হানতারো নাগাওকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
টোকিওর বিজ্ঞান জাদুঘরে নাগাওকার ত্রাণ

নাগাওকা হানতারো (জাপানি ভাষায়: 長岡 半太郎, ইংরেজি ভাষায়: Nagaoka Hantarō) (১৫ই আগস্ট, ১৮৬৫ - ১১ই ডিসেম্বর, ১৯৫০) ছিলেন বিখ্যাত জাপানী পদার্থবিজ্ঞানী এবং জাপানে পদার্থবিজ্ঞান শিক্ষা ও গবেষণার অগ্রদূত। তিনি জাপানের মেইজি যুগের প্রথম দিককার একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব সেদেশে বিজ্ঞানের প্রসারে যার উল্লেখযোগ্য ভূমিকা ছিল। তিনি জার্মানির ইউনিভার্সিটি অফ মিউনিখ-এ পড়াশোনা করতে গিয়েছিলেন সেসময় মিউনিখে অধ্যয়নরত লুডভিগ বোলৎসমানের লেকচার শুনতে। তার বেশ কিছু চিঠি থেকে বোলৎসমানের শিক্ষকতা জীবন সম্পর্কে জানা যায়।[১]

তিনি ১৯০৪ সালে পরমাণুর গঠনের একটি অনুকল্প প্রস্তাব করেছিলেন যা পরে ভুল প্রমাণিত হয়েছিল। তিনি বলেছিলেন পরমাণুর গঠন শনি গ্রহ এবং তার বলয়গুলোর মত। এ থেকে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন যে, পরমাণুর কেন্দ্রে অনেক ভারী একটি নিউক্লিয়াস থাকবে যেমন বলয়গুলোর কেন্দ্রে অনেক ভারী শনি গ্রহ আছে, আর নিউক্লিয়াসের চারদিকে ইলেকট্রন স্থির-তড়িৎ বলের কারণে ঘুরতে থাকবে যেমন বলয়গুলো মহাকর্ষ বলের কারণে শনির চারদিকে ঘোরে। আধুনিক পরমাণু মডেলের অন্যতম প্রস্তাবক আর্নস্ট রাদারফোর্ড ১৯১১ সালে তার বিখ্যাত পরমাণু মডেলে এই দুটি ভবিষ্যদ্বাণীকেই সমর্থন করেছিলেন। তিনি তার গবেষণাপত্রে নাগাওকার কথা উল্লেখও করেছিলেন। কিন্তু রাদারফোর্ড এবং নাগাওকা কারও তত্ত্বই বর্তমানে আর পুরোপুরি গ্রহণযোগ্য নয়। কারণ, শনির বলয়ের কোন আধান নেই, কিন্তু ইলেকট্রনের আধান রয়েছে। নাগাওকা নিজেই অবশ্য তার ভুল বুঝতে পেরে ১৯০৮ সালে তার অনুকল্পটি বর্জন করেছিলেন।[২]

সম্মাননা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Carlo Cercignani, Politecnico di Milano, Ludwig Boltzmann The Man Who Trusted Atoms; অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস। প্রথম প্রকাশ - ১৯৯৮।
  2. B. Bryson (2003)। A Short History of Nearly EverythingBroadway Booksআইএসবিএন 0767908171