হ্যালাইট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হ্যালাইট
সাধারণ তথ্য
শ্রেণী হ্যালাইট খনিজ
রাসায়নিক সূত্র সোডিয়াম ক্লোরাইড NaCl
সনাক্তকরণ
বর্ণ বর্ণহীন বা সাদা, নীল,লাল, গোলাপী, হলুদ, কমলা এবং ধূসর
স্ফটিক রীতি predominantly cubes and in massive sedimentary beds, but also granular, fibrous and compact
স্ফটিক পদ্ধতি isometric 4/m 3 2/m
বিদারণ Perfect {001}, three directions cubic
ফাটল Conchoidal
সংসক্তি Brittle
কাঠিন্য মাত্রা ২-২.৫
ঔজ্জ্বল্য Vitreous
ডোরা বা বর্ণচ্ছটা সাদা
স্বচ্ছতা স্বচ্ছ
আপেক্ষিক গুরুত্ব ২.১৭
আলোকিক বৈশিষ্ট্য Isotropic
প্রতিসরাঙ্ক ১.৫৪৪
দ্রাব্যতা পানিতে
অন্যান্য বৈশিষ্ট্য Salty flavor, Fluorescent
তথ্যসূত্র [১]

হ্যালাইটের বাণিজ্যিক নাম খনিজ লবন। ইভাপোরাইট ক্রমের খনিজগুলোর মধ্যে হ্যালাইট অন্যতম। এর স্ফটিক কিউব আকৃতির। অনেক সময় অষ্টপলা(octahedral) এবং কঙ্কাল আকৃতির স্ফটিকও দেখা যায়।

কাঠিন্যতা[সম্পাদনা]

হ্যালাইটের কাঠিন্যতা ২.০-২.৫ এবং আপেক্ষিক গুরুত্ব ২.১-২.২।]

আনবিক ভর[সম্পাদনা]

হ্যালাইটের আণবিক ভর ৫৮.৪৪ গ্রাম।

উপাদানগুলোর মিশ্রণ[সম্পাদনা]

উপাদান শতাংশ
সোডিয়াম ৩৯.৩৪%
ক্লোরিন ৬০.৬৬%

উৎস: মিনারেল ওয়েব[২]

বর্ণ[সম্পাদনা]

বিশুদ্ধ অবস্থায় হ্যালাইট বর্ণহীন অথবা সাদা রঙের হয়ে থাকে। কিন্তু অপদ্রব্য মিশ্রিত অবস্থায় এর রঙ কালচে, নীল, সবুজ, অথবা কালো হতে পারে।

প্রাপ্তিস্থান[সম্পাদনা]

হ্যালাইট স্তুপ আকারে পাওয়া যায়। এক্ষেত্রে জিপসাম, অ্যানহাইড্রাইট, কাদা এবং ডোলোমাইটের সাথে সংশ্লিষ্ট থাকে। হ্যালাইটের স্তুপ বিভিন্ন যুগের পাললিক শিলার সাথে পাওয়া যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]