কেপ ভার্দ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(ভের্দি অন্তরীপ থেকে ঘুরে এসেছে)
República de Cabo Verde
কেপ ভার্দ প্রজাতন্ত্র
পতাকা জাতীয় প্রতীক
জাতীয় সঙ্গীত
Cântico da Liberdade
স্বাধীনতার গান
রাজধানী প্রিয়া
১৪°৫৫′ উত্তর ২৩°৩১′ পশ্চিম / ১৪.৯১৭° উত্তর ২৩.৫১৭° পশ্চিম / 14.917; -23.517
বৃহত্তম শহর রাজধানী
রাষ্ট্রীয় ভাষাসমূহ পর্তুগিজ
স্বীকৃত আঞ্চলিক ভাষাসমূহ কেপ ভার্দেয়ান ক্রেওল
সরকার প্রজাতন্ত্র
 -  রাষ্ট্রপতি Pedro Pires
 -  প্রধানমন্ত্রী José Maria Neves
স্বাধীনতা পর্তুগাল থেকে 
 -  পরিচিত জুলাই ৫ ১৯৭৫ 
আয়তন
 -  মোট ৪,০৩৩ বর্গকিমি (১৭২তম)
১,৫৫৭ বর্গমাইল 
 -  জলভাগ (%) negligible
জনসংখ্যা
 -  জুলাই ২০০৯ আনুমানিক ৫০৬,০০০[১] (১৬৫তম)
 -  ২০০৮ আদমশুমারি ৪২৬,৯৯৮[২] 
 -  ঘনত্ব ১২৫.৫ /বর্গ কিমি (৭৯তম)
৩২৫ /বর্গমাইল
জিডিপি (পিপিপি) ২০০৯ আনুমানিক
 -  মোট $১.৮৩৭ বিলিয়ন[৩] 
 -  মাথাপিছু $৩,৫৭৯.৭৩ 
এইচডিআই (২০০৭) বৃদ্ধি ০.৭০৮ (মধ্যেম) (১২১তম)
মুদ্রা কেপ ভার্দেয়ান এস্কুদো (CVE)
সময় স্থান CVT (ইউটিসি-১)
 -  গ্রীষ্মকালীন (ডিএসটি) পর্যবেক্ষণ করা হয়নি (ইউটিসি-১)
ইন্টারনেট টিএলডি .cv
কলিং কোড ২৩৮

কেপ ভার্দ (পর্তুগিজ: Cabo Verde কাবু ভ়ের্দ্যিআ-ধ্ব-ব:['kabu 'veɾdɨ]) আফ্রিকা মহাদেশের পশ্চিম উপকূলের নিকটে অবস্থিত একটি দ্বীপ রাষ্ট্র। এটি উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরের ম্যাক্রোনেশিয়া বাস্তু-অঞ্চলের দ্বীপপুঞ্জের অন্তর্ভুক্ত। পঞ্চদশ শতকে পর্তুগিজরা এই দ্বীপ আবিষ্কার করে বসতি স্থাপন করে। এর আগে এখানে কোন মানব বসতি ছিল না।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৪৬০ সালে পর্তুগিজদের আগমনের পূর্বে কেপ ভের্দতে কোন মানব বসতি ছিলনা। তারা ১৪৬০ সালে এই দ্বীপটিকে তাদের সাম্রাজ্যের অধীনে আনে। অবস্থানগত দিক থেকে আফ্রিকার উপকূলে হবার কারণে কেপ ভের্দ প্রথমে একটি গুরুত্বপূর্ণ পানি সরবরাহ কেন্দ্র, চিনি উ‍‌ৎপাদন কেন্দ্র এবং পরবর্তীতে দাস ব্যাবসায়ের প্রধান কেন্দ্রে পরিণত হয়।

১৯৭৫ সালে পর্তুগালের সাথে গিনি-বিসাউ জঙ্গলে দীর্ঘ এক সশস্ত্র যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভ করে কেপ ভের্দি। স্বাধীনতা অর্জনের জন্য মূলত "দ্য আফ্রিকান পার্টি ফর দা ইন্ডিপেন্ডেন্স অভ গিনি-বিসাউ অ্যান্ড কেপ ভের্দ" এর অবদান সবচেয়ে বেশি ছিল। স্বাধীনতার পর "আফ্রিকান পার্টি ফর দা ইন্ডিপেন্ডেন্স অভ গিনি-বিসাউ অ্যান্ড কেপ ভের্দ" গিনি-বিসাউ ও কেপ ভের্দকে একত্রিত করে একটি দেশে পরিণত করবার চেষ্টা করে যেহেতু তারা নিজেরাই দুইটি অঞ্চলকে নিয়ন্ত্রণ করছিলো। ১৯৮০ সালে একটি সামরিক অভ্যুত্থানের ফলশ্রুতিতে এই পরিকল্পনা ধূলিস্যাৎ হয়ে যায়। পরবর্তীতে আফ্রিকান পার্টি ফর দ্য ইন্ডিপেনডেন্স অফ কেপ ভের্দি সৃষ্টি হয়। ১৯৯১ সালের গণতান্ত্রিক নির্বাচনের মাধ্যমে এই দলের শাসনের অবসান ঘটে। এই নির্বাচনে 'মুভিমেন্তো প্যারা অ‍্যা ডেমক্রাসিয়া জয় লাভ করে। এরা ১৯৯৬ সালে আবার নির্বাচিত হয়। দীর্ঘ ১০ বছর পর আবার ২০০১ সালে আফ্রিকান পার্টি ফর দ্য ইন্ডিপেনডেন্স অফ কেপ ভের্দি নির্বাচিত হয়, ২০০৬ সালে এইদল আবার নির্বাচিত হয়।

রাজনীতি[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক অঞ্চলসমূহ[সম্পাদনা]

পূর্ব আফ্রিকার ১৫.০২(দ) ২৩.৩৪(পূ) এ কেপ ভের্দ দ্বীপপুঞ্জ অবস্থিত । ১০ টি বড় দ্বীপ এবং ৮ টি ছোট দ্বীপের সমন্বয়ে কেপ ভের্দ গঠিত। প্রধান দ্বীপগুলো হলোঃ

এর মধ্যে শুধুমাত্র সান্টা লুজিয়া এবং আর ৫ টি জনশূন‌‌‌‌য। বর্তমানে এগুলোকে প্রাকৃতিক সম্পদ হিসেবে সংরক্ষণ করা হয়েছে। সবগুলো দ্বীপে আগ্নেয়গিরি থাকলেও শুধু মাত্র ফোগোতেই অগ্ন্যুৎপাত ঘটে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রাজনীতি[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক অঞ্চলসমূহ[সম্পাদনা]

ভূগোল[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

সিামরিক বাহিনী[সম্পাদনা]

কেপ ভের্দির সামরিক বাহিনী স্থলবাহিনী এবং কোস্ট গার্ডের সমন্বয়ে গঠিত। ২০০৫ সালে সামরিক বাহিনীর জন্য প্রায় ৮৪,৬৪১ জন লভ্য ছিল। এদের মধ্যে শারীরিকভাবে সক্ষম ছিল ৬৫,৬১৪ জন। কেপ ভের্দি সামরিক খাতে বাৎসরিক ৭.১৮ মিলিয়ন ডলার খরচ করে, যা মোট জাতীয় উৎপাদনের ০.৭%।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Department of Economic and Social Affairs Population Division (2009). "World Population Prospects, Table A.1" (.PDF). 2008 revision. United Nations. Retrieved on 2009-03-12.
  2. CIA.gov
  3. "Cape Verde"। International Monetary Fund। সংগৃহীত 2009-10-01 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

সরকারী
সাধারণ তথ্য