প্রবেশদ্বার:চলচ্চিত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে


ইকিপিডিয়া
লচ্চিত্র

Portal film-illustration 01.jpg


Cartella verde.jpg

Media Player Classic MPC With Shadow No Numbers.png
চলচ্চিত্র
প্রবেশদ্বার চলচ্চিত্র- উদাহরণ ১
চলচ্চিত্র এক প্রকারের দৃশ্যমান বিনোদন মাধ্যম। চলমান চিত্র তথা "মোশন পিকচার" থেকে চলচ্চিত্র শব্দটি এসেছে। এটি একটি বিশেষ শিল্প মাধ্যম। বাস্তব জগতের চলমান ছবি ক্যামেরার মাধ্যমে ধারণ করে বা এনিমেশনের মাধ্যমে কাল্পনিক জগৎ তৈরি করে চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হয়। চলচ্চিত্রের ধারণা অনেক পরে এসেছে, উনবিংশ শতকের শেষ দিকে। আর এনিমেশন চিত্রের ধারণা এসেছে আরও পরে। বাংলায় চলচ্চিত্রের প্রতিশব্দ হিসেবে ছায়াছবি, সিনেমা, মুভি বা ফিল্ম শব্দগুলো ব্যবহৃত হয়।

চলচ্চিত্রের সাথে ওতোপ্রোতভাবে জড়িয়ে থাকে সাংস্কৃতিক উপাদানসমূহ। যে সংস্কৃতিতে তা নির্মিত হয় তাকেই প্রতিনিধিত্ব করে চলচ্চিত্রটি। শিল্পকলার প্রভাবশালী মাধ্যম, শক্তিশালী বিনোদন মাধ্যম এবং শিক্ষার অন্যতম সেরা উপকরণ হিসেবে খ্যাতি রয়েছে চলচ্চিত্রের। ছায়াছবির সাথে ভিজ্যুয়াল বিশ্বের সমন্বয় থাকায় সাধারণ মানুষের সাথে সবচেয়ে ভাল যোগাযোগ স্থাপন করতে পারে। অন্য কোন শিল্পমাধ্যম সাধারণের সাথে এতোটা যোগাযোগ স্থাপনে সক্ষম নয়। অন্য ভাষার চলচ্চিত্রের ডাবিং বা সাবটাইটেল করার মাধ্যমে নিজ ভাষায় নিয়ে আসার প্রচলন রয়েছে।

প্রথাগতভাবে চলচ্চিত্র নির্মিত হয় অনেকগুলো একক ছবি তথা ফ্রেমের ধারাবাহিক সমন্বয়ের মাধ্যমে। এই স্থিরচিত্রগুলি যখন খুব দ্রুত দেখানো হয় তখন দর্শক মনে করেন তিনি চলমান কিছু দেখছেন। প্রতিটি ছবির মাঝে যে বিরতি তা একটি বিশেষ কারণে দর্শকের চোখে ধরা পড়ে না। ধরা না পড়ার এই বিষয়টাকে দৃষ্টির স্থায়িত্ব বলে। সহজ কথা বলা যায়, ছবির উৎস সরিয়ে ফেলার পরও এক সেকেন্ডের ১০ ভাগের ১ ভাগ সময় ধরে দর্শকের মনে তার রেশ থেকে যায়। এভাবে চলমান ছবির ধারণা লাভের বিষয়টাকে মনোবিজ্ঞানে বিটা চলন নামে আখ্যায়িত করা হয়। (বাকি অংশ পড়ুন...)

Cartella blu.jpg

Article blue with a globe icon.png
বিশেষ নিবন্ধ
Angelina-Jolie.jpg

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি একজন জনপ্রিয় মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেত্রীযুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া’র লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি সংস্কৃতিমনা পরিবারে এই অস্কারজয়ী অভিনেত্রীর জন্ম। তাঁর বাবা জন ভট নিজেও একজন অস্কারজয়ী অভিনেতা। ১৯৮২ সালে লুকিন’ টু গেট আউট ‌ছবিতে একটি শিশু চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে রূপালী পর্দায় জোলির আবির্ভাব হয়। তবে পেশাদার চলচ্চিত্র অভিনেত্রী হিসেবে তাঁর অভিষেক ঘটে স্বল্প বাজেটের ছবি সাইবর্গ ২ (১৯৯৩)-এ অভিনয়ের মাধ্যমে, এবং চলচ্চিত্র জগতে তাঁর অনিরূদ্ধ উত্থান শুরু হয় হ্যাকারস (১৯৯৫) ছবিটির মধ্য দিয়ে। নব্বইয়ের দশকে শুরু হওয়া তাঁর এই তুঙ্গস্পর্শী জনপ্রিয়তা আজও সমান তালে বিদ্যমান। ১৯৯২ সালে গার্ল, ইন্টারাপ্টেড চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য লাভ করেন চলচ্চিত্রের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি অ্যাকাডেমি পুরস্কার। এছাড়াও তাঁর প্রাপ্ত অন্যান্য উল্লেখযোগ্য পুরস্কারের মধ্যে আছে তিনটি গোল্ডেন গ্লোব ও দুইটি স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ডসহ আরও বহু পুরস্কার। অভিনয়ের পাশাপাশি তাঁর বিভিন্ন কর্মকাণ্ড, এবং ব্যক্তিজীবনও সাধারণ মানুষের আকর্ষণের বিষয়। বর্তমানে হলিউডের অন্যতম সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক-প্রাপ্ত এই অভিনেত্রী অভিনয়ের সাথে তাল মিলিয়ে মানবহিতৈষী কর্মকাণ্ডেও যথেষ্ট সক্রিয়; বিশেষ করে বিশ্বজুড়ে শরণার্থীদের জন্য কাজ করার জন্য জোলি বিশেষভাবে সমাদৃত। এ সুবাদেই ২০০১ সাল থেকে তিনি জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার একজন শুভেচ্ছাদূত। (বাকি অংশ পড়ুন...)

Cartella rossa.jpg

Crystal Clear action bookmark.png
নির্বাচিত নিবন্ধ
ডিভিডি কভার
সীমানা পেরিয়ে (ইংরেজি: Shimana Periye - Across The Fringe) এটি ১৯৭৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি বাংলাদেশী চলচ্চিত্র। ছবিটি পরিচালনা করেছেন বিখ্যাত চলচ্চিত্রকার আলমগীর কবির, ১৯৭০ সালে উপকূলীয় অঞ্চলে এক ভয়াবহ জলোচ্ছ্বাসের ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিচালক ছবিটি নির্মাণ করেছেন। ছবিতে মূল ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বুলবুল আহমেদজয়শ্রী কবির। এছাড়াও কয়েকটি গুরুপ্তপুর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন মায়া হাজারিকা, কাফী খান, গোলাম মোস্তফাতনুজা

চলচ্চিত্রটি ১৯৭৭ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-এ শ্রেষ্ঠ অভিনেতাসহ মোট তিনটি বিভাগে পুরস্কার লাভ করেছিল।

Cartella roug.jpg

Crystal Clear app ksnapshot.png
নির্বাচিত চিত্র
বুস্টার কিটন
কৃতিত্ব: বেইন নিউজ সার্ভিস

বুস্টার কিটন (৪ঠা অক্টোবর, ১৮৯৫ - ১লা ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৬) একাডেমি পুরস্কার বিজয়ী মার্কিন কমেডি অভিনেতা ও চলচ্চিত্র পরিচালক। নির্বাক চলচ্চিত্রের জন্যই তিনি সবচেয়ে বিখ্যাত। তার সম্পর্কে দুটি জনপ্রিয় বাক্য প্রচলিত আছে: "The Great Stone Face" এবং "The Michelangelo of Silent Comedy"।

প্রবেশদ্বার:চলচ্চিত্র/চলচ্চিত্র সংবাদ

Cartella rossa.jpg

Biographystar.png
নির্বাচিত জীবনী
Miley Cyrus 38th People's Choice Awards (cropped).jpg

মাইলি রে সাইরাস, আসল নাম ডেসটিনি হোপ সাইরাস (জন্ম নভেম্বর ২৩, ১৯৯২) একজন মার্কিন কণ্ঠশিল্পী, অভিনেত্রী এবং লেখিকা। ডিজনি চ্যানেল সিরিজের হানা মন্টানা-য় নামভূমিকায় অভিনয় করার জন্যই তিনি বিশেষভাবে পরিচিত। হানা মন্টানা-র সাফল্যর পর অক্টোবর ২০০৬-এ তার গানের একটি সিডি প্রকাশিত হয়। এখানে তিনি শোয়ের আটটি গান গেয়েছিলেন। সঙ্গীত জগতে পেশাদার গায়িকা হিসেবে তার প্রথম একক অ্যালবাম মিট মাইলি সাইরাস যা প্রকাশ পায় ২৩ জুন ২০০৭ তারিখে। এই অ্যালবামে "সি ইউ এগেন" এর প্রথম দশটি সফল গান ছিলো। রেডিও ডিজনি এর মূলস্রোতের টপ ৪০ -এ উঠে আসতে এবং বেতার জগতের সাফল্যকে ছুঁতে এই গান সাইরাসকে সাহায্য করেছিলো। ২২ জুলাই ২০০৮ -এ তার দ্বিতীয় অ্যালবাম "ব্রেকআউট " মুক্তি পায়। ব্রেকআউট সাইরাসর প্রথম অ্যালবাম যা কোনভাবে হানা মন্টানা -এর সঙ্গে যুক্ত নয়। দুটি অ্যালবামই বিলবোর্ড ২০০ ১ নম্বরে অভিষেক হয়। ২০০৮-এ তার হানা মন্টানা এবং মাইলি সাইরাস: বেস্ট অফ বোথ ওয়ার্ল্ডস কনসার্ট নামক এক ছবি মুক্তি পায়। (বাকি অংশ পড়ুন...)

Cartella verde.jpg

PL Wiki CzyWiesz ikona.svg
আপনি জানেন কি...
মনিকা বেলুচ্চি

Cartella verde.jpg

Crystal Clear action find.png
বিষয়শ্রেণী অনুসন্ধান

নিচের বিষয়শ্রেণীগুলোর অধীনে সবগুলো নিবন্ধ সাজানো আছে। + চিহ্নে ক্লিক করলেই উপ-বিষয়শ্রেণী দেখতে পাবেন।


- bn.wikipedia তে খোঁজার জন্য গুগল, এখানে ক্লিক করুন

উইকিসংবাদে চলচ্চিত্র   উইকিউক্তিতে চলচ্চিত্র   উইকিবইয়ে চলচ্চিত্র   উইকিসংকলনে চলচ্চিত্র   উইকিঅভিধানে চলচ্চিত্র   উইকিবিশ্ববিদ্যালয়ে চলচ্চিত্র   উইকিমিডিয়া কমন্সে চলচ্চিত্র উইকিউপাত্তে চলচ্চিত্র উইকিভ্রমণে চলচ্চিত্র
উন্মুক্ত সংবাদ উৎস উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন উন্মুক্ত পাঠ্যপুস্তক ও ম্যানুয়াল উন্মুক্ত পাঠাগার অভিধান ও সমার্থশব্দকোষ উন্মুক্ত শিক্ষা মাধ্যম মুক্ত মিডিয়া ভাণ্ডার উন্মুক্ত জ্ঞানভান্ডার উন্মুক্ত ভ্রমণ নির্দেশিকা
Wikinews-logo.svg
Wikiquote-logo.svg
Wikibooks-logo.png
Wikisource-logo.svg
Wiktionary-logo.svg
Wikiversity-logo.svg
Commons-logo.svg
Wikidata-logo.svg
Wikivoyage-Logo-v3-icon.svg
প্রবেশদ্বার কি? | প্রবেশদ্বারসমূহের তালিকা | নির্বাচিত প্রবেশদ্বার

সার্ভার ক্যাশ খালি করুন