শিকোরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Bushweed
Flueggea leucopyrus Bra54.png
Flueggea leucopyrus
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Plantae
(শ্রেণীবিহীন): Angiosperms
(শ্রেণীবিহীন): Eudicots
(শ্রেণীবিহীন): Rosids
বর্গ: Malpighiales
পরিবার: Phyllanthaceae
গোত্র: Phyllantheae
উপগোত্র: Flueggeinae
গণ: শিকোরি
Willd.
প্রজাতি

পাঠ্য দেখুন

শিকোরি (ইংরেজি: Chinese Waterberry, Snowberry, Common Bushweed) (বৈজ্ঞানিক নাম:Flueggea Virosa) যা খাক্রা বা কাউকরা নামেও পরিচিত দুধ-সাদা রঙের ফল। এরা মিশ্র চিরসবুজ বনের গুল্ম । আবাস পাহাড়, জলার ধার ও নদীপাড়।[১]

বিস্তৃতি[সম্পাদনা]

আফ্রিকাএশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে বিস্তৃত।[১]

বিবরণ[সম্পাদনা]

এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ এ ফল খায়। ফলটি পাখ-পাখালিরও প্রিয়। পাতা প্রজাপতির প্রিয়। কাউকরা পত্রমোচি গাছ। স্ত্রী ও পুরুষ গাছ আলাদা। গুল্ম হলেও কখনো কখনো চার থেকে পাঁচ মিটার পর্যন্ত উঁচু হয়। শাখা কোনাকৃতি। তবে নতুন অবস্থায় লালাভ বাদামি, মসৃণ এবং ক্রমশ গাঢ়, বায়ুরন্ধ্রযুক্ত। পত্র সোপপত্রিক, উপপত্র ভল্লাকার। এক থেকে আড়াই মিলিমিটার লম্বা। আগা চোখা, অর্ধ-অখণ্ড, ঝিল্লিময় ও আশুপাতি।এর বৃন্ত দুই থেকে আট মিলিমিটার লম্বা, সরু পক্ষল। পত্রফলক উপবৃত্তাকার, দীর্ঘায়ত। পুষ্প কাক্ষিক, শীর্ষ মঞ্জরির গুচ্ছে সন্নিবিষ্ট, হলুদাভ, সুগন্ধি। পুরুষ ফুলের বৃন্ত সরু, তিন থেকে ছয় মিলিমিটার লম্বা। স্ত্রী ফুলের বৃন্ত দেড় থেকে ১২ মিলিমিটার লম্বা। পরাগায়নের কাজটি করে বিভিন্ন পোকা ও মৌমাছি। ফল স্বাদে মিষ্টি, অর্ধগোলাকার মসৃণ সবুজ বা সাদা। ফুল ও ফলের মৌসুম এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর। [১]

ব্যবহার[সম্পাদনা]

সাধারণত বেড়া বানানোর কাজে লাগে। গাছের শিকড়, বাকল ও পাতা সিফিলিস, গনোরিয়া, চর্মরোগ ও কৃমি সমস্যায় ব্যবহার করা হয়। পাতা ও বাকলের নির্যাস শক্তিবর্ধনে উপকারী। কাঠ খুঁটি, লাঠি ও কয়লা তৈরিতে ব্যবহার্য। কম্বোডিয়ায় এ গাছের বাকল দিয়ে মাছ অচেতন করা হয়।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ ১.২ ১.৩ বুনোফল শিকোরি, মোকারম হোসেন, দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ০৭-১১-২০১২ খ্রিস্টাব্দ।

টেমপ্লেট:Phyllanthaceae-stub