বারাসত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বারাসত
বারাসাত
স্থানাঙ্ক: ২২°১৪′ উত্তর ৮৮°২৭′ পূর্ব / ২২.২৩° উত্তর ৮৮.৪৫° পূর্ব / 22.23; 88.45
রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ
জেলা উত্তর চব্বিশ পরগণা
সরকার
 • মিউনিসিপাল চেয়ারম্যান সুনিল মূখার্জ্জী
 • লোকসভা সদস্যা কাকলি ঘোষ দস্তিদার
 • পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা সদস্য চিরঞ্জিত (দীপক) চক্রবর্ত্তী
জনসংখ্যা (২০০১)
ভাষা
 • Official বাংলা, ইংরেজি
সময় অঞ্চল ভারতীয় প্রমাণ সময় (ইউটিসি+০৫:৩০)
PIN ৭০০১২৪ থেকে ৭০০১২৬
Telephone code ৯১ ৩৩ ২৫৪২
যানবাহন নিবন্ধন WB26
লোকসভা অঞ্চল বারাসাত
পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা অঞ্চল বারাসাত
ওয়েবসাইট north24parganas.nic.in

বারাসাত (ইংরেজি:Barasat), ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর ২৪ পরগণা জেলার একটি শহর ও পৌরসভা এলাকা । বারাসাত থানা এবং বারাসাত পৌরসভা এই অঞ্চল পরিচালনা করে।

ভৌগোলিক অবস্থান[সম্পাদনা]

শহরটির অবস্থানের অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ হল ২২°১৪′ উত্তর ৮৮°২৭′ পূর্ব / ২২.২৩° উত্তর ৮৮.৪৫° পূর্ব / 22.23; 88.45[১] সমূদ্র সমতল হতে এর গড় উচ্চতা হল ৪ মিটার (১৩ ফুট)।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি অনুসারে বারাসাত শহরের জনসংখ্যা হল ২৩১,৫১৫ জন।[২] এর মধ্যে পুরুষ ৫১%, এবং নারী ৪৯%।

এখানে সাক্ষরতার হার ৭৭%, । পুরুষদের মধ্যে সাক্ষরতার হার ৮১%, এবং নারীদের মধ্যে এই হার ৭৩%। সারা ভারতের সাক্ষরতার হার ৫৯.৫%, তার চাইতে বারাসত এর সাক্ষরতার হার বেশি।

এই শহরের জনসংখ্যার ১০% হল ৬ বছর বা তার কম বয়সী।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

BGC
বারাসাত গভার্নমেন্ট কলেজ

বারাসাতের স্কুলগুলোকে সরকারী ও বেসরকারী এই দু ভাগে ভাগ করা যায়। স্কুলগুলোর শিক্ষণের ভাষা মূলত ইংরেজি কিংবা বাংলা। সব স্কুল ভারতীয় মাধ্যমিক শিক্ষা সার্টিফিকেট, কেন্দ্রীয় মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড অথবা পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সাথে জড়িত। সম্প্রতি বারাসাত এ পশ্চিমবঙ্গ সরকার ওয়েষ্ট বেঙ্গল স্টেট ইউনিভার্সিটি নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় চালু করেছেন ২০০৮ সালে। বর্তমানে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার প্রায় সব মহাবিদ্যালয় গুলো এই বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিনে পঠিত হয়। এছাড়া বারাসাত গভার্নমেন্ট কলেজ এর ও যথেষ্ট সুনাম আছে। এছাড়া এখানে ৪ টি প্রকৌশল শিক্ষার মহাবিদ্যালয় অাছে।

স্বাস্থ্য পরিষেবা[সম্পাদনা]

বারাসাত ক্যানসার রিসার্স এন্ড ওয়েলফেয়ার নামে একটি জাতীয় ক্যানসার হাসপাতাল রয়েছে। এছাড়া একটি সরকারি হাসপাতাল (বারাসত জেলা সদর হাসপাতাল) ও অনেকগুলি বেসরকারি হাসপাতাল রয়েছে।

যোগাযোগের ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

সড়কপথ[সম্পাদনা]

ডাকবাঙ্গলো মোড়
বারাসত ডাকবাঙ্গলো মোড় জাতীয় সড়ক নং-৩৪ এবং জাতীয় সড়ক নং-৩৫.

বারাসাত পেট্রাপোল (বাঙ্গলাদেশ সীমান্ত) থেকে ৫৭ কি মি দুরে অবস্থিত । বারাসাত শহর দিয়ে দুটি জাতীয় সড়ক এর মিলনস্থানে। যার মধ্যে একটি হল যশোহর রোড় ( জাতীয় সড়ক নং-৩৫)। এই রাস্তা দমদম থেকে যশোহর পর্যন্ত যায় এবং ভারত বাঙ্লাদেশ বানিজ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর একটি হল কৃষ্ণনগর রোড় (জাতীয় সড়ক নং-৩৪)। এই সড়ক কলকাতা ও উত্তরবঙ্গের মধ্যে যোগাযোগ রখ্যা করে। এছাড়া টাকি রোড় (বেড়াচাঁপা, বসিরহাট, হাসনাবাদ হয়ে টাকি যায়) ও ব্যারাকপুর রোড়(সুভাষনগর,নীলগঞ্জ বাজার দিয়ে ব্যারাকপুর যায়) বারাসত এর সাথে যোগাযোগ রক্ষাকারী দুটি মূল রাস্তা। বারাসত থেকে দুটি অার্ন্তজাতিক ক্ষেত্রেঢাকা; (বাংলাদেশ) এবং থিম্পু (ভুটান) তে; বাস যাতায়াত করে। তা ছাড়া পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে বালুরঘাট, জঙ্গীপুর, শিলিগুড়ি, দূর্গাপুর, দীঘা তেও বাস যায়। তিতুমীর বাস টারমিনাল বা চাপাঁডালী বাস টারমিনাল হল এখানকার এক মাত্র বাস টারমিনাল। এখান থেকে দমদম, উল্টোডাঙ্গা, কেষ্টপুর, বাবুঘাট, সল্টলেক, কৃষ্ণনগর, হাবড়া, ব্যারাকপুর, নৈহাটি, অশোকনগর, বনগাঁ এবং দক্ষিণবঙ্গের অণ্যান্য যায়গায় বাস যায়।

রেলপথ[সম্পাদনা]

এই শহরে তিনটি স্টেশন-বারাসাত জংশন, হৃদয়পুর (বনগাঁ লাইন), কাজীপারা (হাসনাবাদ লাইন)। এই স্টেশন গুলি পুর্ব রেলওয়ে শিয়ালদহ মন্ডলে অন্তর্ভূক্ত। এখান থেকে শিয়ালদাহ স্টেশন ২৩ কি মি। বারাসাত জংশন থেকে একটি লাইন যায় বনগাঁ জংশন-এ। আর একটি লাইন হাসনাবাদ যায় বসিরহাট,টাকি হয়ে। কলকাতা মেট্রোর বারাসত পর্যন্ত সম্প্রসারন এর কাজ শুরু হয়ে গেছে এবং কয়েক বছর এর মধ্যে এই লাইন এ ট্রেন চলাচল সুরু হবে।

আকাশপথ[সম্পাদনা]

এখান থেকে নিকটতম বিমানবন্দর হল নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতীয় বিমানবন্দর বা দমদম বিমানবন্দর। এখান থেকে ১১ কি মি দুরে অবস্থিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Barasat"Falling Rain Genomics, Inc। সংগৃহীত সেপ্টেম্বর ২৫  |accessyear= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য)
  2. "ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি"। সংগৃহীত সেপ্টেম্বর ২৫  |accessyear= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য)