রুটা মেইলুটাইট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রুটা মেইলুটাইট

২০১২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে মেইলুটাইট
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম রুটা মেইলুটাইট
জাতীয়তা  লিথুয়ানিয়া
জন্ম (১৯৯৭-০৩-১৯) ১৯ মার্চ ১৯৯৭ (বয়স ১৭)
কাউনাস, লিথুয়ানিয়া
উচ্চতা ১.৭২ মি (৫ ফু ৮ ইঞ্চি)
ওজন ৬৪ কেজি (১৪১ পা)
ক্রীড়া
ক্রীড়া সাঁতার
সট্রোক ব্রেস্টস্ট্রোক, ফ্রিস্টাইল
ক্লাব প্লাইমাউথ লিয়েন্ডার
প্রশিক্ষক জন রাড

রুটা মেইলুটাইট (আইপিএ: [ruːˈt̪ɐ mʲɛɪɫʊˈt̪ʲîːt̪ʲeː]; জন্ম: ১৯ মার্চ, ১৯৯৭) কাউনাসে জন্মগ্রহণকারী লিথুয়ানিয়ার বিখ্যাত সাঁতারু[১] পনের বছর বয়সেই তিনি লিথুয়ানিয়ার প্রমিলা সাঁতারে এগারোবার রেকর্ড ভঙ্গ করেন।[২] ২০১১ সালে তুরস্কের ত্রাবজোনে অনুষ্ঠিত ইউরোপীয় যুব গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক উৎসবে ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে স্বর্ণপদক, ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে রৌপ্যপদক ও ১০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ব্রোঞ্জপদক জয় করেন। লন্ডনে অনুষ্ঠিত ২০১২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে মেইলুটাইট প্রমিলাদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে ১:০৫.৪৭ সময় নিয়ে স্বর্ণপদক লাভ করেন।[৩][৪][৫][৬] এরফলে তিনি লিথুয়ানিয়ার সর্বকনিষ্ঠ অলিম্পিক স্বর্ণপদক জয়ী ক্রীড়াবিদের মর্যাদা লাভ করেন। সেমি-ফাইনালে তিনি ১:০৫.২১ সময় নিয়ে ইউরোপীয় রেকর্ড ভঙ্গ করেছিলেন। ২০১৩ সালে তিনি ০.০১ সেকেন্ড সময়ের ব্যবধানে নিজ ইউরোপীয় রেকর্ড ভেঙ্গে ফেলেন।[৭] ২০১৩ সালে বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত বিশ্ব সাঁতার চ্যাম্পিয়নশীপে ১০০ ও ৫০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রেকে নিজ সেরা রেকর্ড ভাঙ্গেন।[৮] রুটা মেইলুটাইট প্লাইমাউথ কলেজে সাঁতারে বৃত্তিধারী এবং প্লাইমাউথ লিয়েন্ডার সুইমিং পরিকল্পনায় কোচ জন রুডের কাছে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।[৯]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

লিথুয়ানিয়ার কাউনাসে জন্মগ্রহণকারী রুটা মেইলুটাইটের বাবা-মা হচ্ছেন সাউলিয়াস মেইলুটিস ও ইনগ্রিদা মেইলুটাইন। শৈশবেই গাড়ী দুর্ঘটনায় মাকে হারান মেইলুটাইট।[১০] মারগিরিস (২০) ও মিন্ডাগাস (২৪) নামে তার দুই বড় ভাই রয়েছে।[১০] সাত বছর বয়সে সাঁতার শিখতে শুরু করেন তিনি।[১১] বাবা-ভাইয়ের সাথে ১৩ বছর বয়সে কাউনাস থেকে প্লাইমাউথে বসবাস করছেন।

ক্রীড়া জীবন[সম্পাদনা]

২০১০ সালে ৫০ মিটার ও ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রেকে তিনি লিথুয়ানিয়ার সাঁতারের রেকর্ড ভেঙ্গে ফেলেন। ২০১২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে মেইলুটাইট লিথুয়ানিয়ার ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ সাঁতারু হিসেবে অংশগ্রহণের সুযোগ পান। ১:০৫.৫৬ সময়ে তিনি প্রমিলাদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে প্রথম স্থান অধিকার করেন ও লিথুয়ানিয়ার পক্ষে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেন। সেমি-ফাইনালেও পূর্বের রেকর্ড ভেঙ্গে ফেলেন ১:০৫.২১ সময় নিয়ে এবং নতুন ইউরোপীয় রেকর্ড সৃষ্টি করেন। ফাইনালে ১:০৫.৪৭ সময়ে স্বর্ণপদক জয় করেন।[৪][১২] ১০০ মিটার[১৩] ও ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে অংশ নিয়ে সেমি-ফাইনালে উঠতে না পারলেও নতুন জাতীয় রেকর্ড গড়েন ২৫.৫৫ সেকেন্ডে।[১৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

রেকর্ড
পূর্বসূরী
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জেসিকা হার্ডি
প্রমিলাদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে
বিশ্বরেকর্ডধারী
(লং কোর্স)

২৯ জুলাই, ২০১৩ – বর্তমান


উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি
পূর্বসূরী
রাশিয়া জুলিয়া ইফিমোভা
প্রমিলাদের ৫০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে
ইউরোপীয় রেকর্ডধারী
(লং কোর্স)

১১ জুন, ২০১৩ – বর্তমান


উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি
পূর্বসূরী
রাশিয়া জুলিয়া ইফিমোভা
প্রমিলাদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে
ইউরোপীয় রেকর্ডধারী
(লং কোর্স)

২৯ জুলাই, ২০১২ – ৮ জুন, ২০১৩
৮ জুন, ২০১৩ – বর্তমান


উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি
পূর্বসূরী
জার্মানি জেন শাফার
প্রমিলাদের ৫০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে
ইউরোপীয় রেকর্ডধারী
(শর্ট কোর্স)

১২ ডিসেম্বর, ২০১২ – বর্তমান


উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি
পূর্বসূরী
ডেনমার্ক রিকি মোলার-পেডারসেন
প্রমিলাদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে
ইউরোপীয় রেকর্ডধারী
(শর্ট কোর্স)

১৫ ডিসেম্বর, ২০১২ – বর্তমান


উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি
পুরস্কার
পূর্বসূরী
পোল্যান্ড তোবিয়াজ লিস
বর্ষসেরা ইউরোপীয় তরুন ক্রীড়াবিদ
২০১২


উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি
পূর্বসূরী
লিথুয়ানিয়া লরা আসাদাউস্কাইত
বর্ষসেরা লিথুয়ানীয় ক্রীড়াবিদ
২০১২


উত্তরসূরী
হয়নি