তেরেসা ক্লারামুন্ট ক্রিয়াস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তেরেসা ক্লারামুন্ট আই ক্রিয়াস
Claramunt.png
জন্ম তেরেসা ক্লারামুন্ট আই ক্রিয়াস
৪ঠা জুন, ১৮৬২
সাবাডেল
মৃত্যু ১৯৩২ সালের ১১ই এপ্রিল (বয়স ৬৮)
বার্সেলোনা
যে জন্য পরিচিত নৈরাজ্যবাদ প্রচারকারী

তেরেসা ক্লারামুন্ট (১৮৬২–১৯৩২) একজন কাতালান স্প্যানিশ নৈরাজ্যবাদী ছিলেন।

জীবন[সম্পাদনা]

তিনি একজন টেক্সটাইল কর্মকর্তা ছিলেন এবং সাবাদেলে ফার্নানান্দো তারিদা দ্য মারমোল কর্তৃক প্ররোচিত হয়ে একটি নৈরাজ্যবাদী দল গড়ে তোলেন। এই দলটি ১৮৮৩ সালে সাত সপ্তাহব্যাপী একটি হরতালে অংশগ্রহণ করেন যেখানে তারা একদিনে দশ ঘণ্টা কাজের দাবি জানায়। অক্টোবর, ১৮৮৪ সালে সাবাদেলের নৈরাজ্য-সংগ্রহকারীর বৈকল্পিক কর্মশাখা (Secció Vària de Treballadores Anarco-col·lectivistes de Sabadell) গড়ে তোলার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।

১৮৯২ সালে অ্যাঞ্জেলা লোপেজ দ্য আয়ালাএমালিয়া ডোমিঙ্গোর সাথে তিনি প্রথম স্প্যানিশ নারীবাদি সমাজ, বার্সেলোনা নারীশাসিত সমাজ-এর (Sociedad Autónoma de Mujeres de Barcelona) প্রচার করেন।[১]

১৮৯৩ সালে বার্সেলোনার গ্রান থিয়েটার দেল লিচেউ-এ বোমা বিস্ফোরনের অভিযোগে তাঁকে গ্রেপ্তার করে হয়। এরপর আবারো ১৮৯৬ সালে মন্টেজুঁয়েতে দমনাত্মক পন্থা গ্রহণের অভিযোগে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। শেষের অভিযোগে তাঁকে নৃশংসভাবে মারা হয় এবং এই ঘটনা তাঁর সারা জীবনেই একটি চিহ্ন রাখে। যদিও তিনি কোন অপরাধেরই অপরাধী ছিলেন না, তাঁকে ১৮৯৮ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ডে আটক করে রাখা হয়। তিনি এল প্রোডাক্টর (প্রযোজক) (১৯০১) ম্যাগাজিনের প্রতিষ্ঠা করেন এবং সক্রিয়ভাবে বিংশ শতাব্দির সামাজিক দাবির সাথে যুক্ত ছিলেন। তিনি লা ট্রামুন্টানালা রেভিস্তা ব্লান্সা ম্যাগাজিনে অবদান রাখেন এবং ১৯০৭-০৮ সালে এল রেবিল্ডা পত্রিকা পরিচালনা করেন।[২]

ফেব্রুয়ারি ১৯০২ সালে তিনি ধাতব খাতের হরতালকারীদের সাথে র‍্যালিতে যোগ দেন এবং আগস্ট, ১৯০৯ সালে কাতালোনীয়র শোকাবহ সপ্তাহর পর তাঁকে আবারও গ্রেপ্তার করা হয়। এবারে তাঁকে যারাগোজায় আটক করা হয় যেখানে ১৯১১ সালে তিনি স্থানীয় ইউনিয়নকে সিএনটিকে আরো সুসংগঠিত করে তুলতে সহায়তা করেন। ১৯১১ সালের সাধারণ হরতাল তাঁকে নতুন জেল এনে দেয়। তিনি অত্যন্ত অসুস্থ এবং শুধুমাত্র খাট-চেয়ারেই সীমাবদ্ধ থাকার পরেও পুলিশ ৪ই জুন, ১৯২৩ সালে কার্ডিনাল জুয়ান সোলেদেবিলা ওয়াই রোমেরোর উপর জারাগোজায় যে হামলা হয় তার পর তাঁর ঘরকে তল্লাশি চালায় এই অভিযোগে, যে তিনি ঐ ঘটনার সাথে যুক্ত ছিলেন। ১৯২৪ সালে তিনি বার্সেলোনায় ফিরে আসলেও প্যারালাইজড থাকেন এবং সবরকম সামাজিক কর্মসূচী থেকে দূরে থাকেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Teresa Claramunt"Nomenclator। Ajuntament de Sabadell। সংগৃহীত 16 March 2014 
  2. Laura Vicente (2006): Teresa Claramunt: Pionera del feminismo obrerista anarquista. Madrid: Fundación Anselmo Lorenzo. Biografías y Memorias, 4
  3. Pérez Molina, Isabel। "Les dones en el moviment obrer a Catalunya"। Institut Català de les Dones। সংগৃহীত 16 March 2014