লোলা আংগ্লাডা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
লোলা আংগ্লাডা
Lola Anglada.png
লোলা আংগ্লাডার পোর্ট্রেট
জন্ম সি. ১৮৯৩
বার্সেলোনা
মৃত্যু ১৯৮৪
তিয়ানা
শিক্ষা লা লোৎজা দ্য বার্সেলোনা


লোলা আংগ্লাডা আই সারিয়েরা (কাতালান উচ্চারণ: [ˈɫɔɫ əŋˈɡɫaðə]; ১৮৯৩ বার্সেলোনা - ১৯৮৪ তিয়ানা, বার্সেলোনার প্রদেশ) একজন স্প্যানিশ লেখক এবং অঙ্কনশিল্পী ছিলেন।[১][২]

আত্মজীবনী[সম্পাদনা]

তিয়ানায় শক্তিশালি শিকড়াবদ্ধ হয়ে বার্সেলোনা পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছেন আংগ্লাডা।[৩] তিনি লা লোৎজা দ্য বার্সেলোনায় পড়াশোনা করেন জোয়ান লাভেরিয়াস ও এন্টনি উটরিল্লোর সাথে যারা তাঁকে সালা পারেস এবং সাপ্তাহিক ম্যাগাজন কু-কাট!-এ প্রথম আঁকা প্রকাশ করতে সহায়তা করেন। এরপর একাডেমিতে (ফ্রান্সিস দ'এ. গালি) প্রবেশ করেন। সেখানে জোয়ান মিরোক্রিস্টোফোল রিকার্ড-এর সাথে দেখা হয় এবং ব্যক্তিগতভাবে এবং ঘনিষ্ঠভাবে বন্ধুত্ব হয়[১]

বিশ্বযুদ্ধর শেষে আংগ্লাডা স্কলারশিপে (ধন্যবাদ প্যারিস সরকার)-এর আওতায় প্যারিসে। ভ্রমণ করেন। বেশকিছু প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের সাথে কথা বলে তিনি ফ্রান্সিস মেসিয়া বা জোসেপ ক্লারার প্রতিষ্ঠানে যুক্ত হন। কাতালীয় ঘটনা এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের বশবর্তী হয়ে তিনি অ্যামনেস্টি নামক একটি প্রতিষ্ঠান খোলেন, রাজা স্পেনের ত্রয়োদশ আলফোনসোর বিরুদ্ধে গারাফ প্লট- অংশগ্রহণকারীদের জন্য ক্ষমা অনুরোধের আয়োজন করে।

১৮৭৭ সালে পরসিলেইন পুতুল, ভিন্টেজ পরিহিত। লোলা আংগ্লাডা পুতুল ও খেলনা সংগ্রহ। কান লোপিস রোমান্টিক জাদুঘর, সিতজেস, বার্সেলোনা

স্প্যানিশ বেসামরিক যুদ্ধকালীন তিনি ইউজিটিতে যোগদান করেন এবং পুলিশ স্টেশন সম্পর্কিত ভুল তথ্য প্রচারে সহায়তা করেন, এরপর যা স্প্যানিশ বেসামরিক যুদ্ধ (১৯৩৭) হিসেবে প্রকাশিত হয় এবং সম্ভবত এটি সবচেয়ে উল্লেখজনক এবং স্বীকৃত টেলঃ দ্য মান্থ অফ পেটিট টটস্‌। যুদ্ধশেষে তিনি তিয়ানায়, বার্সেলোনার নিকটবর্তী মারেসমের একটি শহরে একটি পারিবারিক রিসোর্টে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। এখানেই তিনি ১২ই সেপ্টেম্বর, ১৯৮৪ সালে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন[১]

নান্দনিক কাজ[সম্পাদনা]

দুর্দান্ত আঁকার কৌশল, আকর্ষণীয় সংবেদনশীলতা এবং একজন শক্তিশালী কাতালানিস্ট হিসেবে লোলা আংগ্লাডাকে বিংশ শতকের ক্লাসিকাল কাতালান অঙ্কনশিল্পীদের মধ্যে অন্যতম শ্রেষ্ঠ স্থানের অধিকারী করে দিয়েছে। যুদ্ধপূর্ব সময়ে তিনিই শ্রেষ্ঠ লেখক ছিলেন।

তিনি শিশুদের বিভিন্নম্যাগাজিন যেমনঃ এন জোর্ডি, এন পাতুফেত, লা নুরি (আংগ্লাডা নিজেই প্রতিষ্ঠা করেন) এবং লা মাইনাদা। তিনি যেসব চরিত্র নির্মাণ করেন তাঁর মধ্যে "এল মেস পেতিত দ্য তোতস" ("সকলের মধ্যে ছোট") হল ঐসময়ের কাতালান জাতীয় পরিচয়ের একটি নিদর্শন।

পুরষ্কার ও সম্মান[সম্পাদনা]

১৯৭৫ সালে তাঁকে ডিপুটাসিও দ্য বার্সেলোনা সাংস্কৃতিক প্রতিভা পুরষ্কার দেয়া হয়। ১৯৮০ সালে আলংকারিক কলার প্রচারের জন্য এবং ১৯৮১ সালে ক্রিউ দ্য সান্ত জোর্দি (জেনেরালিটাট দ্য কাতালুনিয়া কর্তৃক দেয়া হয়) লাভ করেন। তিনি তাঁর পুতুলের সংগ্রহ ডিপুটাসিও দ্য বার্সেলোনাকে দান করেন যেগুলো তারা সিটজেসের রোমান্টিক জাদুঘরে দান করেন,

তিয়ানায় তিনি একটি কণ্যা দত্তক নেন এবং তাঁর নামানুসারে তাঁর গ্রামে একটি প্রাইভেট প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপিত হত। বাদালোনায় আরো নানা শিক্ষামূলক প্রতিষ্ঠান (যেমনঃ এল'হসপিতালেট দ্য লোব্রেগাট, মার্টোরেল, এসপ্লাগস দ্য লোব্রেগেট, ভিলাফ্রান্সা দেল পেনেদেসলোরেট দ্য মার) আছে যা লোলা আংগ্লাডার নামাংকৃত।[৪]

১৯৮৪ থেকে ২০০৩ সালের মধ্যে তিনি ছোটগল্পর লেখক ছেলে-মেয়েদের জন্য পুরষ্কার (দ্য প্রাইজ লোলা আংগ্লাডা অফ ব্রিগ স্টোরিস ফর বয়েজ এন্ড গার্লস)-এর সূত্রপাত করেন। কাইজা দ্য তেরেসা এবং তেরেসার শহরের কাউন্সিল এই পুরষ্কারের আহবান করেন।

তাঁর ব্যক্তিগত সংগ্রহ বার্সেলোনার ছবি জাদুঘর-এ সংগৃহীত আছে।

কাজ[সম্পাদনা]

  • কন্টেস দেল প্যারাদিস, (১৯২০)
  • এন পেরেত, (১৯২৮), তাঁর নিজের অঙ্কিত।
  • মারগারিডা, (১৯২৯) তাঁর নিজের অঙ্কিত।
  • মনসেনর লিয়াংগার্ডাইক্স, (১৯২৯)
  • নার্সিস, (১৯৩০)
  • এল মেস পেতিত দ্য তোতস, (১৯৩৭) তাঁর নিজের অঙ্কিত।
  • লাঁ বার্সেলোনা দেলস নোস্ত্রেস এভিস, (১৯৪৯)
  • লাঁ মেভা কাসা আই এল মেউ জার্দি, (১৯৫৮)
  • মার্টিনেট, (১৯৬০) [৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]