ব্লুজ রক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ব্লুজ রক
শৈলীগত সূত্রপাত ইলেকট্রিক ব্লুজ
ব্রিটিশ ব্লুজ
রক এ্যান্ড রোল
সাংস্কৃতিক সূত্রপাত ১৯৬০-এর দশকের মাঝামাঝি, ইংল্যান্ড এবং আমেরিকা
সংশ্লিষ্ট বাদ্যযন্ত্র ইলেকট্রিক গিটার, বেজ গিটার, ড্রামস, ভোকাল, হ্যাম্মন্ড অর্গান,হারমোনিকা
সাফল্যকাল চূড়ান্ত জনপ্রিয়তা ১৯৬০-এর দশকে ও ১৯৭০-এর দশকে
উদ্ভূত শাখা হেভি মেটাল[১][২] - হার্ডরক - বুগি রক
সম্মিলিত শাখা
পাঙ্ক ব্লুজ, এসিড ব্লুজ

ব্লুজ রক এক ধরনের উচ্চ উৎপাদনশীল সঙ্গীত ধারা যা রক এ্যান্ড রোল ধরনের সাথে বর্ধিত বুগি জ্যাম ও ১২-বার ব্লুজের সমন্বয়ে তৈরি। ইলেকট্রিক গিটার, বেজ গিটারড্রামসের মাধ্যমে ব্লুজ রকের শব্দ তৈরি হয় যাতে ইলেকট্রিক গিটারের শব্দ বিবর্ধিত হয় টিউব গিটার বিবর্ধকের মাধ্যমে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৬০-এর দশকের মাঝামাঝিতে ইংল্যান্ড এবং আমেরিকাতে এই ধারার সঙ্গীত বিকশিত হয়। পাইরো স্কেয়ারউফফি বলেনঃ “রিদম এ্যান্ড ব্লুজের একটি ধারা যা সাদা চামড়ার ইউরোপিয়ানরা করত। দ্যা হু, দ্যা ইয়ার্ডবার্ডস, লেড জেপলিন, দ্যা এনিমেলস, ফ্লিটউড ম্যাক, ক্রিম ও রোলিং স্টোনস এই জাতের সঙ্গীত নিয়ে গবেষণা করে যা এসেছে হাউলিং উলফ,রবার্ট জনসন, জিমি রেড, মাডি ওয়াটার ও বি.বি. কিং থেকে। প্রথম দিকের ব্লুজ রক ব্যান্ডগুলো লম্বা ধাচের ও ইম্প্রোভাইজেশন জড়িত গান করত যা ছিল জ্যাজ সঙ্গীতের একটি বৈশিষ্ট্য। ১৯৭০-এর দশকে ব্লুজ রক ব্যান্ডগুলো আরো ভারী ও গভীর সঙ্গীত করতে থাকে। এই দশকে ব্লুজরক ও হার্ডরকের পার্থক্য প্রকট হয়ে ওঠে যখন ব্যান্ডগুলো রক ধরনের অ্যালবাম করতে থাকে। ১৯৮০-এর দশকে ও ১৯৯০-এর দশকে ব্লুজরক ব্যান্ডগুলো তাদের শিকড়ে ফিরে যায়। ফ্যাবুলাস থান্ডারবার্ড ও স্স্টিভ রে ভাগানের মতো ব্যান্ডরা রক সংগীতের সাথে কৃত্রিম প্রণয় প্রকাশ করতে থাকে।

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

ব্লুজ রককে বৈশিষ্ট্যমন্ডিত করা যেতে পারে ব্লুজি ইম্প্রোভাইজেশন, ১২ বার ব্লুজ, বর্ধিত বুগি জ্যাম যা সাধারণত ইলেকট্রিক গিটার বাজানোর উপর বেশি নির্ভর করে এবং অনেক ভারী ধাঁচে, রিফ ভিত্তিক শব্দ এবং যা ঐতিহ্যবাহী শিকাগো ধরনের ব্লুজের আমেজকে মনে করায়।ব্লুজ রক ব্যান্ডগুলো ইনস্ট্রুমেন্টাল কম্বো এবং উচ্চ মাত্রার বিবর্ধিত শব্দের ধারণাটা পেয়েছে রক এ্যান্ড রোল থেকে।এটাতে মাঝে মাঝে দ্রুত লয়ের টেম্পো থাকে যা তাকে আলাদা করেছে ব্লুজ থেকে।[৩]

গঠন[সম্পাদনা]

ব্লুজ রকের পীসগুলো স্বাভাবিকভাবে ১২-বার ব্লুজ কাঠামো অনুসরণ করে, কিন্তু মাঝেমাঝে একটু অন্য্রকম কাঠামোও অনুসরণ করে, যেমন টি-মোন ওয়াকার ব্যান্ডের স্টোরমি মান ডে গান যা ১২-বার ব্লুজ কাঠামো অনুসরণ করে, কিন্তু অলম্যান ব্রাদারস|অলম্যান ব্রাদাসের গানে কর্ড পরিবর্তিত হয়েছেঃ

G9 | C9 | G9 | G9 | C9 | C9 | G9 / A minor7 | B মাইনর কর্ড7 / B♭7 | A minor7 | A♭ মেজর কর্ড7 | G9 / C9 | G9 / D আগমেন্টেড

...প্রচলিত G | C | G | G | C | C | G | G | D | C | G | G প্রগ্রেশনের পরিবর্তে।

অগ্রপথিকরা[সম্পাদনা]

ব্লুজ রক ব্যান্ডগুলো রক এ্যান্ড রোল থেকে যান্ত্রিক কম্বো ও উচ্চ বিবর্ধনের ধারণা ধার করেছে। এটা দ্রুতলয়ের টেম্পোও করে ব্লুজ থেকে নিজেদের আলাদা করতে। হ্যাম্মন্ড অর্গান ও পিয়ানো মাঝেমাঝে বাজানো হয়ে থাকে। ব্লুজরকের একটি পুরানো উদাহরণ হচ্ছে এরিক ক্ল্যাপটনের ক্রসরোডস যা ক্রিম ব্যান্ডের হুইলস অন ফায়ার অ্যালবামে প্রকাশিত হয়। ব্লুজরক সংগীত যদিও কাছাকাছি জড়িত কিন্তু ১৯৬০-এর দশকের শেষের দিকেই এর উদ্ভব হয়। জিমি হেন্ড্রিক্স-এর যুগান্তকারী গিটার বাদন এবং তার পাওয়ার ট্রিয়, দ্যা জিমি হেন্ড্রিক্স এ্যাক্সপেরিয়েন্স ও ব্যান্ড অব জিপসীস ব্লুজ রকের অনেক বড় মাপের ও টেকসই পরিবর্তন ও উন্নতিতে অবদান রাখেন বিশেষ করে গিটার বাজনায়। এরিক ক্ল্যাপটন আরেকজন গিটারিস্ট যিনি এই ধারার উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখেন।দ্যা ডোরস ও জ্যানিস জপলিন মূলধারার শ্রোতাদের এই ধারার গান শোনান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Weinstein, Deena. Heavy Metal: The Music and its Culture. DaCapo, 2000. ISBN 0-306-80970-2, pg. 14.
  2. Christe, Ian। Sound of the Beast। Allison & Busby। পৃ: 1। আইএসবিএন 0749083514 
  3. http://www.allmusic.com/explore/style/d50

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]