হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভারতীয় সংগীত

উচ্চাঙ্গ সংগীত · ভজন · গজল · কাওয়ালি
লোকসংগীত · চিত্রগীতি · পপ · রক · হিপ হপ · রবীন্দ্রসংগীত

ধরন

উচ্চাঙ্গ সংগীত (কর্ণাটকী · হিন্দুস্তানি)

পুরস্কার

ফিল্মফেয়ার পুরস্কার · পাঞ্জাবি সংগীত পুরস্কার

উত্সব

সংগীত নাটক অকাদেমি
ত্যাগরাজ আরাধনা
ক্লিভল্যান্ড ত্যাগরাজ আরাধনা
বাংলা সংগীত মেলা

গণমাধ্যম

শ্রুতি
গান ম্যাগাজিন

জাতীয়
সংগীত

"জনগণমন-অধিনায়ক জয় হে"

জাতীয়
স্তোত্র

"বন্দে মাতরম্‌"

দেশ/অঞ্চলের মধ্যে

আন্দামান এবং নিকোবার দ্বীপপুঞ্জ
অন্ধ্র প্রদেশ · অরুনাচল প্রদেশ · আসাম · বিহার · ছত্তীসগঢ় · গোয়া · গুজরাট · হরিয়ানা · হিমাচল প্রদেশ · জম্মু ও কাশ্মীর · ঝাড়খন্ড · কর্ণাটক · কেরালা · মধ্যপ্রদেশে · মহারাষ্ট্র · মণিপুর · মেঘালয় · মিজোরাম · নাগাল্যান্ডে · ওড়িশা · পাঞ্জাব · রাজস্থান · সিক্কিম · তামিল নাড়ু · ত্রিপুরা · উত্তর প্রদেশ · উত্তরাঞ্চল · পশ্চিমবঙ্গ

হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীত (হিন্দি: हिन्दुस्तानी शास्त्रीय संगीत, উর্দু: ہندوستانی شاستریہ سنگیت) ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের হিন্দুস্তানি বা উত্তর ভারতীয় শাখা। খ্রিষ্টপূর্ব ১০০০ অব্দে উদ্ভুত বৈদিক স্তোত্রগুলির মধ্যে এই ধারার উৎস নিহিত রয়েছে।[১] তবে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের আধুনিক ধারাটির উদ্ভব খ্রিষ্টীয় দ্বাদশ শতাব্দীতে। আমির খসরুকে (১২৫৩-১৩২৫) আধুনিক শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের জনক মনে করা হয়।[২] হিন্দুস্তানি কণ্ঠসঙ্গীতের প্রধান শাখাগুলি হল খেয়াল, ধ্রুপদতারানা। অন্যান্য ধারাগুলির উল্লেখযোগ্য ধামার, কাজরী, টপ্পা, ঠুংরি, দাদরা, গজল, ভজন ইত্যাদি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]