মিলিয়ন ডলার বেবি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মিলিয়ন ডলার বেবি
Million Dollar Baby poster.jpg
পরিচালক ক্লিন্ট ইস্টউড
প্রযোজক ক্লিন্ট ইস্টউড
অ্যালবার্ট এস রুডি
টম রোজেনবার্গ
রচয়িতা এফ এক্স টুল (গল্প)
পল হ্যাগিস (চিত্রনাট্য)
বর্ণনাকারী মরগ্যান ফ্রিম্যান
সুরকার ক্লিন্ট ইস্টউড
চিত্রগ্রাহক টম স্টার্ন
সম্পাদক জোল কক্স
বণ্টনকারী যুক্তরাষ্ট্র
ওয়ার্নার ব্রাদার্স
যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে
লেকশোর এন্টারটেইনমেন্ট
মুক্তি ১৫ই ডিসেম্বর, ২০০৪
দৈর্ঘ্য ১৩২ মিনিট
ভাষা ইংরেজি
নির্মাণব্যয় ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার
আয় ২১৬,৭৬৩,৬৪৬

মিলিয়ন ডলার বেবি (ইংরেজি ভাষায়: Million Dollar Baby) ২০০৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মার্কিন নাটকীয় চলচ্চিত্র। ক্লিন্ট ইস্টউড পরিচালিত এই ছবির মূল চরিত্রগুলোতে অভিনয় করেছেন ইস্টউড নিজে, হিলারি সোয়াংক এবং মরগ্যান ফ্রিম্যান। সেরা ছবিসহ মোট চারটি ক্ষেত্রে মিলিয়ন ডলার বেবি একাডেমি পুরস্কার অর্জন করে। এফ এক্স টুলের যে গল্প থেকে সিনেমাটি হয়েছে তার নাম "রোপ বার্নস"। অবশ্য ছবি হওয়ার পর থেকে গল্পটিও মিলিয়ন ডলার বেবি নামে প্রকাশিত হচ্ছে।

কাহিনী সূ্ত্র[সম্পাদনা]

ম্যাগি ফিৎজারেল্ডের ছোটবেলা থেকেই বক্সার হওয়ার স্বপ্ন। কিন্তু দরিদ্র পরিবারে জন্মানোর কারণে ভাল বক্সিং প্রশিক্ষণ তো দূরের কথা, ঠিকমত পড়াশোনাও করতে পারেনি। এরই মধ্যে তার বয়স হয়ে গেছে ৩৩। এক বক্সিং প্রতিযোগিতায় সে প্রশিক্ষক ফ্র্যাংক-কে দেখে। ফ্র্যাংক মেয়েদের প্রশিক্ষণ দেয় না জেনেও সে তার কাছে যায়, প্রশিক্ষণের আশায়। মেয়েটিকে দেখে এডির মায়া হয়। এডির উৎসাহ দেখে ফ্র্যাংক ম্যাগিকে শেখাতে শুরু করে। অল্প সময়েই ম্যাগি বিখ্যাত বক্সার হয়ে উঠে। ফ্র্যাংক সহজে তার কোন বক্সারকে টাইটেলের জন্য খেলতে দেয় না। কিন্তু ম্যাগিকে টাইটেলের জন্য খেলার অনুমতি দেয়। টাইটেল খেলতে গিয়েই গুরুতর আহত হয় ম্যাগি। বেশ কটি হাড় ভেঙে একেবারে পঙ্গু হয়ে যায়। মৃত্যুর চেয়েও বেশি কষ্ট হতে থাকে তার। তারপরও ডাক্তাররা বাঁচানোর চেষ্টা করতে থাকে। ম্যাগি ফ্র্যাংক-কে অনুরোধ করে তাকে মেরে ফেলার জন্য। ফ্র্যাংক কোনভাবেই পারছিল না। কিন্তু ম্যাগি নিজের জিহ্বা চিবিয়ে খেয়ে ফেলার চেষ্টা করার পর অবশেষে ফ্র্যাংক রাজি হয়। তিল তিল করে গড়ে তোলা মেয়েটিকে নিজের হাতে হত্যা করে। এই মৃত্যুর দায় থেকে মুক্তির আশায় প্রায়শ্চিত্তের পথ বেছে নেয় সে। সিনেমার পুরো কাহিনীটি আসলে ফ্র্যাংকের মেয়ের (যে ফ্র্যাংককে পছন্দ করতো না) কাছে লেখা এডির একটি চিঠি। তাই সিনেমার বর্ণনাকারী এডি।

চরিত্রসমূহ[সম্পাদনা]

প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

অধিকাংশ সমালোচকই মিলিয়ন ডলার বেবির প্রশংসা করেছেন। রটেন টম্যাটোস-এ রেটিং ৯১%। মেটাক্রিটিক রেটিং ৮৬%। মেটাক্রিটিকে দর্শকরা ১০ এর মধ্যে ৭.৮ রেটিং দিয়েছেন। আইএমডিবি-তে রেটিং ৮.২।

শিকাগো সান-টাইম্‌সের রজার ইবার্ট একে মাস্টারপিসের মর্যাদা দিয়েছেন এবং ২০০৪ এর সেরা ছবি হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। নিউ ইয়র্ক টাইম্‌সের ড্যানা স্টিভেন্স বলেছেন, "With its careful, unassuming naturalism, its visual thrift and its emotional directness, Million Dollar Baby feels at once contemporary and classical, a work of utter mastery that at the same time has nothing in particular to prove."।

পুরস্কারসমূহ[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]