হ্যাগলে ওভাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হ্যাগলে ওভাল
Hagley Oval 2007 - from HagleyParkAerialPhoto.jpg
২০০৭ সালে হ্যাগলে ওভাল
স্টেডিয়ামের তথ্যাবলী
অবস্থান ক্রাইস্টচার্চ, ক্যান্টারবারি
স্থানাঙ্ক ৪৩°৩২′০২″ দক্ষিণ ১৭২°৩৭′০৮″ পূর্ব / ৪৩.৫৩৪° দক্ষিণ ১৭২.৬১৯° পূর্ব / -43.534; 172.619স্থানাঙ্ক: ৪৩°৩২′০২″ দক্ষিণ ১৭২°৩৭′০৮″ পূর্ব / ৪৩.৫৩৪° দক্ষিণ ১৭২.৬১৯° পূর্ব / -43.534; 172.619
প্রতিষ্ঠাকাল (আনুমানিক) ১৮৮৬

আন্তর্জাতিক তথ্যাবলী
প্রথম টেস্ট ৭ মার্চ ১৯৬৯: নিউজিল্যান্ড বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট ২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৫: নিউজিল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া
১ম ওডিআই ২৩ জানুয়ারি ১৯৯২: নিউজিল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই ১ ডিসেম্বর ২০০০: অস্ট্রেলিয়া বনাম শ্রীলঙ্কা
ঘরোয়া দলের তথ্য
ক্যান্টারবারি (১৮৮৬ – ২০০৬)

হ্যাগলে ওভাল নিউজিল্যান্ডের একটি ক্রিকেট মাঠক্রাইস্টচার্চের মধ্যস্থলে অবস্থিত হ্যাগলে পার্কে এ মাঠের অবস্থান। ২০১৩ সালে সালে ক্যান্টারবারি ক্রিকেট দল মাঠটিকে আন্তর্জাতিকমানের ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রূপান্তরের পদক্ষেপ গ্রহণ করলে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে পরিবেশবিষয়ক আদালত থেকে উন্নয়নের অনুমোদনের লাভ করে।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৮৬৭ সালে সর্বপ্রথম এ মাঠে খেলা আয়োজনের রেকর্ড ধারন করা হয়। ঐ খেলায় স্বাগতিক ক্যান্টারবারি ক্রিকেট দল ওতাগো ক্রিকেট দলের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল। ১৯২০-এর দশক পর্যন্ত ক্যান্টারবারি মাঠটিকে অনিয়মিতভাবে ব্যবহার করতো। ডিসেম্বর, ১৯০৭ সালে প্লাঙ্কেট শিল্ডের প্রথম খেলা অনুষ্ঠিত হয় যাতে ক্যান্টারবারি অকল্যান্ড দলের মোকাবেলা করে।[২] ১৯৭৯ সালে ক্যান্টারবারি দল এ মাঠে ফিরে আসে। দলটি ১৯৯৩/৯৪ মৌসুমের শেল কাপে নিজেদের বেশ কিছুসংখ্যক খেলায় অংশ নেয়।

২৩ জানুয়ারি, ২০১৪ তারিখে প্রথমবারের মতো এ স্টেডিয়ামে একদিনের আন্তর্জাতিক খেলা অনুষ্ঠিত হয়। ঐদিন স্কটল্যান্ডকানাডা ক্রিকেট দল ২০১৪ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে অংশ নিয়েছিল। এছাড়াও এ মাঠে তিনটি মহিলাদের টেস্ট ও ছয়টি মহিলাদের একদিনের আন্তর্জাতিক খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Court decision
  2. R.T. Brittenden, Great Days in New Zealand Cricket, A.H. & A.W. Reed, Wellington, 1958, pp. 33-38.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:২০১৫ ক্রিকেট বিশ্বকাপের স্টেডিয়ামসমূহ