সপ্তর্ষি মণ্ডল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Ursa major
তারামণ্ডল
Ursa major
সংক্ষিপ্ত রূপ UMa
জেনিটিভ Ursae Majoris
বিষুবাংশ ১০.৬৭' ঘণ্টা
বিষুবলম্ব ৫৫.৩৮°°
আয়তন ১২৮০ বর্গডিগ্রি (৩য়)
প্রধান তারা
বহির্গ্রহবিশিষ্ট তারা , ৪
৩.০০m-এর অধিক
তারা উজ্জ্বল
১০.০০ pc (৩২.৬২ ly) মধ্যে তারা ২১
উজ্জ্বলতম তারা ε UMa (Alioth) (77 UMa) (১.৭m)
নিকটতম তারা ξ UMa (Alula Australis) (53 UMa)
ly,  pc)
মেসিয়ার বস্তু
উল্কাবৃষ্টি
সীমান্তবর্তী তারামণ্ডল
+৯০° ও −৩০° অক্ষাংশের মাঝে দৃশ্যমান।
এপ্রিল মাসে রাত ৯ টায় সবচেয়ে ভাল দেখায়।
The Big Dipper

তারাসমূহ[সম্পাদনা]

সপ্তর্ষিমন্ডল সাতটি তারার সমন্বয়ে গঠিত নক্ষত্রপুঞ্জ। উপমাহাদেশের জ্যোতির্বিদগণ সাত জন ঋষির নামে এই সাতটি তারার নাম করণ করেন তাই এই নক্ষত্রপুঞ্জ সপ্তর্ষিমন্ডল নামে পরিচিত হয়। সাতটি ঋষির নাম:

  1. ক্রতু
  2. পুলহ
  3. পুলস্ত্য
  4. অত্রি
  5. অঙ্গিরা
  6. বশিষ্ঠ
  7. মরীচি

অবস্থান[সম্পাদনা]

সপ্তর্ষিমন্ডল সারা বছর ধ্রুবতারার চারদিকে ঘোরে। সপ্তর্ষিমন্ডলের প্রথম দু'টি (পুলহ -->ক্রতু) তারাকে যোগ করে সরলরেখা কল্পনা করলে ঐ সরল রেখা ধ্রুবতারার দিকে নির্দেশ করে, এবং রেখাটিকে বিপরীতে চালিত করলে সিংহ রাশিতে নির্দেশ করে।

এতে বশিষ্ঠ এর পাশে ছোট একটি তারা দেখা যায়, নাম অরুন্ধতি। অরুন্ধতি ছিলেন ঋষি বশিষ্ঠের স্ত্রী।

নামকরণ[সম্পাদনা]

এ মন্ডলীর ইংরেজি নাম ursa major। এর অর্থ বৃহৎ ভল্লুক। গ্রীকরা ভারতিয়দের চেয়ে অনেক বেশি তারা দেখেছিলেন, এবং তাকে ভল্লুক এর মত মনে হওয়ায় এমন নাম। কিন্তু ভারতিয়রা সাতটি তারা দেখেন প্রশ্নবোধকের আকৃতিতে। তাই এমন নাম দেন।