পে-মা-রিগ-'দ্জিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পে-মা-রিগ-'দ্জিন

পে-মা-রিগ-'দ্জিন (ওয়াইলি: pe ma rig 'dzin) (১৬২৫-১৬৯৭) তিব্বতী বৌদ্ধধর্মের র্ন্যিং-মা ধর্মসম্প্রদায়ের র্দ্জোগ্স-ছেন বৌদ্ধবিহার নামক অন্যতম প্রধান বৌদ্ধবিহারের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রথম প্রধান ছিলেন।

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

পে-মা-রিগ-'দ্জিন ১৬২৫ খ্রিষ্টাব্দে তিব্বতের স্পু-বো-রা-ঝি (ওয়াইলি: spu bo ra zhi) নামক স্থানে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা বাল-পো-ব্ক্রা-শিস (ওয়াইলি: bal po bkra shis) একজন দক্ষ নেপালী শিল্পী। শৈশবে ছাব-ম্দো-ব্যাম্স-পা-গ্লিং (ওয়াইলি: chab mdo byams pa gling) নামক স্থানে পে-মা-রিগ-'দ্জিন লেখাপড়া শুরু করেন। কৈশোরে কার্মা-ছাগ্স-মেদ (ওয়াইলি: karma chags med) নামক ব্কা'-ব্র্গ্যুদ ধর্মসম্প্রদায়ের এক বিখ্যাত পন্ডিতের নিকট রত্ন গ্লিং-পা দ্বারা আবিষ্কৃত ব্লা-মা'ই-ঝি-দ্রাগ (ওয়াইলি: bla ma'i zhi drag) গ্রন্থ সম্বন্ধে ও কার্মা-গ্লিং-পা দ্বারা আবিষ্কৃত ঝি-খ্রো-দ্গোংস-পা-রোং-গ্রোল (ওয়াইলি: zhi khro dgongs pa rang grol) গ্রন্থ সম্বন্ধে শিক্ষাগ্রহণ করেন। দক্ষিণ পশ্চিম তিব্বতের স্পো-বো (ওয়াইলি: spo bo) নামক স্থানে তিনি ব্দুদ-'দুল-র্দো-র্জে (ওয়াইলি: bdud 'dul rdo rje) নামক গ্তের-স্তোনের নিকট র্দ্জোগ্স-ছেন-স্ন্যিং-থিগ (ওয়াইলি: rdzogs chen snying thig) নামকগ্রন্থ সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। এছাড়া ছোস-ক্যি-র্গ্যা-ম্ত্শো (ওয়াইলি: chos kyi rgya mtsho) নামক পন্ডিতের নিকট ম্খা'-'গ্রো-স্ন্যিং-থিগ (ওয়াইলি: mkha' 'gro snying thig) নামক অতিযোগ তত্ত্বের ওপর লিখিত গ্রন্থ সম্বন্ধে অধ্যয়ন করেন। তাঁর অন্যতম উল্লেখযোগ্য শিক্ষক ছিলেন গ্নাম-ছোস-মি-'গ্যুর-র্দো-র্জে (ওয়াইলি: gnam chos mi 'gyur rdo rje) নামক গ্তের-স্তোন[১]

পরবর্তী জীবন[সম্পাদনা]

পে-মা-রিগ-'দ্জিনের সর্বাপেক্ষা উল্লেখযোগ্য শিষ্য ছিলেন ন্যি-মা-গ্রাগ্স-পা (ওয়াইলি: nyi ma grags pa)। ১৬৬৩ খ্রিষ্টাব্দে গুরু-শিষ্য দুই জনে মিলে তিব্বতের বিভিন্ন স্থানের বৌদ্ধবিহারে যাত্রা করেন। লাসা শহরে পঞ্চম দলাই লামা এই সময় পে-মা-রিগ-'দ্জিনের নিকট শিক্ষালাভ করেন। এরপর গ্তের-ব্দাগ-গ্লিং-পা (ওয়াইলি: gter bdag gling pa), ম্ঙ্গা'-ব্দাগ-ছোস-ক্যি-দ্বাং-পো (ওয়াইলি: mnga' bdag chos kyi dbang po), ত্শুল-খ্রিম্স-র্দো-র্জে (ওয়াইলি: mnga' bdag chos kyi dbang po) প্রভৃতি বৌদ্ধ পন্ডিত পে-মা-রিগ-'দ্জিন ও তাঁর শিষ্য ন্যি-মা-গ্রাগ্স-পাকে শিক্ষাদান করেন। ১৬৬৮ খ্রিষ্টাব্দে তিন বছরের জন্য এই গুরু-শিষ্য সাধনায় লিপ্ত হন। এরপর শিষ্যের থেকে বিদায় নিয়ে খাম্স অঞ্চলে চলে যান। তাঁর অন্যান্য উল্লেখযোগ্য শিষ্য ছিলেন নাম-ম্খা'-'ওদ-গ্সাল (ওয়াইলি: nam mkha' 'od gsal), রাব-ব্যাম্স-পা-ব্স্তান-পা'ই-র্গ্যাল-ম্ত্শান (ওয়াইলি: rab 'byams pa bstan pa'i rgyal mtshan), য়ে-শেস-স্ন্যিং-পো (ওয়াইলি: ye shes snying po) নামক সপ্তম ঝ্বা-দ্মার-পা প্রভৃতি।[১]

বৌদ্ধবিহার প্রতিষ্ঠা[সম্পাদনা]

১৬৮৪ খ্রিষ্টাব্দে তিনি পঞ্চম দলাই লামার নির্দেশে ও সাংস-র্গ্যাস-ব্স্তান-পা (ওয়াইলি: sangs rgyas bstan pa) নামক স্দে-দ্গে রাজ্যের তৎকালীন রাজার সহায়তায় রু-দাম-স্ক্যিদ-খ্রাম (ওয়াইলি: ru dam skyid khram) নামক উপত্যকায় ও-র্গ্যান-ব্সাম-গ্তান-গ্লিং (ওয়াইলি: o rgyan bsam gtan gling) নামক একটি মঠ স্থাপন করেন। ধীরে ধীরে এই মঠ র্দ্জোগ্স-ছেন বৌদ্ধবিহার হিসেবে গড়ে ওঠে।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ ১.২ Gardner, Alexander (2009-12)। "The First Dzogchen Drubwang, Pema Rigdzin"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগৃহীত 2014-05-17 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Bradburn, Leslie, ed. 1995. Masters of the Nyingma Lineage. Cazadero: Dharma Publications, 1995, p. 255.
  • Cuevas, Bryan. 2003. The Hidden History of the Tibetan Book of the Dead. Oxford: Oxford University Press.
  • Khetsun Sangpo, ed. 1973. Biographical Dictionary of Tibet and Tibetan Buddhism. Dharamsala: Library of Tibetan Works and Archives. Vol. 4, p. 244.
পূর্বসূরী
---
পে-মা-রিগ-'দ্জিন
র্দ্জোগ্স-ছেন বৌদ্ধবিহারের প্রথম প্রধান


উত্তরসূরী
নাম-ম্খা'-'ওদ-গ্সাল
পূর্বসূরী
--
পে-মা-রিগ-'দ্জিন
প্রথম র্দ্জোগ্স-ছেন-গ্রুব-দ্বাং


উত্তরসূরী
'গ্যুর-মেদ-থেগ-ম্ছোগ-ব্স্তান-'দ্জিন