সিক্কুজি প্রসন্ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সিক্কুজি প্রসন্ন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম সিক্কুজি প্রসন্ন
জন্ম (১৯৮৫-০৬-২৭) ২৭ জুন ১৯৮৫ (বয়স ২৯)
বালাপিটিয়া, শ্রীলঙ্কা
ব্যাটিংয়ের ধরণ ডানহাতি ব্যাটসম্যান
বোলিংয়ের ধরণ লেগ ব্রেক বোলার
ভূমিকা অল রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট (ক্যাপ ১১৪) ৮ সেপ্টেম্বর ২০১১ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই অভিষেক ২০ আগস্ট ২০১১ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই ২২ ডিসেম্বর ২০১৩ বনাম পাকিস্তান
কর্মজীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি লিস্ট-এ
ম্যাচ সংখ্যা ১২ ৭২ ৯১
রানের সংখ্যা ১০১ ২,০৯৪ ১,৯৩
ব্যাটিং গড় ৫.০০ ১২.৬২ ২০.৩৩ ১৬.৩১
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/৩ ০/২
সর্বোচ্চ রান ৪২ ৮১ ৯২*
বল করেছে ১৩৮ ৫৯৬ ১৩,৫৬৭ ৪,২১২
উইকেট ১১ ৩৭৪ ১৩০
বোলিং গড় - ৪৫.০৯ ১৯.৯৯ ২২.৪৫
ইনিংসে ৫ উইকেট - ৩০
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং - ৩/৩২ ৮/৫৯ ৬/২৩
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/০ ১/০ ৪১/০ ৩১/০
উত্স: ক্রিকেটআর্কাইভ, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৩

সিক্কুজি প্রসন্ন (জন্ম: ২৭ জুন, ১৯৮৫) বালাপিটিয়ায় জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারশ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম খেলোয়াড় প্রসন্নের টেস্ট অভিষেক ঘটে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে।[১] ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১১ তারিখে পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় তিনি মাত্র ৫ রান সংগ্রহ করেছিলেন। ২৩ ওভার বোলিং করেও কোন উইকেট লাভ করতে সক্ষম হননি। খেলায় তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার হিসেবে রয়েছেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শী প্রসন্ন লেগ ব্রেক বোলিং করে থাকেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে কন্দুরাতা, শ্রীলঙ্কা আর্মি দলের হয়ে খেলছেন। ৫ ফুট ৯ ইঞ্চি উচ্চতাবিশিষ্ট প্রসন্ন বালাপিটিয়ার রিওয়াথা কলেজে পড়াশোনা করেছেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০৬ সালে ২১ বছর বয়সে শ্রীলঙ্কা আর্মি দলে লেগব্রেক বোলার হিসেবে অন্তর্ভূক্ত হন। লঙ্কান ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে ঘরোয়া একদিনের খেলায় ১০ ওভার বোলিং করে ২৩ রান দিয়ে ৩ উইকেট লাভ করেন। পরবর্তী পাঁচ বছরে লিস্ট এ ক্রিকেটে ৪৫ খেলায় ১৮.৩৮ রান গড়ে ৭৩ উইকেট লাভ করেন। ২০১১ সালে শ্রীলঙ্কা এ দলের হয়ে ইংল্যান্ড সফর করেন ও ইংল্যান্ড লায়ন্স দলের বিপক্ষে উদ্বোধনী বোলিংয়ে নেমে ছয় উইকেট লাভ করেন। বিষয়টি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের নির্বাচকমণ্ডলীর দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হয় ও তাকে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শেষ দুইটি একদিনের খেলায় অংশগ্রহণের জন্য শ্রীলঙ্কায় ডেকে আনা হয়। এভাবেই তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে খেলোয়াড়ী জীবনের সূ্ত্রপাত ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Coverdale, Brydon। "Sri Lanka bat, Prasanna in for injured Herath"। ESPNcricinfo। সংগৃহীত 8 September 2011 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]