সঞ্চালন বিলম্ব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

সঞ্চালন বিলম্ব একটি প্রযুক্তিগত শব্দ। বিভিন্ন ক্ষেত্রে এর বিভিন্ন ব্যবহার রয়েছে। এর সাথে সম্পর্ক রয়েছে ইলেকট্রনিক্সের, নেটওয়ার্কিং এবং পদার্থবিদ্যার। বস্তুত কোন কিছুর নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌছানোর জন্য যে সময় লাগে তাকেই সঞ্চালন বিলম্ব বলা হয়।

নেটওয়ার্কিং[সম্পাদনা]

কম্পিউটার নেটওয়ার্কে কোন প্রধান সংকেতকে প্রেরক যন্ত্র হতে গ্রাহক যন্ত্রে পৌছতে যে সময় লাগে তার পরিমাণ, অর্থাৎ সময়ের পরিমাণই হল সঞ্চালন বিলম্ব। এটি কোন নির্দিষ্ট মাধ্যমের মাধ্যম দৈর্ঘ্য (Link Length) ও সঞ্চালন বেগের অনুপাতের মাধ্যমে গণনা করা যায়।

সঞ্চালন বিলম্ব সমান d/s; d হল দূরত্ব, s হল তরঙ্গ সঞ্চালন বেগ। তারহীন সংযোগের ক্ষেত্রে s=c; c হল আলোর বেগ। তামার তারের ক্ষেত্রে s সাধারণত .৫৯c থেকে .৭৭c পর্যন্ত হয়।[১][২] উচ্চগতি সম্পন্ন কম্পিউটারের উন্নতির পথে এটি একটি প্রধান বাঁধা। একে আইসি ক্ষেত্রে "ইন্টারকানেক্ট বটলনেক]] বলা হয়।

ইলেকট্রনিক্স[সম্পাদনা]

A full adder has an overall gate delay of 3 logic gates from the inputs A and B to the carry output Cout shown in red

পদার্থবিজ্ঞান[সম্পাদনা]

পদার্থবিজ্ঞানে, মূলত তড়িতচুম্বকত্বে সঞ্চালন বিলম্ব হল কোন সংকেতকে এর গন্তব্যে পৌছতে যে সময় লাগে তার দৈর্ঘ্য। তড়িৎ সংকেতের ক্ষেত্রে, কোন সংকেতকে তারের মধ্য দিয়ে যেতে যে সময় লাগে, তাই সঞ্চালন বিলম্ব। আরো দেখুনঃ সঞ্চালন বেগ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "What is propagation delay? (Ethernet Physical Layer)"Ethernet FAQ। 2010-10-21। সংগৃহীত 2010-11-09 
  2. "Propagation Delay and Its Relationship to Maximum Cable Length"Networking Glossary। সংগৃহীত 2010-11-09