তিব্বতী বৌদ্ধধর্ম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(তিব্বতি বৌদ্ধধর্ম থেকে ঘুরে এসেছে)
বৌদ্ধধর্মের নিংমা ধারার প্রবর্তক গুরু পদ্মসম্ভব। চিত্রে তাঁর উন্মীলিত নেত্রদ্বয় বিশেষ একপ্রকার ধ্যানের অন্যতম বৈশিষ্ট্য[১]

তিব্বতি বৌদ্ধধর্ম হল হিমালয়ের কোলে অবস্থিত বিশেষ কিছু অঞ্চলে চর্চিত বৌদ্ধধর্ম যা তার নিজস্ব বৈশিষ্ট্যে এক স্বতন্ত্র রূপ লাভ করেছে। মূলত তিব্বত, ভুটান, ভারতের সিকিম, লাদাখ উপত্যকা, তাওয়াং, মঙ্গোলিয়া, রাশিয়া, এবং উত্তর-পূর্ব চিনের কিছু অংশের অধিবাসীগণ অনুশীলন করে থাকে তিব্বতি বৌদ্ধধর্ম। তিব্বতি বৌদ্ধধর্মে বিবিধ প্রকারের ধারা এবং মতবাদের অস্তিত্ব থাকলেও এটি মূখ্যত চার ধারায় বিভক্ত, যথা, নিংমা, কাগিয়ু, গেলুগ এবং সাক্য। বৌদ্ধধর্মের এই সকল ধারাই তিনটি মূল শাখা মহাযান, হীনযান এবং বজ্রযানের শিক্ষার আদর্শ বহন করে চলেছে। যদিও গেলুগ ধারার মত কোন কোন মতানুসারে বজ্রযান মহাযানেরই একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ।

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Wallace, 1999: 183