে ১ পয়েন্ট এবং পরাজয়ের ফলে শূন্য পয়েন্ট রাখা হয়। প্রত্যেক গ্রুপের শীর্ষস্থানীয় দুই দল এবং সেরা দুইটি তৃতীয় দল পরবর্তী পর্ব কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তরণ ঘটবে।[১৪]

টাই-ব্রেকিংয়ের নিয়মাবলী

শীর্ষ দল নির্ধারণে নিম্নবর্ণিত বিধান রাখা হয়েছে:[১৫]

১। সকল গ্রুপের খেলা থেকে সর্বোচ্চ পয়েন্ট
২। সকল গ্রুপের খেলায় গোল পার্থক্য
৩। সকল গ্রুপের খেলায় সবচেয়ে বেশী গোল
৪। একে-অপরের বিরুদ্ধে ফলাফল
৫। পেনাল্টি
গ্রুপ পর্বের খেলায় রঙের বিন্যাস
কোয়ার্টার ফাইনালে যোগ্যতা অর্জনকারী

সকল খেলাই আর্জেন্টিনার স্থানীয় সময় (ইউটিসি-০৩:০০) অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হয়।

গ্রুপ এ[সম্পাদনা]

দল খে ড্র পরা প্রা বি পা
 কলম্বিয়া +৩
 আর্জেন্টিনা +৩
 কোস্টা রিকা −২
 বলিভিয়া −৪

জুলাই ২, ২০১১
১৫:৩০
কলম্বিয়া  ১–০  কোস্টা রিকা
এ. রামোস গোল ৪৪' প্রতিবেদন
এস্তাদিও ২৩ দি আগোস্তো, হুহুই
দর্শক সংখ্যা: ২৩,৫০০
রেফারী: এনরিক ওসেস (চিলি)




গ্রুপ বি[সম্পাদনা]

দল খে ড্র পরা প্রা বি পা
 ব্রাজিল +২
 ভেনেজুয়েলা +১
 প্যারাগুয়ে
 ইকুয়েডর −৩





জুলাই ১৩, ২০১১
২১:৪৫
ব্রাজিল  ৪–২  ইকুয়েডর
পাতো গোল ২৮'৬১'
নেইমার গোল ৪৮'৭১'
প্রতিবেদন কাইসেদো গোল ৩৬'৫৮'

গ্রুপ সি[সম্পাদনা]

দল খে ড্র প্রা বি পা
 চিলি +২
 উরুগুয়ে +১
 পেরু
 মেক্সিকো −৩





তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দলগুলোর তালিকা[সম্পাদনা]

প্রথম পর্বের শেষে প্রত্যেক গ্রুপের তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দলগুলোর মধ্যে তুলনা করা হয়। তৃতীয় স্থান অর্জনকারী সেরা দুইটি দল কোয়ার্টার-ফাইনালে পৌছায়।

গ্রুপ দল খে ড্র প্রা বি পা
সি  পেরু
বি  প্যারাগুয়ে
 কোস্টা রিকা −২

ফাইনাল পর্বসমূহ[সম্পাদনা]

এবারের প্রতিযোগিতার ফাইনাল পর্ব পূর্বেকার প্রতিযোগিতার চেয়ে আলাদা ছিল। নকআউট পর্বে, যদি কোন খেলা সাধারণ ৯০ মিনিট শেষ হওয়ার পরও সমতায় থাকে তাহলে ৩০ মিনিট অতিরিক্ত সময় দেওয়া হয় (পূর্বেকার প্রতিযোগিতায় এরকম অবস্থায় সরাসরি পেনাল্টি শুটআউট নেওয়া হত)।[১৭] প্রতিযোগিতার ইতিহাসে প্রথমবারের মত নকআউট পর্বে কোন আমন্ত্রিত দল ছিলনা। আমন্ত্রিত দুইটি দল মেক্সিকো এবং কোস্টা রিকা গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয়। প্যারাগুয়ে প্রতিযোগিতার ফাইনালে পৌছে, যদিও তারা প্রতিযোগিতার একটি খেলায়ও জিততে পারেনি।

কোয়ার্টার-ফাইনাল সেমি-ফাইনাল ফাইনাল
                   
জুলাই ১৬ - কর্দোবা        
  কলম্বিয়া  ০
জুলাই ১৯ - লা প্লাতা
  পেরু (অ.স.)    
  পেরু  ০
জুলাই ১৬ - সান্তা ফে
    উরুগুয়ে    
  আর্জেন্টিনা  ১ (৪)
জুলাই ২৪ - বুয়েনোস আইরেস
  উরুগুয়ে (পেন.)  ১ (৫)  
  উরুগুয়ে  
জুলাই ১৭ - লা প্লাতা
    প্যারাগুয়ে  ০
  ব্রাজিল  ০ (০)
জুলাই ২০ - মেন্দোজা
  প্যারাগুয়ে (পেন.)  ০ (২)  
  প্যারাগুয়ে (পেন.)  ০ (৫) তৃতীয় স্থান নির্ধারণী
জুলাই ১৭ - সান হুয়ান
    ভেনেজুয়েলা  ০ (৩)  
  চিলি  ১   পেরু  
  ভেনেজুয়েলা       ভেনেজুয়েলা  ১
জুলাই ২৩ - লা প্লাতা

কোয়ার্টার-ফাইনাল[সম্পাদনা]




সেমি-ফাইনাল[সম্পাদনা]

জুলাই ১৯, ২০১১
২১:৪৫
পেরু  ০–২  উরুগুয়ে
প্রতিবেদন সুয়ারেজ গোল ৫২'৫৭'

তৃতীয় স্থান নির্ধারণী খেলা[সম্পাদনা]

জুলাই ২৩, ২০১১
১৬:০০
পেরু  ৪–১  ভেনেজুয়েলা
চিরোকে গোল ৪১'
গারেরো গোল ৬৩'৮৯'৯০+২'
প্রতিবেদন আরাঙ্গো গোল ৭৭'

ফাইনাল[সম্পাদনা]

 ২০১১ কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন 
উরুগুয়ে-এর পতাকা
উরুগুয়ে
১৫তম শিরোপা

গোলদাতা খেলোয়াড়গন[সম্পাদনা]

৫ গোল
৪ গোল
৩ গোল
২ গোল
১ গোল
আত্মঘাতী গোল

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

শৃঙ্খলা[সম্পাদনা]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

ফাইনাল পজিশন[সম্পাদনা]

ফুটবলের পরিসংখ্যান-সংক্রান্ত প্রচলিত রীতি অনুসারে, যেসব খেলা অতিরিক্ত সময়ে নিষ্পত্তি হয় সেগুলোকে জয় এবং পরাজয় হিসেবে ধরা হয়। অপরদিকে, যেসব খেলা পেনাল্টি শুটআউটে নিষ্পত্তি হয় সেগুলোকে ড্র হিসেবে ধরা হয়।

অব দল খে ড্র প্রা বি পা কা
 উরুগুয়ে +৬ ১২ ৬৬.৭%
 প্যারাগুয়ে −৩ ২৭.৮%
 পেরু +৩ ১০ ৫৫.৬%
 ভেনেজুয়েলা −১ ৫০.০%
কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছে
 চিলি +১ ৫৮.৩%
 কলম্বিয়া +১ ৫৮.৩%
 আর্জেন্টিনা +৩ ৫০.০%
 ব্রাজিল +২ ৫০.০%
প্রথম পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছে
 কোস্টা রিকা −২ ৩৩.৩%
১০  ইকুয়েডর −৩ ১১.১%
১১  বলিভিয়া −৪ ১১.১%
১২  মেক্সিকো −৩ ০.০%

বিজ্ঞাপনী উদ্যোগ[সম্পাদনা]

গ্লোবাল প্লটিনাম স্পন্সর:

গ্লোবাল গোল্ড স্পন্সর:

গ্লোবাল সিলভার স্পন্সর:

দাপ্তরিক সরবরাহকারী:

  • সিয়ারা (পাতি ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন প্রচারিত হয়েছে।)[২৮]

দাতব্য অংশীদার:

স্থানীয় সরবরাহকারী:

ওয়েব হোস্টিং:

  • ইউওএল হোস্ট[৩০]

মিডিয়া কাভারেজ[সম্পাদনা]

বিশ্বের ৫০টিরও বেশি দেশে কোপা আমেরিকা সম্প্রচার করে ইউটিউব[৩১]

থিম সঙ্গীত[সম্পাদনা]

আর্জেন্টিনীয় গায়ক দিয়েগো তরেসের গাওয়া"ক্রেও এন আমেরিকা" ছিল প্রতিযোগিতার দাপ্তরিক থিম সঙ্গীত। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এই সঙ্গীত পরিবেশন করেন। প্রতিযোগিতার গৌন থিম সঙ্গীতগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য জেসন দেরুলোর "ডন্ট ওয়ানা গো হোম", শাকিরার "রাবিওসা" এবং মার্তিন সলভেইগের "রেডি টু গো"।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mexico and Japan are confirmed in the 43rd edition of the Copa America"। CA2011.com। August 16, 2010। 
  2. "México podría quedarse sin Copa América 2011" (Spanish ভাষায়)। Medio Tiempo। November 23, 2009। 25 November 2009-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত November 25, 2009 
  3. "Mexico to send Olympic Team"Associated Press। March 31, 2010। সংগৃহীত April 1, 2010 
  4. "Venues for the 2011 Copa America have been decided"। CA2011.com। August 16, 2010। 
  5. "Draw of Copa America Argentina 2011 on Thursday, November 11, in La Plata"। CA2011.com। November 11, 2010। 
  6. "Copa America draw yields intrigue"। FIFA.com। 11 November 2010। 
  7. "Se viene el sorteo de la Copa"Olé (Spanish ভাষায়)। November 9, 2010। সংগৃহীত November 10, 2010 
  8. "Copa America 2011: Argentina, Brazil and Uruguay heads of series"। CA2011.com। October 21, 2010। 
  9. "The 2011 Copa America’s national teams will be able to take 23 players to the competition"। CA2011.com। June 14, 2011। 
  10. "Referees for Copa America appointed"। CA2011.com। June 7, 2011। 
  11. "Copa América: fueron nombrados los árbitros para el torneo" [Copa América: the referees for the tournament were named] (Spanish ভাষায়)। CONMEBOL। June 6, 2011। 30 June 2011-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত June 6, 2011 
  12. "Referee Carlos Amarilla will replace Carlos Torres in the 2011 Copa America"। CA2011.com। June 20, 2011। 
  13. "2011 Copa America groups defined"। CA2011.com। November 11, 2010। 
  14. Official regulations (স্পেনীয়)
  15. "Regulations"। CA2011.com। 
  16. ১৬.০ ১৬.১ Sequence of matches inverted from original schedule. "Two 2011 Copa America’s match times were inverted on July 8"। CA2011.com। জুন ১৫, ২০১১। 
  17. "Announced the official regulations of 2011 Copa América"। CA2011.com। নভেম্বর ১১, ২০১১। সংগৃহীত নভেম্বর ১, ২০১৩ 
  18. "LG"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  19. "MasterCard"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  20. "Santander"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  21. "Kia"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  22. "Claro"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  23. "Telcel"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  24. "Canon"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  25. "Budweiser"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  26. "Coca-Cola"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  27. "Petrobras"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  28. "Seara"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  29. "UNICEF"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  30. "UOL Host"ca2011.com। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 
  31. "Google partners with Traffic Sports to Live stream all Copa America matches on YouTube"। CA2011.com। জুন ১৫, ২০১১। সংগৃহীত ডিসেম্বর ২, ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:2011 Copa América টেমপ্লেট:Copa América