ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
স্কু-'বুম বৌদ্ধবিহারে ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পার মূর্তি

ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা (ওয়াইলি: tsong kha pa blo bzang grags pa) (১৩৫৭-১৪১৯) তিব্বতী বৌদ্ধধর্মের অন্যতম প্রধান ধর্মসম্প্রদায় দ্গে-লুগ্স ধর্মসম্প্রদায়ের প্রতিষ্ঠাতা এবং দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহারের প্রথম দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা বা প্রধান ছিলেন।

জন্ম[সম্পাদনা]

ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা ১৩৫৭ খ্রিষ্টাব্দে তিব্বতের আমদো অঞ্চলের ত্সোং-খা অঞ্চলে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম ছিল ক্লু-'বুম-দ্গে (ওয়াইলি: klu 'bum dge) এবং মাতার নাম ছিল শিং-ব্জা'-আ-ছোস (ওয়াইলি: shing bza' a chos)। ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পার জন্মস্থানে পরবর্তীকালে তাঁর মাতা একটি স্তূপ নির্মাণ করেন এবং ১৫৮৩ খ্রিষ্টাব্দে তৃতীয় দলাই লামা এই স্থানে স্কু-'বুম বৌদ্ধবিহার স্থাপন করেন।[১]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

পঞ্চদশ শতাব্দীর চিত্রকলায় ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা

কার্মা-ব্কা'-ব্র্গ্যুদ ধর্মীয় গোষ্ঠীর চতুর্থ র্গ্যাল-বা-কার্মা-পা রোল-পা'ই-র্দো-র্জে তাঁকে তিন বছর বয়স হলে উপাসকের দীক্ষা দেন ও তাঁর নাম দেন কুন-দ্গা'-স্ন্যিং-পো (ওয়াইলি: kun dga' snying po)। আট বছর বয়সে তিনি ছোস-র্জে-দোন-গ্রুব-রিন-ছেন (ওয়াইলি: chos rje don grub rin chen) নামক ব্কা'-গ্দাম্স ধর্মসম্প্রদায়ের এক ভিক্ষুর নিকট শ্রমণের দীক্ষা নেন এবং বজ্রভৈরব সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। ষোল বছর বয়সে তিনি দ্বুস-গ্ত্সাং অঞ্চলে যাত্রা করেন। র্তোগ্স-ব্র্জোদ-ম্দুন-লেগ্স-মা (ওয়াইলি: Rtogs brjod mdun legs ma) নামক তাঁর আত্মজীবনী অনুযায়ী এই সময় তিনি মৈত্রেয়নাথের প্রজ্ঞাপারমিতাঅসঙ্গবসুবন্ধুর অভিধর্ম, দিগনাগধর্মকীর্তির প্রমাণ এবং নাগার্জুনআর্যদেবের মধ্যমক সংক্রান্ত যাবতীয় তত্ত্ব সম্বন্ধে বিস্তারিত ভাবে অধ্যয়ন করেন।[২] রেদ-ম্দা'-বা-গ্ঝোন-নু-ব্লো-গ্রোস নামক বিখ্যাত সা-স্ক্যা পন্ডিতের নিকট তিনি মধ্যমক তত্ত্বের প্রসঙ্গিকা সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। রেদ-ম্দা'-বা-গ্ঝোন-নু-ব্লো-গ্রোসের ওপর তিনি এতটাই শ্রদ্ধাশীল ছিলেন যে ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা তাঁকে উদ্দেশ্য করে দ্মিগ্স-ব্র্ত্সে-মা (ওয়াইলি: dmigs brtse ma) নামে পাঁচ লাইনের একটি স্তব রচনা করে তাঁকে করুণা, শক্তি ও প্রজ্ঞার উৎস বলে বর্ণনা করেন। কিন্তু ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা এই স্তবের যথার্থ যোগ্য বলে অভিহিত করে রেদ-ম্দা'-বা-গ্ঝোন-নু-ব্লো-গ্রোস তাঁকে এই স্তবটি ফিরিয়ে দেন। এই স্তবটি বর্তমানেও ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পাকে উদ্দেশ্য করে প্রার্থনাসঙ্গীত হিসেবে দ্গে-লুগ্স ধর্মসম্প্রদায়ের মধ্যে উচ্চারিত হয়ে থাকে।[৩] তিনি স্প্যান-স্ঙ্গা-ব্সোদ-নাম্স-র্গ্যাল-ম্ত্শান (ওয়াইলি: spyan snga bsod nams rgyal mtshan) নামক 'ব্রি-কুং-ব্কা'-ব্র্গ্যুদ ধর্মীয় গোষ্ঠীর ভিক্ষুর নিকট নারো পার ছয় যোগ, ফ্যোগ্স-লাস-র্নাম-র্গ্যাল নামক জো-নাং সম্প্রদায়ের ভিক্ষুর নিকট কালচক্র তন্ত্র এবং রিন-ছেন-র্দো-র্জে নামক সা-স্ক্যা ভিক্ষুর নিকট মার্গফলহেবজ্র তন্ত্র সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। এছাড়াও তিনি বু-স্তোন-রিন-ছেন-গ্রুবের শিষ্য খ্যুং-পো-ল্হাস-পা-গ্ঝোন-নু-ব্সোদ-নাম্স (ওয়াইলি: khyung po lhas pa gzhon nu bsod nams) নামক ভিক্ষুর নিকট গুহ্যসমাজতন্ত্র এবং সা-স্ক্যা ধর্মসম্প্রদায়ের চতুর্দশ সা-স্ক্যা-খ্রি-'দ্জিন ব্লা-মা-দাম-পা-ব্সোদ-নাম্স-র্গ্যাল-ম্ত্শানের নিকট চক্রসম্বরহেরুকা তন্ত্র সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। তিনি গ্রুব-ছেন-নাম-ম্খা'-র্গ্যাল-ম্ত্শান নামক বৌদ্ধভিক্ষুর নিকট অতিযোগ তত্ত্ব সম্পর্কে শিক্ষালাভ করেন।[১]

রচনা[সম্পাদনা]

ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পার ব্রোঞ্জ মূর্তি

ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা কুড়ি বছর বয়সে লেগ্স-ব্শাদ-গ্সের-ফ্রেং (ওয়াইলি: legs bshad gser phreng) নামক তাঁর বিখ্যাত গ্রন্থটি রচনা শুরু করেন এবং তেত্রিশ বছর বয়সে তা সম্পন্ন করেন। ১৩৯৮ খ্রিষ্টাব্দে তিনি র্তেন-'ব্রেল-ব্স্তোদ-পা (ওয়াইলি: rten 'brel bstod pa) গ্রন্থটি রচনা করেন। ১৪০২ খ্রিষ্টাব্দে র্বা-স্গ্রেং বৌদ্ধবিহারে থাকাকালীন তিনি অতীশ দীপঙ্করের বোধিপথপ্রদীপ গ্রন্থকে ভিত্তি করে লাম-রিম-ছেন-মো (ওয়াইলি: lam rim chen mo) নামক তাঁর সর্বাপেক্ষা বিখ্যাত গ্রন্থটি রচনা করেন। ১৪০৫ খ্রিষ্টাব্দে গ্সার-মা ধর্মসম্প্রদায়গুলির মধ্যে প্রচলিত চার প্রকার তন্ত্র, বিশেষ করে অনুত্তরযোগতন্ত্রের ওপর বিস্তারিত আলোচনার জন্য স্ঙ্গাগ্স-রিম-ছেন-মো (ওয়াইলি: sngags rim chen mo) ১৪০৭ খ্রিষ্টাব্দে তিনি নাগার্জুন রচিত মূলমধ্যমককারিকা গ্রন্থের ওপর রিগ্স-পা'ই-র্গ্যা-ম্ত্শো (ওয়াইলি: rigs pa'i rgya mtsho) এবং লেগ্স-ব্শাদ-স্ন্যিং-পো (ওয়াইলি: legs bshad snying po) নামক দুইটি টীকাভাষ্য রচনা করেন। ১৪১৫ খ্রিষ্টাব্দে তিনি লাম-রিম-ছেন-মো গ্রন্থকে আরো সংক্ষিপ্ত করে লাম-রিম-'ব্রিং (ওয়াইলি: lam rim 'bring) নামক গ্রন্থ রচনা করেন। তিনি ১৪০১ খ্রিষ্টাব্দে য়ে-শেস-র্দো-র্জে-কুন-লাস-ব্তুস-পা-ঝেস-ব্যা-বা'ই-র্গ্যুদ (ওয়াইলি: ye shes rdo rje kun las btus pa zhes bya ba'i rgyud) বজ্রজ্ঞানসমুচ্চয়নামতন্ত্রের টীকাভাষ্য এবং গুহ্যসমাজতন্ত্রের ওপর গ্সাং-'দুস-রিম-ল্ঙ্গা-গ্সাল-স্গ্রোন (ওয়াইলি: gsang 'dus rim lnga gsal sgron) নামক গ্রন্থ রচনা করেন। মৃত্যুর এক বছর পূর্বে ১৪১৮ খ্রিষ্টাব্দে তিনি দ্বু-মা-দ্গোংস-পা-রাব-গ্সাল নামক গ্রন্থটি রচনা করেন (ওয়াইলি: gsang 'dus rim lnga gsal sgron)।[১]

অবদান[সম্পাদনা]

ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা ও তাঁর আটজন শিষ্য ১৩৯২ খ্রিষ্টাব্দে ব্যা-ব্রাল বৌদ্ধমঠে সাধনা করেন। এই সময় তাঁরা ত্রিস্কন্ধধর্মসূত্রে বর্ণিত অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন। এরপর তিনি 'দ্জিং-জি নামক স্থানে সেখানকার বিখ্যাত মৈত্রেয় মূর্তিটিকে সংস্কার করেন। ১৪০২ খ্রিষ্টাব্দে তিনি র্নাম-র্ত্সেদ-ল্দেং (ওয়াইলি: rnam rtsed ldeng) নামক স্থানে বসবাসকালে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের এক বিশাল সমাবেশে বিনয় সম্বন্ধে বিস্তারিত আলোচনা করেন। ১৪০৯ খ্রিষ্টাব্দে তিনি ফাগ-মো-গ্রু-পা রাজবংশের ষষ্ঠ রাজা গোং-মা-গ্রাগ্স-পা-র্গ্যাল-ম্ত্শানের পৃষ্ঠপোষকতায় লাসা শহরে প্রতি বছর লো-গ্সার বা তিব্বতী নববর্ষের দিনে উদযাপন করার জন্য স্মোন-লাম-ছেন-মো (ওয়াইলি: smon lam chen mo) নামক উৎসবের সূচনা করেন।[৪] ১৪১০ খ্রিষ্টাব্দে গোং-মা-গ্রাগ্স-পা-র্গ্যাল-ম্ত্শানের আর্থিক সাহায্যে তিনি দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহার নির্মাণ করেন।[৫] পরবর্তীকালে এই বৌদ্ধবিহার তিব্বতের অন্যতম প্রধান বৌদ্ধবিহারে পরিণত হয় এবং দ্গে-লুগ্স ধর্মসম্প্রদায়ের মূলকেন্দ্রে পরিণত হয়। ১৪১৫ খ্রিষ্টাব্দের মধ্যে তিনি চক্রসম্বর, বজ্রভৈরবগুহ্যসমাজ নামক অনুত্তরযোগতন্ত্রের তিন তন্ত্রকে প্রতিনিধিত্বকারী একটি ত্রিমাত্রিক মন্ডল ও মন্দির নির্মাণ করেন। তিনি দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহারের প্রথম দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা বা প্রধান হিসেবে পরিগণিত হন। তিনি দ্বিতীয় দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা র্গ্যাল-ত্শাব-র্জে-দার-মা-রিন-ছেন, তৃতীয় দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা ম্খাস-গ্রুব-র্জে-দ্গে-লেগ্স-দ্পাল-ব্জাং, প্রথম দলাই লামা, দ্রেপুং বৌদ্ধবিহারের প্রতিষ্ঠাতা 'জাম-দ্ব্যাংস-ছোস-র্জে-ব্ক্রা-শিস-দ্পাল-ল্দান এবং 'দুল-'দ্জিন-গ্রাগ্স-পা-র্গ্যাল-ম্ত্শান নামক বিখ্যাত তিব্বতী পন্ডিতদের শিক্ষাদান করেন।[১]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা

১৪১৯ খ্রিষ্টাব্দে দ্গা'-ল্দান বৌদ্ধবিহারে মৃত্যুবরণ করেন। তাঁর মৃত্যুকে স্মরণে রাখার জন্য এই বৌদ্ধবিহারে দ্গা'-ল্দান-ল্ঙ্গা-ম্ছোদ (ওয়াইলি: dga' ldan lnga mchod) নামক একটি উৎসব পালিত হয়। এই উৎসবে পুণ্যার্থীরা বাড়ির ছাদে ও জানালায় মাখনের জ্বালানী বিশিষ্ট বাতি প্রজ্জ্বলিত করেন।[১]

সমালোচনা[সম্পাদনা]

ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পার দর্শন সম্বন্ধে বহু তিব্বতী পন্ডিত সমালোচনা করেছেন। তাঁর মধ্যমক সম্বন্ধীয় তত্ত্ব কোন ভারতীয় বা তিব্বতীয় গ্রন্থের সঙ্গে মেলে না বলে স্বয়ং অষ্টম র্গ্যাল-বা-কার্মা-পা মি-ব্স্ক্যোদ-র্দো-র্জে সমালোচনা করেছেন।[n ১][n ২] এই অভিযোগের উত্তরে প্রথম দিকের দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা বলেছেন যে, ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা বস্তুতঃ নতুন এক দর্শনের জন্ম দিয়েছিলেন।[n ৩][n ৪] পঞ্চদশ শতাব্দীর সা-স্ক্যা ধর্মসম্প্রদায়ের পন্ডিত গো-রাম্স-পা-ব্সোদ-নাম্স-সেং-গে ছিলেন ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পার একজন প্রধান সমালোচক।[n ৫][n ৬]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. First, with a few exceptions, the majority of books or articles on Madhyamaka by Western - particularly North American - scholars is based on the explanations of the Gelugpa school of Tibetan Buddhism. Deliberately or not, many of these Western presentations give the impression that the Gelugpa system is more or less equivalent to Tibetan Buddhism as such and that this school's way of presenting Madhyamaka is the standard or even the only way to explain this system, which has led to the still widely prevailing assumption that this is actually the case. From the perspective of Indian and Tibetan Buddhism in general, nothing could be more wrong. In fact, the peculiar Gelugpa version of Madhaymaka is a minority position in Indo-Tibetan Buddhism, since its uncommon features are neither found in any Indian text nor accepted by any of the other Tibetan schools.[৬]
  2. All critics of Tsongkhapa, including the Eighth Karmapa, agree that many features of his Centrism are novelties that are not found in any Indian sources and see this as a major flaw.[৭]
  3. Though the Sakya had their own teachings on these subjects, Tsongkhapa was coming to realize that he wanted to create something new, not necessarily a school, but at least a new formulation of the Buddhist Path.[৮]
  4. As Khedrup and later followers of Tsongkhapa hit back at accusations like these, they defined their own philosophical tradition, and this went a long way to drawing a line in the sand between the Gandenpas and the broader Sakya tradition.[৯]
  5. Gorampa, in the Lta ba ngan sel (Eliminating the Erroneous View), accuses Tsongkhapa of being "seized by demons" (bdud kyis zin pa) and in the Lta ba'i shan 'byed (Distinguishing Views) decries him as a "nihilistic Madhyamika" (dbu ma chad lta ba) who is spreading "demonic words" (bdud kyi tshig).[১০]
  6. Even as serious a scholar as Go rams pa cannot resist suggesting, for example, that Tsong kha pa's supposed conversations with Manjusri may have been a dialogue with a demon instead.[১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ ১.২ ১.৩ ১.৪ Repo, Joona (2011-08)। "Tsongkhapa Lobzang Drakpa"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগৃহীত 2014-01-09 
  2. ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা. ১৯৭৫. র্তোগ্স-ব্র্জোদ-ম্দুন-লেগ্স-মা (ওয়াইলি: Rtogs brjod mdun legs ma). ঝাল-'দুন-ন্যের-ম্থো-ফ্যোগ্স-ব্স্দেব্স (ওয়াইলি: Zhal ‘dun nyer mtho phyogs bsdebs). বেনারস: ম্থো-স্লোব-দ্গে-ল্দান-স্প্যি-লাস-খাং (ওয়াইলি: mtho slob dge ldan spyi las khang)(তিব্বতি)
  3. Chhosphel, Samten (2011-06)। "Rendawa Zhonnu Lodro"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগৃহীত 2014-01-09 
  4. Tsepon W.D. Shakabpa, Tibet. A Political History. Yale 1967, pp. 85-6.
  5. Laurent Deshayes, Histoire du Tibet. Paris 1997, p. 120.
  6. Brunnholzl, Karl. The Center of the Sunlit Sky. Snow Lion Publications. 2004, pg. 17.
  7. Brunnholzl, Karl. The Center of the Sunlit Sky. Snow Lion Publications. 2004, pg. 555.
  8. Schaik, Sam van. Tibet: A History. Yale University Press 2011, page 103.
  9. Schaik, Sam van. Tibet: A History. Yale University Press 2011, page 109.
  10. Thakchoe, Sonam. The Two Truths Debate:. Wisdom Publications 2007, page 125.
  11. Cabezón, José. Freedom from Extremes. Wisdom Publications 2007, page 17.

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী
ত্সোং-খা-পা-ব্লো-ব্জাং-গ্রাগ্স-পা
প্রথম দ্গা'-ল্দান-খ্রি-পা


উত্তরসূরী
র্গ্যাল-ত্শাব-র্জে-দার-মা-রিন-ছেন