নগ্ন বিনোদন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভারতে শিশুরা নগ্ন অবস্থায় জলাধারে খেলছে।
২০০৮ সালের গ্রীষ্মকালে ৩৯ জন নগ্ন হাইকার দক্ষিণ ফ্রান্সে হাইকিং করছেন।
নগ্ন অবস্থায় বাইসাইকেল চালনাও নগ্ন বিনোদন লাভের একটি মাধ্যম।

নগ্ন বিনোদন (ইংরেজি: Nude recreation) হচ্ছে এক প্রকার বিনোদন যা কোনো প্রকার পোষাক ছাড়া সম্পাদিত হয়। এটি বোঝাতে ইংরেজি আরো যেসকল পরিভাষা ব্যবহৃত হতেপারে তার মধ্যে আছে Nude (নগ্ন), Clothing-optional (পোষাক-ঐচ্ছিক), Naturist (প্রকৃতিবাদী), Nudist (নগ্নতাবাদী), Body-positive (দেহবোধক), বা Clothes-free (পোষাকমুক্ত)।

এই ধরনের বিনোদন বিভিন্ন ভাবে উপভোগ করা হয়। এর মধ্যে আছে, নগ্ন হাইকিং, নগ্ন দৌড় (কিছু ক্ষেত্রে এটিকে স্ট্রিকিংও বলা হয়), সাঁতার, পোষাক-ঐচ্ছিক সাইকেল চালনা, নগ্ন যোগ ব্যয়াম ইত্যাদি। এছাড়া অপেক্ষাকৃত কম প্রচলিত কর্মকাণ্ডগুলোর মধ্যে আছে সনা, হট স্প্রিং, এবং নগ্ন সৈকতে সূর্যস্নান

যখন এই ধরনের কর্মকাণ্ড প্রকাশ্যে করা হয় তখন তা প্রকাশ্য নগ্নতার আওতায় হয়। এটি স্থান ভেদে আইনত বৈধ বা অবৈধ হতে পারে। এবং এজন্য কৃত ব্যক্তি গ্রেপ্তার হতে পারেন আবার নাও হতে পারেন। এটি পুরোপুরিই কোনো সমাজে এটিকে কীভাবে দেখা হয়, তার ওপর নির্ভর করে।

উদ্বুদ্ধকরণ[সম্পাদনা]

বিভিন্ন কারণে আগ্রহীরা পোষাকমুক্ত জীবন বা কর্মকাণ্ড চর্চায় যোগ দেন। বেশিরভাগই এই প্রচারণায় উদ্বুদ্ধ হয়ে পোষাকমুক্ত পরিবেশে জীবনযাপনে উদ্বুদ্ধ হন যে, নগ্নতার মাধ্যমে প্রাকৃতিক পরিবেশের প্রতি আরো বেশি মনোযোগ দেওয়া সম্ভব। এটির মাধ্যমে বিভিন্ন রকম স্বাস্থ্যগত উপকারও পাওয়া যায়। যেমন: রোদ কিছু ক্ষেত্রে ত্বকের জন্য উপকারী, এবং এটি শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন ডি উৎপাদনে সহায়তা করে, যা একটি প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান। সবকিছু মিলিয়ে যারা নগ্নতায় বিশ্বাসী তাঁরা পোষাকমুক্ত পরিবেশকে পোষাকের আবরণযুক্ত পরিবেশের তুলনায় শরীর ও দেহের জন্য আরো বেশি আরামদায়ক, সহায়ক, ও উপকারী হিসেবে দাবি করেন।

বেশিরভাগ মানুষ তাঁদের প্রথম পোষাকমুক্ত পরিবেশের অভিজ্ঞতা অর্জন করেন কিছু অনানুষ্ঠানিক পরিবেশের কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে। এর মধ্যে আছে, পোষাক-ঐচ্ছিক সমুদ্র সৈকত, বন্ধুর বাসস্থানের কাছের বন, বা সৈকতে নগ্ন সাঁতার বা ডাইভিংয়ের মাধ্যমে।

ইউরোপে নগ্নতার সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

ইউরোপের নর্ডিক দেশগুলোতে সনা সংস্কৃতি, নদী বা হ্রদে নগ্ন অবস্থায় সাঁতার প্রভৃতি নগ্নতাবাদী সংস্কৃতি চর্চার একটি জনপ্রিয় মাধ্যম। গ্রীষ্মকালে কয়েকজন সাঁতারুকে স্থান দেবার মতো বিভিন্ন রকমে কাঠের তৈরি গোসলখানা রয়েছে, যা পার্শ্বীয়ভাবে পানির ওপর নির্মাণ করা হয়—নগ্নতা চর্চার একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। মূলত এই গোসলখানাগুলো পুরুষের জন্যই নির্মিত। কিন্তু বর্তমানে এগুলোতে নারী ও পুরুষের জন্য পৃথক অংশের ব্যবস্থা রয়েছে।

উদ্ধৃতি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]