সূত্র পিটক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

সূত্র পিটক বৌদ্ধ ধর্মের ত্রিপিটকের তিনটি ভাগের মধ্যে একটি। এই পিটক পালি ভাষায় রচিত থেরবাদ তিপিটকের সুত্ত পিটকের অনুরূপ।

উৎস[সম্পাদনা]

সূত্র শব্দের অর্থ সত্যের প্রকাশ । সেই সত্য হলো তথাগত গৌতম বুদ্ধ সম্বোধির প্রভাবে জ্ঞাত সত্যের প্রকাশ। অন্যভাবে বলা যায় চতুরার্য সত্যের সূচনা করে বলেই সূত্র। [১]

বিশ্লেষণ[সম্পাদনা]

যে কথা স্বয়ং বুদ্ধ বলেছেন " চারি আর্য্য সত্য বর্জিত কোন ধর্ম নেই।" সুতরাং - দুঃখ , দুঃখের কারণ (সমুদয়) , দুঃখ নিরোধ ও দুঃখ নিরোধের উপায় - এই চারি সত্যের ব্যখামুলক প্রকাশ বুদ্ধ বচনের যেই অংশে নিহিত তাই সূত্র। সূত্র জাতীয় বুদ্ধ বচন সমুহ ত্রিপিটকের যে বিভাগে একত্রীকরণ করা হয়েছে তাকে সুত্ত পিটক বলে।Prof. Winternitz লিখেছেন " the suttapitak is our mose reliable source for the Dhamma , the religion of Buddha and his earliest disciples" [২]

আগম[সম্পাদনা]

সূত্র পিটক পাঁচটি আগমে বিভক্ত। এই পাঁচটি আগম হল -

নিকায়[সম্পাদনা]

থেরবাদ সুত্ত পিটক পাঁচটি নিকায়ে বিভক্ত। এই নিকায় গুলি সূত্র পিটকের পাঁচটি আগমের অনুরূপ। এই পাঁচটি নিকায় হল-

  1. খুদ্দকপথ
  2. ধম্মপদ
  3. উদান
  4. ইতিবুত্তক
  5. সত্তনিপাত
  6. বিমান বুত্থু
  7. পেত বুত্থু
  8. থের গাথা
  9. থেরী গাথা
  10. জাতক
  11. নিদ্দেশ
  12. পতিসম্ভিদমগ্গ
  13. অপদান
  14. বুদ্ধবংস
  15. চরিয়া পিটক
  16. নেত্তিপকরন
  17. পেটকোপদেশ
  18. মিলিন্দ পহ্ন

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. DR. Shukomal Barua and Suman Kanti Barua - ত্রিপিটক পরিচিতি , Page 24 , Chapter - Sutro Pitok. Bangla Academy December 2000.
  2. M Winternitz: A History of Indian Literature , Vol 11 page 34