বিস্ফোরণের গতিবেগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

বিস্ফোরণের গতিবেগ বা বিস্ফোরণের গতি, যা ইংরেজিতে explosive velocity বা detonation velocity নামে পরিচিত। বিস্ফোরণের (detonation) ফলে বিস্ফোরকের উপাদানসমূহ বিক্রিয়ার ফলে যে ঘাত তরঙ্গে (shock wave), যে বেগে চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে সে গতিবেগকেই বিস্ফোরণের গতিবেগ বলে। এই গতিবেগ গ্যাস সূত্রসমূহের ওপর নির্ভর করে, এবং বাস্তবে এই বেগ নির্ণয় করা যথেষ্ট কষ্টসাধ্য। বিস্ফোরকের গতিবেগ সবসময়ে শব্দের গতির চেয়ে বেশি থাকে।

যদি বিস্ফোরণের পূর্বে যদি বিস্ফোরক আবদ্ধ স্থানে থাকে, (যেমন: আর্টারি সেল-এর মধ্যে); সেক্ষেত্রে উৎপন্ন বল একটি নির্দিষ্ট স্থানে মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে, তাই চাপ মারাত্মকভাবে বেড়ে যায়। আবদ্ধ স্থানের তুলনায়, মুক্ত স্থানে সংঘটিত বিস্ফোরণের গতিবেগ অনেক বেশি হয়। মুক্ত স্থানে সংঘটিত বিস্ফোরণের গতিবেগ, আবদ্ধ স্থানের তুলনায় প্রায় ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ বেশি হয়।[১].

বিস্ফোরকে ব্যবহৃত particle কণার আকৃতি ছোট হলে, বিস্ফোরণের ব্যপ্তি (ব্যাস) বেড়ে যায়।[১].

সাধারণ বিস্ফোরণের গতিবেগের গ্যাসীয় সীমা 1800 m/s থেকে 3000 m/s। কঠিন বিস্ফোরকের এই সীমা 4000 m/s থেকে 10300 m/s।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ GlobalSecurity.org