দক্ষিণাচার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

দক্ষিণাচার একটি তান্ত্রিক আচারবিশেষ। দক্ষিণাচারে নাস্তিক্যবাদী আচার-অনুষ্ঠানগুলিকে অস্বীকার করা হয়। এই আচারের বিপরীতে হিন্দুধর্মের সাধারণ সামাজিক রীতিবিরুদ্ধ তান্ত্রিক আচারটি "বামাচার" নামে পরিচিত।

সংস্কৃত দক্ষিণ শব্দের আক্ষরিক অর্থ "ডান"।[১] সংস্কৃত আচার শব্দটির ব্যাখ্যা করতে গিয়ে এন. এন. ভট্টাচার্য লিখেছেন,

আধ্যাত্মিক প্রাপ্তি সামর্থ্য ভেদে এক এক জনের এক এক রকম হয়... "আচার" সাধারণত সাত প্রকার - বেদ, বৈষ্ণব, শৈব, দক্ষিণ, বাম, সিদ্ধান্ত ও কৌল। এই সাতটি আচার মূলত দক্ষিণ ও বাম - এই দু'টি প্রধান বিভাগের অন্তর্গত। আচারগুলির প্রকৃতি ও বর্গীকরণ নিয়ে নানা ব্যাখ্যা প্রচলিত আছে।[২]

তন্ত্রশাস্ত্র ব্রহ্মযামল অনুযায়ী, তন্ত্রাচারের তিনটি প্রধান ধারা রয়েছে। যথা, দক্ষিণাচার, বামাচার ও মধ্যমাচার। এই তিনটি আচার তিন গুণের বৈশিষ্ট্য। দক্ষিণাচার সত্ত্বগুণ, বামাচার রজঃগুণ ও মধ্যমাচার তমোগুণের সঙ্গে সম্পর্কিত। তিনটি ধারার ধর্মাচারণের পদ্ধতি ভিন্ন ভিন্ন।[৩] হিন্দুধর্মের মূলধারার সন্ন্যাসধর্ম ও ধ্যানপ্রক্রিয়া দক্ষিণাচারের অঙ্গ।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Macdonell, A. A. (1996) p. 115.
  2. Bhattacharyya (1999) pp. 368-69.
  3. Bagchi, P. C. "Evolution of the Tantras" in: Prabhananda (2000) pp. 13-14.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  • Bhattacharya, N. N. History of the Tantric Religion. Second Revised Edition. Manohar Publications, Delhi, 1999. ISBN 81-7304-025-7
  • Macdonell, Arthur Anthony. A Practical Sanskrit Dictionary. Munshiram Monoharlal Publishers. 1996 Edition. ISBN 81-215-0715-4