রুডলফীয় তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রুডলফীয় তালিকার শুরুর পৃষ্ঠায় এই বিখ্যাত ছবিটি স্থান পেয়েছিল। এতে হিপ্পারকোস, টলেমি, কোপের্নিকুস এবং ট্যুকো ব্রাহের প্রতি সম্মান জানানো হয়েছে।

রুডলফীয় তালিকা (ইংরেজি ভাষায়: Rudolphine Tables, লাতিন ভাষায়: Tabulae Rudolphinae) তারা এবং গ্রহদের অবস্থানের তালিকা যা জার্মান জ্যোতির্বিদ ইয়োহানেস কেপলার ডেনীয় পর্যবেক্ষণমূলক জ্যোতির্বিদ ট্যুকো ব্রাহের উপাত্তের উপর ভিত্তি করে ১৬২৭ সালে প্রকাশ করেছিলেন। ১৬০১ সালের সেপ্টেম্বরে ট্যুকো ব্রাহে পুণ্য রোমান সম্রাট রুডলফ ২-এর কাছে যে নতুন প্রকল্পের প্রস্তাব রেখেছিলেন তার সহযোগী হিসেবে কেপলারকে একটি চাকরি জুটিয়ে দেন। এই প্রকল্পের কাজ ছিল কোপের্নিকুসোর উপাত্তের উপর ভিত্তি করে এরাসমুস রাইনহোল্ডের করা প্রুটেনীয় জ্যোতিষ্ক তালিকাকে প্রতিস্থাপন করার জন্য একটি নতুন তালিকা প্রণয়ন। ট্যুকোর উপাত্তের ভিত্তিতে কেপলার নতুন তালিকাটি প্রণয়ন করেন, রুডলফ ২-এর সম্মানে যার নাম রাখা হয় রুডলফীয় তালিকা।[১]

ট্যুকো সে সময়কার সবচেয়ে নিখুঁত জ্যোতির্বৈজ্ঞানিক পর্যবেক্ষণের দাবীদার ছিলেন। তিনি চেয়েছিলেন তার উপাত্তের ভিত্তিতে একটি নতুন তারা তালিকা হোক। কেপলার এই তালিকার তারা এবং গ্রহগুলোর অবস্থানের গণনা করেন ট্যুকোর উপাত্ত, কোপের্নিকুসের সৌরকেন্দ্রিক মতবাদ এবং নিজের গ্রহদের উপবৃত্তীয় কক্ষপথের মডেল একসাথে করে। পাশাপাশি সে সময় গণিতের লগারিদম ব্যবস্থা গড়ে ওঠার কারণে হিসাবে ভুলের পরিমাণ কমে আসে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Caspar, Kepler, pp. 111–22.