নারীবাদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

নারীবাদ (ইংরেজি: Feminism) নারীদের অধিকার আদায়, সমতা অর্জন এবং জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং অর্থনৈতিক আন্দোলনকে নির্দেশ করে। এখানে অধিকার আদায় এবং অংশগ্রহণ বলতে আইনী সুরক্ষা প্রদান, রাজনীতি, ব্যবসা, শিক্ষা ইত্যাদি ক্ষেত্রে অংশগ্রহণ, নারীর কাজের স্বীকৃতি প্রদান এবং নারীর ক্ষমতায়নকে বুঝায়। নারীবাদ ধারণাটি নারীর অধিকার ধারণাটির সাথে সংযুক্ত। নারীবাদ প্রথাগত নানা ধারণাকে অস্বীকার করে বিশেষত নারীর রাজনৈতিক অধিকার আদায়ের ক্ষেত্রে। নারীবাদী হতে পারেন যে কোন লিঙ্গের বা শুধুমাত্র একজন নারী (এই ক্ষেত্রে পুরুষরা হবে profeminist) যিনি নারীবাদে বিশ্বাস করেন।

মিলের ভূমিকা[সম্পাদনা]

বিখ্যাত ব্রিটিশ দার্শনিক, রাজনৈতিক অর্থনীতিবিদ জন স্টুয়ার্ট মিল দেখতে পান যে, নারীসংক্রান্ত বিষয়াবলী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই তিনি নারীদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে লিখতে শুরু করেন। এপ্রেক্ষিতে তিনি প্রারম্ভিক নারীবাদী হিসেবে বিবেচিত হতে পারেন। ১৮৬১ সালে লিখিত ও ১৮৬৯ সালে প্রকাশিত দ্য সাবজেকশন অব উইমেন শীর্ষক নিবন্ধে নারীদের বৈধভাবে বশীভূতকরণ বিষয়টিকে ভুল প্রমাণের চেষ্টা করেন। এরফলে তা সঠিকভাবে সমতাবিধান থেকে দূরে সরিয়ে রাখছে।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. John Stuart Mill: critical assessments, Volume 4, By John Cunningham Wood