হারমায়োনি গ্রেঞ্জার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হারমায়োনি জিন গ্রেঞ্জার
হ্যারি পটার চরিত্র
Harry-potter-hermione-phoenix-400.jpg
এমা ওয়াটসন কর্তৃক রূপায়িত হারমায়োনি গ্রেঞ্জার
চুলের রঙ বাদামী
চোখের রঙ বাদামী
হাউজ গ্রিফিন্ডর
পূর্বপুরুষ মাগল-বর্ন
আনুগত্য ডাম্বলডোর'স আর্মি; হগওয়ার্টস
অভিনেতা এমা ওয়াটসন
প্রথম উপস্থিতি হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য ফিলোসফার্স স্টোন

হারমায়োনি জিন গ্রেঞ্জার (ইংরেজিতে Hermione Jean Granger) ব্রিটিশ লেখিকা জে. কে. রাউলিং রচিত হ্যারি পটার উপন্যাস-সিরিজের এক কাল্পনিক চরিত্র। সিরিজের প্রথম উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য ফিলোসফার্স স্টোন থেকে পরবর্তী প্রতিটি উপন্যাসে তার উপস্থিতি রয়েছে। সিরিজে সে হ্যারি পটাররন উইজলির অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। তার চরিত্রে বিচক্ষণতা ও বুদ্ধির সমন্বয় ঘটেছে। রাউলিং বলেছেন যে, তিনি হারমায়োনির মধ্যে তার নিজের ছোটবেলার চরিত্রকে প্রকাশ করেছেন।[১]

চারিত্রিক বিকাশ[সম্পাদনা]

হারমাইনি একজন মাগল-বর্ন গ্রিফিন্ডর ছাত্রী এবং হ্যারি পটাররন উইজলির সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধু। তার বাবা মা উভয়েই মাগল ডেন্টিস্ট। রাউলিং এর মতে, সে অত্যন্ত বুদ্ধিমতী, বিচক্ষণ ও বাস্তববাদী এবং তার সময়ের সবচাইতে সেরা ছাত্রী।[২] তার বাবা মা তাকে নিয়ে কিছুটা বিস্মিত হলেও (জাদুকর হওয়ায়) একইসাথে তারা গর্বিতও।[৩] যদিও রাউলিং লুনা লাভগুড চরিত্রটিকে "অ্যান্টি হারমায়োনি" অর্থাৎ হারমায়োনির বিপরীত হিসেবে উল্লেখ করেছেন কারণ তারা দুইজন সম্পূর্ণ আলাদা ধারণা, আদর্শ ও মতামতে বিশ্বাসী[৪], হগওয়ার্টসে তার প্রধান শত্রু হচ্ছে প্যানসি পার্কিনসন; একজন স্লিদারিন। পার্কিনসন চরিত্রটি রাউলিং তার স্কুলের উত্যক্তকারী মেয়েদের অবলম্বনে সৃষ্টি করেছেন।[৫]

রাউলিং বলেছেন যে, হারমায়োনি চরিত্রটির সাথে তার নিজের অনেক বৈশিষ্ট্যের মিল রয়েছে। "আমি হারমায়োনিকে আমার নিজের মত করে সৃষ্টি করতে চাই নি, কিন্তু সে হয়েছে... আমি ছোট বেলায় যেমন ছিলাম, সে অনেকটাই তার অতিরঞ্জন।[২] তিনি বলেন, ছোটকালে তিনি "ছোট সবজান্তা" হিসেবে পরিচিত ছিলেন।[৬] এছাড়াও তিনি বলেছেন যে, তার মত হারমায়োনির মধ্যেও নিরাপত্তাহীনতা ও হেরে যাওয়ার ভয় প্রবলভাবে বিদ্যমান।[২] রাউলিং এর মতে, অ্যালবাস ডাম্বলডোর এর পরে হারমায়োনিই সিরিজের একটি পরিপূর্ণ চরিত্র। কারণ জাদুবিশ্ব সম্পর্কে তার অগাধ জ্ঞান এ বিষয়ে তাকে অন্য সবার চেয়ে আলাদা করেছে।[৭] রাউলিং আরো বলেছেন যে, তার নারীবাদী দর্শন হারমায়োনির মাধ্যমে রক্ষিত হয়েছে। তিনি হারমায়োনিকে "সবচেয়ে বুদ্ধিমতি" এবং "একটি শক্তিশালী নারী চরিত্র" হিসেবে বর্ণনা করেছেন।[৮]

হারমায়োনির নামটি উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের দ্য উইন্টার্স টেইল থেকে নেওয়া।[৯] রাউলিং চেয়েছিলেন একটি অপ্রচলিত নাম ব্যবহার করতে যাতে বেশি সংখ্যক মেয়েকে এই নাম নিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে না হয়। রাউলিং প্রথমে হারমায়োনির শেষ নাম দিতে চেয়েছিলেন "পাকল"।[৬] কিন্তু পরবর্তীতে উপযুক্ত মনে না হওয়ায় এটি পরিবর্তন করে "গ্রেঞ্জার" নামটি ব্যবহার করেন। ২০০৪ সালে এক সাক্ষাৎকারে রাউলিং বলেন যে, হারমায়োনি তার বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান।[১০]

উপস্থিতি[সম্পাদনা]

প্রথম ও দ্বিতীয় উপন্যাস[সম্পাদনা]

হারমাইনি প্রথম উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য ফিলোসফার্স স্টোনে হগওয়ার্টস এক্সপ্রেসে সর্বপ্রথম উপস্থিত হয়। প্রথমদিকে হ্যারি ও রন তাকে উদ্ধত ও অহংকারী হিসেবে দেখলেও পরবর্তীতে তাদের ধারণা পরিবর্তন হয়। বিশেষ করে যখন হ্যারি ও রন তাকে ট্রল এর হাত থেকে উদ্ধার করে তখন থেকেই তাদের বন্ধুত্বের সূচনা হয়। হারমাইনির কৌশল ও বুদ্ধিমত্তার জোরে তারা পরশপাথরটি উদ্ধার করতে যাওয়ার সময় একটি ধাঁধা সমাধান করতে সক্ষম হয় এবং হারমাইনি ব্লু বেল স্পেলের মাধ্যমে আলো তৈরি করে শয়তানের ফাঁদটিকে (ডেভিল'স স্নেয়ার) পরাজিত করে।[১১] তবে চলচ্চিত্রে দেখানো হয়েছে যে এক্ষেত্রে হারমাইনি লুমোস সালেম স্পেল ব্যবহার করে।

দ্বিতীয় উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য চেম্বার অফ সিক্রেটসে হারমাইনি কালো জাদুর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ বিষয়ের নতুন শিক্ষক গিল্ডরয় লকহার্ট এর উপর আকৃষ্ট হতে থাকে।[১২] একদিন গ্রিফিন্ডর ও স্লিদারিন কুইডিচ টিমের প্রস্তুতি ম্যাচের সময় ড্রেকো ম্যালফয় প্রথমবারের মত হারমাইনিকে মাডব্লাড বলে সম্বোধন করে। মাডব্লাড মাগল বংশজাত জাদুকরদের জন্য চরম অপমানজনক একটি গালি। চেম্বার অফ সিক্রেটস সম্বন্ধে ম্যালফয়কে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য হারমাইনি পলিজুস পোশান তৈরি করে। কিন্তু ভুলক্রমে হারমাইনি নিজের পোশনে মিলিসেন্ট বুলস্ট্রোডের চুলের পরিবর্তে তার বিড়ালের চুল ব্যবহার করে। ফলে সে কিছু সময়ের জন্য বিড়ালে পরিণত হয়। পরবর্তীতে লাইব্রেরিতে চেম্বার অফ সিক্রেটসের রহস্য সম্বন্ধে খোঁজাখুজি করার সময়, বাসিলিস্ক দানবটি হারমাইনিকে পাথরে পরিণত করে। যদিও তার রেখে যাওয়া তথ্য হ্যারি ও রনকে চেম্বারের রহস্য সম্পর্কে জানতে সাহায্য করে। হ্যারি বাসিলিস্কটিকে হত্যা করার পর হারমাইনি সুস্থ হয়ে ওঠে।[১৩]

তৃতীয় ও চতুর্থ উপন্যাস[সম্পাদনা]

তৃতীয় উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য প্রিজনার অফ আজকাবানে হারমাইনি ক্রুকশ্যাঙ্কস নামে একটি বিড়াল পায়।[১৪] এই বছরের প্রথম দিকে, প্রফেসর ম্যাকগোনাগল তাকে একটি টাইম-টার্নার দেয়, যা ব্যবহারের মাধ্যমে সে একই সময়ে বিভিন্ন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়। এ সময় রনের ইঁদুর স্ক্যাবার্স হঠাৎ করে নিখোঁজ হয়ে যায়, এজন্য রন ক্রুকশ্যাঙ্কসকে দায়ী করে। ফলে, হারমাইনির সাথে রনের বিরোধ গড়ে উঠে। এছাড়া ফায়ারবোল্ট ঝাড়ু নিয়ে হ্যারির সাথেও তার মনোমালিন্য হয়। কালো জাদুর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্লাসের শিক্ষক রেমাস লুপিনের অনুপস্থিতিতে সেভেরাস স্নেইপ তার ক্লাস নেয় এবং হারমাইনিকে 'অসহ্য রকমের সবজান্তা' হিসেবে অভিহিত করে অন্যায়ভাবে গ্রিফিন্ডরের পয়েন্ট কাটে। স্নেইপের দেয়া হোমওয়ার্ক করার সময় সকল ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে একমাত্র হারমাইনিই বুঝতে পারে যে, লুপিন একজন ওয়্যারউলফ বা নেকড়ে মানুষ। পরবর্তীতে হারমাইনি ও হ্যারি রনকে হোমপিং উইলো থেকে উদ্ধার করে আনতে যায় এবং সিরিয়াস ব্ল্যাকের প্রকৃত সত্য কাহিনী জানতে পারে।[১৫] শেষদিকে হ্যারি ও হারমাইনি তার টাইম-টার্নারটির মাধ্যমে সিরিয়াস ও বাকবিককে উদ্ধার করে।[১৫]

চতুর্থ উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য গবলেট অফ ফায়ারে হাউজ এলফদের ভাগ্য পরিবর্তন ও উন্নয়নের লক্ষ্যে হারমাইনি S.P.E.W. (সোসাইটি ফর দ্য প্রমোশন অফ এলফিশ ওয়েলফেয়ার) নামে একটি সংগঠন গঠন করে। সে বুলগেরিয়ান কুইডিচ তারকা ভিক্টর ক্রামের সাথে ইউল বলে অংশ নেয়।[১৬] এ বইয়ে হারমাইনির নামের সঠিক উচ্চারণ প্রকাশিত হয় যখন সে ক্রামকে তার নামের উচ্চারণ "হার-মায়-ও-নি" শেখায়।[৬] পরবর্তীতে সে রনের সাথে উত্তপ্ত বিতর্কে লিপ্ত হয়। কারণ ক্রামের সাথে হারমাইনির বন্ধুত্বকে রন "শত্রুর সাথে বন্ধুত্ব" হিসেবে চিহ্নিত করে। পুরো ট্রাইউইজার্ড টুর্নামেন্টে হারমাইনি হ্যারিকে সমর্থন করে। টার্মের শেষ দিকে, সে ভন্ড ও বিতর্কিত সাংবাদিক এবং বেআইনী অ্যানিম্যাজাস রিটা স্কিটার, যে হ্যারি, হারমাইনি ও হ্যাগ্রিডের নামে নানা রকম মিথ্যাচার ও অসত্য তথ্য সম্বলিত সংবাদ প্রকাশ করে, তাকে গোবরে পোকা অবস্থায় হাতেনাতে ধরে ফেলে এবং একটি জারে বন্দী করে ফেলে।[১৭]

পঞ্চম ও ষষ্ঠ উপন্যাস[সম্পাদনা]

এমা ওয়াটসন রূপায়িত হারমাইনি গ্রেঞ্জার

পঞ্চম উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সে হারমাইনি রনের সাথে গ্রিফিন্ডর হাউজের প্রিফেক্ট নির্বাচিত হয় এবং লুনা লাভগুডের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলে। তবে তাদের বন্ধুত্ব অপ্রত্যাশিত বিরোধের মাধ্যমে শুরু হয়। পরবর্তীতে হারমাইনি লুনার সাহায্য নিয়ে রিটা স্কিটারকে ভলডেমর্টের ফিরে আসা বিষয়ে হ্যারির সাক্ষাৎকার নেওয়ার জন্য ব্ল্যাকমেল করে। সিরিজের একটি টার্নিং পয়েন্ট হল, যখন হারমাইনি হ্যারিকে ছাত্রছাত্রীদেরকে প্রতিরোধমূলক জাদু শিক্ষা ও অনুশীলনের জন্য একটি গোপন ছাত্রসংগঠন গঠনের প্রস্তাব দেয়। হারমাইনির প্রস্তাবিত এ ছাত্রসংগঠন ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে এবং ডাম্বলডোর'স আর্মি নামধারণ করে। বইয়ের শেষ দিকে হারমাইনি হ্যারি, রন, নেভিল, জিনি ও লুনার সাথে ডিপার্টমেন্ট অফ মিস্টেরিসের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে এবং ডেথ ইটার অ্যান্টোনিন ডলোহভের হাতে মারাত্মকভাবে আহত হয়।। কিন্তু পরবর্তীতে সে সুস্থ হয়ে ওঠে।[১৮]

ষষ্ঠ উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য হাফ-ব্লাড প্রিন্স এ, পোশন বিষয়ের নতুন শিক্ষক হোরেস স্লাগহর্ন হারমাইনিকে তার স্লাগ ক্লাবে যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ জানান।[১৯] হারমাইনি গ্রিফিন্ডর কুইডিচ টিমের কিপার নির্বাচনের সময় করম্যাক ম্যাকলেগেনকে গোপনে জাদু করে রনকে গ্রিফিন্ডর কুইডিচ টিমে তার স্থান ধরে রাখতে সাহায্য করে। এদিকে রনের প্রতি হারমাইনির অনুভূতি ক্রমেই বাড়তে থাকে। সে রনের সাথে স্লাগহর্নের পার্টিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু রন ক্রামের সাথে হারমাইনির পূর্বসম্পর্ক থাকায় ঈর্ষাবশত ল্যাভেন্ডারের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলে। হারমাইনিও প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য ম্যাকলেগেনের সাথে পার্টিতে যায়, কিন্তু তার পরিকল্পনা ব্যর্থ হয় এবং সে পার্টির মাঝপথে ম্যাকলেগেনকে ছেড়ে চলে আসে।[২০] অবশেষে রন ও হারমাইনির এ তিক্ত সম্পর্কের অবসান হয় যখন রন দূর্ঘটনাবশত বিষাক্ত মিড পান করে মৃত্যুর প্রায় কাছাকাছি চলে যায়। ডাম্বলডোরের মৃত্যুর পর, রন ও হারমাইনি উভয়েই সবসময় হ্যারির সাথে থাকার অঙ্গীকার করে।[২১] এ বইয়ের একটি অন্যতম সাবপ্লট হল, পোশন ক্লাসে হ্যারি ও হারমাইনির মধ্যে কিছুটা তিক্ত সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কারণ, হ্যারি হাফ-ব্লাড প্রিন্সের বইয়ের সাহায্য নিয়ে পোশন ক্লাসে হারমাইনির চেয়েও বেশি সফল হতে থাকে।

সর্বশেষ উপন্যাস[সম্পাদনা]

সপ্তম ও সর্বশেষ উপন্যাস হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য ডেথলি হ্যালোসে হারমাইনি হ্যারির ভলডেমর্টের অবশিষ্ট হরক্রাক্সগুলো খুঁজে বের করার কাজে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এ কাজে যাওয়ার আগে সে তার বাবা মায়ের উপর মেমোরি চার্ম প্রয়োগ করে যায় যাতে তারা মনে করে যে, তারা হলেন ওয়েন্ডেল ও মনিকা উইলকিন্স। এরপর সে তাদেরকে অস্ট্রেলিয়ায় রেখে আসে, যাতে ডেথ ইটাররা তাদেরকে খুঁজে না পায়। সে ডাম্বলডোরের কাছ থেকে দ্য টেলস অফ বিডল দ্য বার্ড বইয়ের একটি কপি লাভ করে। যার মাধ্যমে সে ডেথলি হ্যালোসের বেশ কিছু সিক্রেট জানতে পারে। গড্রিক'স হলোতে হারমাইনির জাদুমন্ত্র ভলডেমর্ট এবং তার সাপ নাগিনির হাত থেকে তাকে ও হ্যারিকে রক্ষা করে, তবে এ সময় একই জাদুমন্ত্রের আঘাতে হ্যারির জাদুদন্ডটি ভেঙ্গে যায়। যখন স্ন্যাচাররা হারমাইনি, রন ও হ্যারিকে ধরে ফেলে, তখন সে স্টিংগিং চার্ম ব্যবহার করে হ্যারির চেহারা বদলে দেয়, যাতে তারা হ্যারিকে চিনতে না পারে। ম্যালফয় ম্যানরে বেল্লাট্রিক্স লেস্ট্র্যাঞ্জ গ্রিফিন্ডরের তলোয়ারটি সম্পর্কে হারমাইনির স্বীকারোক্তি আদায়ের জন্য তার উপর ক্রুসিয়াটাস কার্স প্রয়োগের মাধ্যমে নির্যাতন করে। এ সময় ডব্বি হারমাইনি ও অন্যান্যদের ম্যালফয় ম্যানর থেকে উদ্ধার করে।

হ্যারি, রন ও হারমাইনি যখন গ্রিংগটস ব্যাঙ্ক থেকে হাফলপাফের কাপটি উদ্ধার করতে যায়, তখন হারমাইনি পলিজুস পোশনের মাধ্যমে বেল্লাট্রিক্সের রূপধারণ করে। সে রন ও হ্যারির সাথে হগওয়ার্টসের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে। এ সময় সে হাফলপাফের কাপ হরক্রাক্সটি বাসিলিস্কের বিশাক্ত দাঁত দিয়ে ধ্বংস করে। যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে হারমাইনি ও রন প্রথমবারের মত নিজেদের ভালবাসা প্রকাশ করে।[২২] যুদ্ধের শেষ পর্যায়ে হারমাইনি জিনি ও লুনার সাথে বেল্লাট্রিক্সের বিরুদ্ধে লড়াই করে।[২৩]

এপিলগ[সম্পাদনা]

ভলডেমর্টের পরাজয়ের উনিশ বছর পরে দেখা যায়, হারমাইনি রনকে বিয়ে করেছে এবং তাদের রোজ ও হুগো নামে দুই ছেলেমেয়ে আছে।[২৪] যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর সে হগওয়ার্টসে তার সপ্তম বর্ষে ফিরে আসে। এরপর, সে জাদু মন্ত্রণালয়ে "জাদু ক্ষমতাসম্পন্ন প্রানিদের নিয়ন্ত্রণ" বিভাগে কাজ শুরু করে এবং হাউজ-এলফদের অবস্থার উন্নয়ন ঘটায়। পরবর্তীতে সে জাদুর আইন প্রনয়ন বিভাগে যোগ দেয় এবং বিশুদ্ধ রক্তের প্রাধান্য বিশিষ্ট আইনের অনেক পরিবর্তন ঘটায়।[২৫] রাউলিং বলেছেন যে, হারমাইনি অস্ট্রেলিয়ায় তার বাবা মাকে খুঁজে পায় এবং তাদের উপর স্থাপন করা মেমোরি চার্ম অপসারণ করে।[২৬]

চলচ্চিত্রে রূপায়ন[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ অভিনেত্রী এমা ওয়াটসন সিরিজের প্রত্যেকটি চলচ্চিত্রে হারমায়োনির চরিত্রে অভিনয় করেছে। চলচ্চিত্র ছাড়াও অর্ডার অফ দ্য ফিনিক্সহাফ-ব্লাড প্রিন্স ভিডিও গেমগুলোতে হারমায়োনির জন্য ওয়াটসনের শারীরিক অবয়ব ব্যবহার করা হয়েছে। রাউলিং ব্যক্তিগতভাবে ওয়াটসনকে হারমায়োনি চরিত্রটির জন্য পছন্দ করেন। ওয়াটসন হাফ-ব্লাড প্রিন্স চলচ্চিত্রে ফিরে না আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে সে তার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে। কারণ তার কাছে মনে হয়েছে যে, দর্শকরা হারমায়োনি চরিত্রে তার পরিবর্তে অন্য কাউকে মেনে নিতে পারবে না।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Rowling, J.K., Section:Extra Stuff - Hermione Granger, jkrowling.com, সংগৃহীত 2008-09-19 
  2. ২.০ ২.১ ২.২ J K Rowling at the Edinburgh Book Festival, Sunday, August 15, 2004. Accio-quote.org Retrieved on 23 April 2007.
  3. JK Rowling's World Book Day Chat, March 4, 2004 Accio-quote.org Retrieved on 23 April 2007
  4. Fry, Stephen, interviewer: J.K. Rowling at the Royal Albert Hall, 26 June 2003 accio-quote.org, retrieved August 14, 2007
  5. Jo loathes Pansy Parkinson who represents every girl who ever teased her
  6. ৬.০ ৬.১ ৬.২ "J. K. Rowling Official Site – Section Extra Stuff – Hermione Granger"। সংগৃহীত 2007-08-14 
  7. Chamber of Secrets DVD: Interview with Steve Kloves and J.K. Rowling, February 2003 accio-quote.org.
  8. J.K. Rowling's Books That Made a Difference O, The Oprah Magazine January 2001
  9. Transcript of National Press Club author's luncheon, NPR Radio, October 20, 1999 Accio-quote.org Retrieved on 23 April 2007
  10. J K Rowling at the Edinburgh Book Festival, সংগৃহীত 2007-09-05 
  11. [HP1], chapter 16 page 278.
  12. টেমপ্লেট:HP2, chapter 6.
  13. টেমপ্লেট:HP2, chapter 18.
  14. টেমপ্লেট:HP3, chapters 12 and 13.
  15. ১৫.০ ১৫.১ টেমপ্লেট:HP3, chapters 16-22.
  16. টেমপ্লেট:HP4, chapter 23.
  17. টেমপ্লেট:HP4, chapter 37.
  18. টেমপ্লেট:HP5, chapters 31-38.
  19. টেমপ্লেট:HP6, chapter 11.
  20. টেমপ্লেট:HP6, chapter 15.
  21. টেমপ্লেট:HP6, chapter 30.
  22. টেমপ্লেট:HP7, chapter 26-36.
  23. টেমপ্লেট:HP7, chapter36.
  24. টেমপ্লেট:HP7, chapter 37.
  25. "Online Chat Transcript"Bloomsbury Publishing। 2007-07-31। সংগৃহীত 2007-08-14 
  26. Maggie Keir: Was Hermione able to find her parents and undo the memory damage
    J.K. Rowling: Yes, she brought them home straight away.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]