ব্যতিচার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পানির উপরিতলে দুটি উৎসের দ্বারা ব্যতিচার সৃষ্টি।

পদার্থবিজ্ঞানে ব্যতিচার (ইংরেজি: Interference) বলতে দুটি তরঙ্গের উপরিপাতনের ফলে সৃষ্ট নতুন তরঙ্গের বিস্তারের পর্যায়ক্রমিক হ্রাস-বৃদ্ধির ঘটনাকে বোঝানো হয়। এটি দুটি তরঙ্গের মধ্যেকার একটি আন্তঃক্রিয়া যেখানে তরঙ্গদুটি সুসংগত উৎস থেকে নির্গত হয়ে থাকে। এই ঘটনাটি তখনই সম্ভব হয় যদি তরঙ্গদুটির উৎস একই হয়ে থাকে বা তাদের কম্পাঙ্ক প্রায় কাছাকাছি মানের হয়। ব্যতিচার যেকোন ধরনের তরঙ্গের ক্ষেত্রেই ঘটতে পারে। যেমনঃ আলো, শব্দ, বেতার তরঙ্গ, তারে সৃষ্ট তরঙ্গ, পানির উপরিতলের তরঙ্গ ইত্যাদি।

কার্যপ্রনালী[সম্পাদনা]

তরঙ্গের উপরিপাতনের সূত্রানুযায়ী, দুটি তরঙ্গের উপরিপাতনের ফলে যে নতুন তরঙ্গের সৃষ্টি হয় তার সরণের মান হল উপরিপাতিত তরঙ্গ দুটির ভেক্টর সমষ্টির সমান। এই কারণে দুটি তরঙ্গ যেসব স্থানে একই দশায় মিলিত হয় সেসকল স্থানে লব্ধি তরঙ্গের বিস্তার এবং তীব্রতা বেশি হয় যাকে গঠনমূলক ব্যতিচার বলা হয়, বিপরীত দশায় মিলিত হলে লব্ধি তরঙ্গের বিস্তার কমে যায় বা তরঙ্গের তীব্রতা হ্রাস পায় যাকে ধ্বংসাত্বক ব্যতিচার বলা হয়।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. A textbook on Optics by Shuvnarayam, S. Chand publication